scorecardresearch

বড় খবর

আয়করের নয়া ‘ফর্ম ২৬এএস’ কী? কর রিটার্নে কতটা গুরুত্বপূর্ণ?

সুদীর্ঘ সময় ধরেই আয়কর দফতরের তরফে অভিযোগ করা হয়, করদাতাদের একাংশ তাঁদের আয়কর রিটার্নে মোটা অঙ্কের আর্থিক লেনদেনের তথ্য প্রকাশ করেন না।

করদাতার যাবতীয় বড় অঙ্কের লেনদেনের খতিয়ান নথিভূক্ত করবে এই ‘ফর্ম ২৬এএস’

আয়কর সংক্রান্ত তথ্য জটিলতা কাটাতে আয়কর দফতর নিয়ে আসল নয়া ‘ফর্ম ২৬এএস’। করদাতাদের এবং আয়কর দফতরের কর্তৃপক্ষের মধ্যে তথ্য সংক্রান্ত সমস্ত জটিলতা কাটাতেই একটি নির্দিষ্ট অর্থবর্ষে করদাতার যাবতীয় বড় অঙ্কের লেনদেনের খতিয়ান নথিভূক্ত করবে এই ‘ফর্ম ২৬এএস’। তবে কর জমার ক্ষেত্রে ‘ফর্ম ২৬এএস’ মান্যতা ঐচ্ছিক।

সুদীর্ঘ সময় ধরেই আয়কর দফতরের তরফে অভিযোগ করা হয়, করদাতাদের একাংশ তাঁদের আয়কর রিটার্নে মোটা অঙ্কের আর্থিক লেনদেনের তথ্য প্রকাশ করেন না। ফলে ওই সব লেনদেনে যে কর দেওয়া উচিত, সেগুলি জমা পড়ছে না কর খাতে। সেই সকল তথ্য যাতে রিটার্নে যথাযথ ভাবে উল্লেখ করতে পারেন, সেই বিষয়টি নিশ্চিত করতেই এই নয়া উদ্যোগ আয়কর দফতরের।

এই ‘ফর্ম ২৬এএস’ কী?

আয়কর লেনদেনের একটি বার্ষিক তথ্য এই ফর্ম ২৬এএস। যেখান থেকে থেকে জানতে পারা যাবে সংশ্লিষ্ট সংস্থা ও ব্যাঙ্ক আপনার আয় থেকে কত টাকা টিডিএস কেটেছে এবং সেই টিডিএসের কতটা সরকারের কাছে জমা পড়েছে৷ সংশ্লিষ্ট ব্যাঙ্কে যে সেভিংস অ্যাকাউন্ট, ফিক্সড ডিপোজিট প্রভৃতি রয়েছে, তা থেকে প্রাপ্ত সুদও এখানে দেখতে পাওয়া যাবে৷

গত মে মাসে এই নয়া নিয়ম সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয় আয়কর দফতরের পক্ষ থেকে। ২০২১ সালের ১ জুন থেকে এইসব পরিবর্তন চালু হতে চলেছে। আইটি রিটার্ন প্রক্রিয়া এবং মূল্যায়ন প্রক্রিয়াকে আরও কার্যকরী করার জন্য করদাতাদের লেনদেন সংক্রান্ত আরও বিস্তারিত তথ্য দিতে হবে বলে জানানো হয় সেখানে। মোট কথা, উচ্চমূল্যের সব লেনদেন ২৬এএস ফর্মে দেখানো হলে তা যাচাইয়ের সুযোগ পাবে আয়কর দফতর। আয়করের হিসেব সংক্রান্ত নতুন ‘২৬এএস’ ফর্মের মধ্যেই বড় অঙ্কের লেনদেনের তথ্য দেখাতে পৃথক স্টেটমেন্ট জমার ব্যবস্থা করা হয়েছে। পুরনো ‘২৬এএস’ ফর্মে এত দিন প্যান ভিত্তিক টিডিএস, টিসিএস খাতে জমা কর-সহ বিভিন্ন তথ্যের হিসেব থাকলেও, বড় লেনদেনের স্টেটমেন্ট জমার ব্যবস্থা ছিল না।

‘ফর্ম ২৬এএস’-এ কী কী বিস্তারিত তথ্য জমা দিতে বলা হয়েছে?

