বড় খবর

র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট কী?

আইসিএমআর বলেছে কঠোর চিকিৎসক তত্ত্বাবধানে এই পরীক্ষা করতে এবং কিটকে ২ থেকে ৩০ ডিগ্রি তাপমাত্রার মধ্যে রাখতে।

Rapid Antigen Test
বর্তমানে আরটি পিসিআর টেস্টই কোভিড ১৯ পরীক্ষার জন্য সেরা বলে গৃহীত

সোমবার ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিক্যাল রিসার্চ কোভিড ১৯-এর জন্য নতুন একটি টেস্টের অনুমোদন দিয়েছে। র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন পরীক্ষার জন্য নির্দিষ্ট জায়গা লাগবে এবং এর কিটের জন্য কেবলমাত্র একটি প্রস্তুতকারী সংস্থাই অনুমোদন পেয়েছে।

কোভিড-১৯-এর র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট কী?

নাকের থেকে রসের নিয়ে নমুনা নিয়ে এখানে অ্যান্টিজেন পরীক্ষা করা হয় যে অ্যান্টিজেন সার্স কোভ ২ ভাইরাসে মেলে। এ পরীক্ষা সাধারণ ল্যাবরেটরিতে হয় না, এবং এর রেজাল্ট তাড়াতাড়ি মেলে।

ভারতে আইসিএমআর যে কিট অনুমোদন করেছে তা প্রস্তুত করে দক্ষিণ কোরিয়ান সংস্থা এস ডি বায়োসেন্সর। এই সংস্থার মানেসরে একটি উৎপাদন ইউনিট রয়েছে।

র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট কীভাবে আরটি-পিসিআরের থেকে আলাদা?

বর্তমানে আরটি পিসিআর টেস্টই কোভিড ১৯ পরীক্ষার জন্য সেরা বলে গৃহীত। আরটি-পিসিআরের মতই এই পরীক্ষাতেও ভাইরাস চিহ্নিত করা হয়, শরীরে তৈরি হওয়া অ্যান্টিবডি নয়। দুটির মেকানিজম আলাদা হলেও দুয়ের মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ তফাৎ হল সময়। আইসিএমআর দেখিয়েছে আরটি-পিসিআর পরীক্ষায় ২ থেকে ৫ ঘণ্টা সময় লাগে। অন্যদিকে র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টে এই সময়কাল মাত্র ৩০ মিনিট।

আরও পড়ুন, ভারতে কোভিড-১৯ পরীক্ষা

কেন কেবল এসডি বায়োসেন্সরের কিট অনুমোদিত হল?

সারা পৃথিবীতে অ্যান্টিজেন ডিটেক্ট করার জন্য মাত্র কয়েকটি নির্ভরযোগ্য কিট রয়েছে। আমেরিকায় ৯ মে আমেরিকান সংস্থা কুইডেলের অ্যান্টিজেন কিট সোফিয়া ২ সার্স অ্যান্টিজেন কিটের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। ১৪ মে জাপান সরকার টোকিওর সংস্থা অ্যান্টিজেন টেস্ট কিট অনুমোদন করেছে। ভারতে এস ডি বায়োসেন্সর সংস্থার কিট আইসিএমআর এবং এইমসে পরীক্ষা করা হয়েছে।

রেজাল্টে দেখা গিয়েছে এই কিটের ৯৯.৩ শতাংশ থেকে ১০০ শতাংশ ক্ষেত্রে সঠিক নেগেটিভ ফল দিচ্ছে। পজিটিভের ক্ষেত্রে এর সাফল্য ৫০.৬ থেকে ৮৪ শতাংশ, যা ভাইরাল লোডের উপর নির্ভরশীল। এসডি বায়োসেন্সরকে বাণিজ্যিকভাবে কিট  বাজারজাত করার অনুমতি দেওয়া ছাড়াও আইসিএমআর অন্য উৎপাদক সংস্থাগুলিকে এ ধরনের কিটের ভ্যালিডেশনের জন্য এগিয়ে আসতে বলেছে।

কোথায় পরীক্ষা হবে?

বর্তমানে কিট কনটেনমেন্ট জোন বা হটস্পটে এবং স্বাস্থ্যপরিষেবা ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হবে। আইসিএমআর বলেছে কঠোর চিকিৎসক তত্ত্বাবধানে এই পরীক্ষা করতে এবং কিটকে ২ থেকে ৩০ ডিগ্রি তাপমাত্রার মধ্যে রাখতে।

কনটেনমেন্ট জোনে ইনফ্লুয়েঞ্জা উপসর্গযুক্ত সকলকে এই টেস্ট করতে বলা হয়েছে। উপসর্গবিহীন যাঁরা সংক্রমিতের সরাসরি সংস্পর্শে এসেছেন এবং ঝুঁকি প্রবণ যাঁরা সংস্পর্শে এসেছেন তাঁদের সংস্পর্শে আসার ৫ থেকে ১০ দিনের মধ্যে পরীক্ষা করাতে হবে।

স্বাস্থ্যপরিষেবা ক্ষেত্রে এই কিট তিন পর্যায়ে ব্যবহার করা যেতে পারে। প্রথমত সমস্ত ইনফ্লুয়েঞ্জার মত উপসর্গযুক্ত ও সন্দেহভাজন কোভিড আক্রান্ত, দ্বিতীয়ত উপসর্গবিহীন যাঁরা হাসপাতালে ভর্তি বা ভর্তি হচে চাইছেন তেমন ঝুঁকিপ্রবণ, এবং তৃতীয়ত উপসর্গবিহীন যাঁদের বিভিন্ন রকম অপারেশন চলছে।

কোভিড-১৯-এর জন্য এ পরীক্ষা কি নিশ্চিত?

আইসিএমআর গাইডলাইনে বলা হয়েছে এ পরীক্ষায় পজিটিভ এলে আর পরীক্ষার দরকার নেই। তবে যদি ফল নেগেটিভ আসে তাহলে একবার আরটি পিসিআর পরীক্ষা করানো উচিত।

আরও পড়ুন, কোভিড-১৯-এর দ্বিতীয় প্রবাহ

অ্যান্টিজেন টেস্টের সীমাবদ্ধতা কোথায়?

মার্কিন সংস্থা এফডিএ বলেছে অ্যান্টিজেন পরীক্ষা পিসিআর টেস্টের মত সংবেদনশীল নয়।

আইসিএমআর বলেছে একবার নমুনা ওই কিটে সংগ্রহ করার পর তা এক ঘন্টা কার্যকর থাকে। ফলে যেখানে নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে সেখানেই পরীক্ষা করে ফেলতে হবে।

এসডি বায়োসেন্সর বলেছে কোনও নমুনায় অ্যান্টিজেনের মাত্রা যদি টেস্টের সংবেদনশীলতার কম হয় বা নমুনার মান খারাপ হয় তাহলে নেগেটিভ টেস্ট রেজাল্ট আসতে পারে।

একই সঙ্গে তারা বলছে শিশু ও বয়স্কদের পরীক্ষার ফলে তফাৎ থাকতে পারে।

Get the latest Bengali news and Explained news here. You can also read all the Explained news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Covid 19 rapid antigen test

Next Story
চিনের পেশিপ্রদর্শনের কারণ কী?China India LAC
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com