scorecardresearch

Explained: গোরক্ষক মনু মানেসর, তার বিরুদ্ধে কেন একের পর এক খুনের অভিযোগ?

ইউটিউব পেজও চালান এই গোরক্ষক।

Monu Manesar
হরিয়ানা পুলিশ এই গোরক্ষককে নানাভাবে সাহায্য করে।

গোরক্ষক হিসেবে তাঁর খ্যাতি। কিন্তু, সেসব ছাপিয়ে মোহিত যাদব ওরফে মনু মানেসর এখন সংবাদ শিরোনামে। একের পর এক খুনের ঘটনায় তিনি এখন কাঠগড়ায়। এর মধ্যে রাজস্থানের দু’জনকে হত্যার অভিযোগে নাম জড়িয়েছে মনু মানেসরের। এবার হরিয়ানার নূহ শহরে এক ব্যক্তিকে খুনের অভিযোগে মানেসরের নাম জড়িয়েছে। যদিও পুলিশ এই সব অভিযোগ এফআইআর হিসেবে নথিবদ্ধ করেনি। বদলে জানিয়েছে, ওয়ারিস খান (২২) দুর্ঘটনায় আহত হয়েছিলেন। তার জেরেই তাঁর মৃত্যু হয়। গত ১৮ ফেব্রুয়ারি দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসে এনিয়ে খবরও বেরিয়েছে। যদিও ওয়ারিস পরিবারের অভিযোগ অনুযায়ী, তাঁদের বাড়ির ছেলেকে গোরক্ষকরা বেধড়ক মারধর করেছে। আর, সেই মারধরের নেতৃত্ব দিয়েছে গোরক্ষক মনু মানেসর।

ধাওয়া করেছিলেন মনু
ওয়ারিসের পরিবারের অভিযোগ, মনু গাড়িতে চেপে তাঁদের বাড়ির ছেলেকে ধাওয়া করেছিল। মনুর অভিযোগ ছিল, ওয়ারিস গোরু পাচার করছে। তবে তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করে দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে মনু বলেছেন, ‘ওয়ারিসের ব্যাপারটা একটা দুর্ঘটনা ছিল। আমরা খবর পেয়েছিলাম যে অভিযুক্ত গোরু পাচার করছে। আর, সেই খবর পেয়েই আমরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে গিয়েছিলাম। আমরা অভিযুক্তের একটি ভিডিও রেকর্ড করেছি। আর, তারপর অভিযুক্তদের পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছি।’ গত পাঁচ বছরে বজরং দলের নেতা মনু গোরক্ষক হিসেবে বেশ পরিচিত হয়ে ওঠে। গুরগাঁওয়ে হরিয়ানা সরকারের টাস্ক ফোর্সের অন্যতম নেতা হিসেবে নাম উঠে আসে মনুর।

কে এই মনু মানেসর?
মানেসরের বাসিন্দা মনু (২৮) একজন পলিটেকনিক কলেজের ডিপ্লোমা সার্টিফিকেট প্রাপ্ত। তিনি নিজেকে একজন ‘গোরক্ষক’ এবং সমাজকর্মী হিসেবে পরিচয় দিতেই বেশি ভালোবাসেন। ২০১১ সালে মানেসর জেলায় বজরং দলের জেলা সংযোজক হিসেবে তিনি পরিচিত লাভ করেন। মানেসরে শ্রমিক মহল্লার এক ঘরে থাকেন মনু। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে তিনি বলেন, ‘আমি গরুদের নিয়েই বেড়ে উঠেছি। গোমাতার প্রতি আমার বিশ্বাস আছে। আর, ধর্ম রক্ষা করা আমার কাজ। এটা আমার কাছে একটা বিশ্বাসের ব্যাপার। সেই কারণে গরুর ওপর অত্যাচার দেখে আমি তাদের উদ্ধারের সংকল্প নিই। আর বেআইনি গরুপাচার রোখার চেষ্টা করছি। মেওয়াত বা নূহ এবং অন্যান্য জায়গা থেকে আমরা হামেশাই গরুপাচারের অভিযোগ পাই। সেসব রোখার চেষ্টা করি।’ বর্তমানে মনু মানেসর জেলা গোরক্ষক বাহিনীর প্রধান। পাশাপাশি, মানেসর জেলা প্রশাসনের অসামরিক প্রতিরক্ষা দফতরের সদস্যও মনু।

আরও পড়ুন- গোয়া থেকে রিও, কানির্ভালে মাতোয়ারা বিশ্ব, শুরুটা হল কোথা থেকে?

ইউটিউব পেজ চালান
পাশাপাশি তিনি একটি ইউটিউব পেজ চালান। সেই পেজের নাম, ‘মনু মানেসর বজরং দল’। বর্তমানে এই পেজের দু’লক্ষেরও বেশি সাবস্ক্রাইবার। ইতিমধ্যেই সিলভার প্লে বাটনও পেয়েছে এই পেজ। মনু ও তাঁর সহযোগীরা হামেশাই গোরক্ষা নিয়ে ছবি পোস্ট করেন। সেই সব পোস্টে দেখানো হয়, তাঁরা কীভাবে গরুপাচার রুখছেন এবং পাচার হওয়া গরু উদ্ধার করছেন। এর পাশাপাশি তাঁরা উদ্ধার হওয়া গবাদি পশু এবং ধৃতদের ছবিও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে থাকেন।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Explained news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Gau rakshak monu manesar is at the centre of recent controversies