দ্য সেন্ট্রাল বোর্ড অফ ডিরেক্ট ট্যাক্স (সিবিডিটি) একটি বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানিয়েছে যে আয়কর দফতর করদাতাদের থেকে তথ্য জানতে পারে মূলত ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টস, স্থাবর সম্পত্তি কেনা-বেচা, ডিপোজিট, ক্রেডিট কার্ড পেমেন্ট, শেয়ার কেনা, ডিবেঞ্চারস কেনা-বেচা, বিদেশি মুদ্রা লেনদেন, মিউচুয়াল ফান্ড, নগদের মাধ্যমে ক্রয় ইত্যাদির মাধ্যমে। আয়কর আইন ১৯৬১-এর ২৮৫বিএ ধারা অনুযায়ী ২০১৬ সাল থেকে ব্যাঙ্ক, মিউচুয়াল ফান্ড, শেয়ার ইত্যাদি ক্ষেত্রে যেসকল ব্যক্তিরা বিপুল অর্থ লেনদেন করে থাকেন তাঁদের বিশেষ নজরে রাখতে পারবে আয়কর দফতর।

নয়া বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “এবার থেকে এই নতুন ফর্ম ২৬এএস-এ সমস্ত লেনদেন তথ্য নথিভুক্ত থাকবে।” উল্লেখ্য, এর আগে এক বছরে কোনও ব্যক্তি এক বা একাধিক অ্যাকাউন্ট থেকে ১০ লক্ষ কিংবা তার বেশি আর্থিক লেনদেন করলে সেই রেকর্ড বিশদে জমা রাখত ব্যাঙ্ক এবং নগদ আমানতকারী সংস্থাগুলি। আগে ২৬এএস ফর্মে ট্যাক্স ডিডাকশন অ্যাট সোর্স (টিডিএস), ট্যাক্স কালেকশন অ্যাট সোর্স (টিসিএস), অন্যান্য কর সংক্রান্ত এবং টিডিএস খেলাপ সংক্রান্ত তথ্য দিতে হত। নয়া ফর্মে আরও বিস্তারিত তথ্য দিতে হবে। পাশাপাশি বাকি থাকা ও সম্পূর্ণ হয়ে যাওয়া আয়কর প্রক্রিয়া এবং আয়কর কত বাকি আছে ও কত ফেরানো হবে, সেই সংক্রান্ত তথ্যও থাকবে। সিবিডিটি জানিয়েছে, নয়া ফর্মের ফলে আইটি রিটার্ন জমার সময় যাবতীয় আর্থিক লেনদেনের বিষয়ে অবহিত থাকবেন করদাতারা।

এবার থেকে কী তবে নয়া নিয়মেই কর জমা দেবেন করদাতারা?

এই নয়া ফর্ম ২৬এএস-এর মান্যতাকে এখনও ঐচ্ছিক হিসেবেই রেখেছে আয়কর দফতর। তবে আয়কর রিটার্নে অর্থনৈতিক লেনদেনকে আরও স্বয়ং সম্পূর্ণ করা যায় কি না সে চেষ্টা করা হচ্ছে। উদাহরণস্বরূপ বলা যায়, এখনও পর্যন্ত ফর্ম ২৬এএস-এ কেবলমাত্র সম্পত্তি কেনা/বেচা, নগদ অর্থ, লেনদেন ইত্যাদি হিসেব দেখা যায়। এর পর থেকে সেই লেনদেন মোতাবেক করদাতাদের কত টাকা ট্যাক্স দিতে হবে তার আনুমানিক মূল্যও দেওয়া থাকবে ওয়েবসাইটে।

Read the story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Explained news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Income tax return what is new in the it form 26as