scorecardresearch

Explained: ২ বছর কেটে গেলেও লং কোভিড সমস্যা থেকে মুক্তি মিলছে না, কী বলছে সাম্প্রতিক গবেষণা?

অধিকাংশ মানুষের প্রায় ২ বছর পরেও কোভিড কালীন কিছু সমস্যা রয়ে গিয়েছে। তার মধ্যে ক্লান্তি, শ্বাসকষ্ট এবং ঘুমের সমস্যা অন্যতম।

Explained: ২ বছর কেটে গেলেও লং কোভিড সমস্যা থেকে মুক্তি মিলছে না, কী বলছে সাম্প্রতিক গবেষণা?
অধিকাংশ মানুষের প্রায় ২ বছর পরেও কোভিড কালীন কিছু সমস্যা রয়ে গিয়েছে। তার মধ্যে ক্লান্তি, শ্বাসকষ্ট এবং ঘুমের সমস্যা অন্যতম।

প্রায় ২ বছর অতিক্রান্ত। দাপট দেখাচ্ছে করোনা ভাইরাস। এই ভাইরাসের বলি হয়েছে বিশ্বব্যাপী কয়েক লক্ষ মানুষ। টিকাকরণ, কোভিড বিধি কোন কিছুই যেন দমিয়ে রাখতে পারেনি সংক্রমণকে। দুটি করোনা টিকার পর বুস্টার ডোজ নিয়েও কোভিড পজিটিভ মানুষের সংখ্যা নেহাতই কম নয়। এর মাঝেই উদ্বেগ অব্যাহত রয়েছে লং কোভিড এফেক্ট। দ্য ল্যানসেট জার্নালে প্রকাশিত একটি সমীক্ষা অনুসারে দেখা গিয়েছে কোভিড পজিটিভ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি অধিকাংশ মানুষের প্রায় ২ বছর পরেও কোভিড কালীন কিছু সমস্যা রয়ে গিয়েছে। তার মধ্যে ক্লান্তি, শ্বাসকষ্ট এবং ঘুমের সমস্যা অন্যতম।

চিনের ১হাজার ১৯২ জন মানুষের ওপর করা এই গবেষণায় দেখা গিয়েছে ২০২০ সালের প্রথম দিকে যারা কোভিড পজিটিভ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন তাদের মধ্যে প্রায় সকলেরই দীর্ঘ ২ বছর সময় কেটে গেলেও কোভিড কালীন কিছু সমস্যা রয়ে গিয়েছে। অসুস্থ হওয়ার দু বছর পরেও ক্লান্তি, শ্বাসকষ্ট এবং ঘুমের সমস্যা সহ কমপক্ষে একটি উপসর্গ রিপোর্ট করা হয়েছে।  প্রাথমিকভাবে অসুস্থ হওয়ার ৬ মাস পরে ৬৮%মানুষ লং কোভিড সমস্যার কথা জানিয়েছেন। ৫৫% মানুষ ২ বছর পরও নানান শারীরিক সমস্যার কথা তুলে ধরেছেন। ৮৯% মানুষ কোনপ্রকার শারীরিক সমস্যা ছাড়াই স্বাভাবিক জীবনে ফিরে গেছেন।

আরও পড়ুন: আতঙ্কের নাম Tomato Flu, জানুন লক্ষণ, চিকিৎসা, সতর্কতা

গবেষণায় দেখা গিয়েছে প্রাথমিক ভাবে কোভিড পজিটিভ হওয়ার ২ বছর সময় পার হলেও ৩১% মানুষ ক্লান্তি বা পেশী দুর্বলতার উল্লেখ করেছেন। অপর দিকে ৩১% মানুষ তাদের ঘুমের সমস্যা রিপোর্ট করেছেন। এর পাশাপাশি অধিকাংশ রোগীদের মধ্যে জয়েন্টে ব্যথা, বুক ধড়ফড়, মাথা ঘোরা এবং মাথাব্যথা সহ একাধিক সমস্যা দেখা গিয়েছে। কোভিড রোগীরা প্রায়শই ব্যথা বা অস্বস্তি (২৩%) এবং উদ্বেগ বা হতাশা’র (১২%)মত সমস্যার কথা জানিয়েছেন।

কোভিড পরবর্তীতে হতাশা এবং মানসিক উদ্বেগ বেড়েছে অনেকাংশেই গবেষণায় দেখা গিয়েছে ১৩% উদ্বেগের লক্ষণ প্রকাশ করেছেন এবং ১১% বিষণ্ণতার লক্ষণগুলির কথা বলেছেন। যেখানে নন লং কোভিডের ক্ষেত্রে এই হার মাত্র ৩% এবং ১%।

Read full story in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Explained news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Covid patients late symptoms explained