বড় খবর
রবিবারই শুরু মহারণ! কেমন হচ্ছে IPL-এর আট ফ্র্যাঞ্চাইজির সেরা একাদশ, জানুন

আজ থেকে ভারতকে তথ্য দেবে সুইস ব্যাঙ্ক, এর তাৎপর্য কী?

এই পদক্ষেপ নতুন কিছু নয়। ২০১৬ সালে ভারত এবং সুইজারল্যান্ডের মধ্যে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট সংক্রান্ত তথ্যের লেনদেন বিষয়ে একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়, যে চুক্তি কার্যকর হওয়ার কথা সেপ্টেম্বর ২০১৯ থেকে।

swiss bank account
প্রতীকী ছবি

আজ, অর্থাৎ ১ সেপ্টেম্বর থেকে সুইজারল্যান্ড সমস্ত ভারতীয়দের আর্থিক অ্যাকাউন্ট সংক্রান্ত ২০১৮ সাল এবং পরবর্তী সময়ের তথ্য পেতে শুরু করবে ভারত। শনিবার, ৩১ অগাস্ট করা একটি টুইটে আয়কর দফতর জানায়, “সুইজারল্যান্ডে ভারতীয়দের সমস্ত আর্থিক অ্যাকাউন্টের ২০১৮ ক্যালেন্ডার বর্ষের তথ্য পাবে ভারত। কালো টাকার বিরুদ্ধে সরকারি পদক্ষেপের এটি একটি উল্লেখযোগ্য অধ্যায়, কারণ সুইস ব্যাঙ্কের গোপনীয়তার যুগের অবসান ঘটতে চলেছে।”

ভারতের কাছে এর তাৎপর্য কী, এবং তথ্য আদানপ্রদান কার নজরদারিতে হবে?

সুইজারল্যান্ডের ট্যাক্স ডিভিশনের শীর্ষ আধিকারিক তথা আন্তর্জাতিক ফিনান্স সচিব মারিও লুশার এবং ভারতের রাজস্ব সচিব অজয় ভূষণ পাণ্ডে সহ সেন্ট্রাল বোর্ড অফ ডিরেক্ট ট্যাক্সেস (সিবিডিটি)-র পদস্থ আধিকারিকদের মধ্যে ২৯-৩০ অগাস্ট অনুষ্ঠিত এক বৈঠকের পরেই আয়কর বিভাগ ঘোষণাটি করে।

কিন্তু এই পদক্ষেপ নতুন কিছু নয়। ২০১৬ সালে ভারত এবং সুইজারল্যান্ডের মধ্যে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট সংক্রান্ত তথ্যের লেনদেন বিষয়ে একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়, যে চুক্তি কার্যকর হওয়ার কথা সেপ্টেম্বর ২০১৯ থেকে।

নভেম্বর ২০১৬ সালে জারি করা এক বিবৃতিতে সুইজারল্যান্ডে ভারতীয় দূতাবাস জানায়, “২২ নভেম্বর, ২০১৬, সুইজারল্যান্ড ও ভারত একটি যৌথ ঘোষণায় স্বাক্ষর করেছে, যার দ্বারা চালু হবে ট্যাক্স সংক্রান্ত বিষয়ে উভয় তরফের অটোম্যাটিক এক্সচেঞ্জ অফ ইনফরমেশন (AEOI)। আন্তর্জাতিক AEOI শর্ত মেনে দুই দেশই ২০১৮ সালে পরিসংখ্যান সংগ্রহ করা শুরু করে ২০১৯ থেকে তা বিনিময় করবে।”

এই AEOI পরিচালিত হবে কমন রিপোর্টিং স্ট্যান্ডার্ডের (CRS) নজরদারিতে। CRS একটি আন্তর্জাতিক সংস্থা, যার আওতায় পড়ে এধরনের তথ্যের আদানপ্রদান, যাতে কোনোরকম গোপনীয়তা বা নিরাপত্তা বিধি লঙ্ঘিত না হয়। অর্গানাইজেশন ফর ইকোনমিক কোঅপারেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (OECD) দ্বারা গঠিত হয়েছে CRS।

কিন্তু চুক্তিতে স্পষ্ট বলা আছে, ২০১৮ সালের আগে খোলা কোনও ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট সংক্রান্ত তথ্য পাবে না ভারত।

 

এই পদক্ষেপের ফলে ভারতীয়রা গোপনে সুইস ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে যে টাকা গচ্ছিত রেখেছেন, তার কিছুটা হলেও প্রকাশ হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ২০১৮ সালে জুরিখের সুইস ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক দ্বারা প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, তিন বছর ধরে হ্রাস পাওয়ার পর ২০১৭ সালে সুইস ব্যাঙ্কে গচ্ছিত ভারতীয়দের টাকার পরিমাণ তার আগের বছরের তুলনায় ৫০ শতাংশ বেড়ে হয় ১.০২ বিলিয়ন সুইস ফ্রাঙ্ক, বা ৭,০০০ কোটি ভারতীয় টাকা।

Get the latest Bengali news and Explained news here. You can also read all the Explained news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: India get swiss bank details of indians from today what does this mean137154

Next Story
আসাম এনআরসি: তালিকাছুট ১৯ লক্ষের পরিচয় কী, তাঁদের কী হতে চলেছে?NRC, Supreme court
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com