জয়পুর এখন ওয়ার্লড হেরিটেজ সাইট, এর তাৎপর্য কী

ইউনেস্কো ওয়ার্লড হেরিটেজ কমিটি প্রতি বছরে সাধারণত জুন জুলাই মাসে একবার করে মিলিত হয়। সেখানেই নতুন সাইট যোগ করা, কোনও সাইট বাদ দেওয়া ইত্যাদি বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়।

By: Om Marathe Updated: July 10, 2019, 03:38:52 PM

জয়পুরের বাসিন্দাদের দিলখুশ। গত ৬ জুলাই পিঙ্ক সিটিকে ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ সাইটের তকমা দেওয়া হল। সারা বিশ্বে মোট ১১২১টি এরকম সাইটের মধ্যে এই নিয়ে ৩৮তম ভারতীয় জায়গা এই তালিকায় প্রবেশ করল।

সংখ্যার দিক ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ সাইটের হিসেবে ভারতের আগে এখন শুধু চিন, ইতালি, স্পেন, জার্মানি এবং ফ্রান্স।

ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ সাইট আসলে কী?

ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ সাইট মানে এমন একটা জায়গা যার ”অসামান্য সার্বজনীন মূল্য” রয়েছে। অর্থাৎ, ”যার সাংস্কৃতিক এবং/অথবা প্রাকৃতিক তাৎপর্য এতটাই ব্যতিক্রমী যে তা দেশের সীমা ছাড়িয়ে যেতে পারে এবং সমস্ত মানবজাতির বর্তমান ও ভবিষ্যতের সাধারণ গুরুত্বের বিষয় হয়ে উঠতে পারে।”

হেরিটেজ সাইটের তিনটি বিভাগ থাকে- সাংস্কৃতিক হেরিটেজ, প্রাকৃতিক হেরিটেজ এবং মিশ্র হেরিটেজ (সাংস্কৃতিক ও প্রাকৃতিক)। সাংস্কৃতিক হেরিটেজ সাইট হল সেই সব স্থান যার ইতিহাস, কলা অথবা বিজ্ঞানের দৃষ্টিভঙ্গি থেকে অসামান্য সার্বজনীন মূল্য রয়েছে এবং যার মধ্যে স্মারক রয়েছে বা একাধিক বাড়ি রয়েছে এবং যা প্রাকৃতিক ও মানবিক দিক থেকে গুরুত্বপূর্ণ। এর উদাহরণ হল তাজমহল, স্ট্যাচু অফ লিবার্টি এবং সিডনি অপেরা হাউস।  প্রাকৃতিক হেরিটেজের মধ্যে পড়ে সেই সব জায়গা যার অসামান্য সার্বজনীন মূল্য রয়েছে বিজ্ঞান, সংরক্ষণ বা প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের দিক থেকে। উদাহরণ- সুন্দরবন ন্যাশনাল পার্ক বা ভিক্টোরিয়া জলপ্রপাত।

সারা পৃথিবীতে যে মোট ১১২১টি ওয়ার্লড হেরিটেজ সাইট রয়েছে তার মধ্যে ৮৬৯টি সাংস্কৃতিক, ২১৩টি প্রাকৃতিক এবং ৩৯টি মিশ্র।

এই সাইটগুলি কারা নির্বাচন করে?

ইউনেস্কো ওয়ার্লড হেরিটেজ কমিটি প্রতি বছরে সাধারণত জুন জুলাই মাসে একবার করে মিলিত হয়। সেখানেই নতুন সাইট যোগ করা, কোনও সাইট বাদ দেওয়া ইত্যাদি বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়। বিশ্বের সাংস্কৃতিক ও প্রাকৃতিক হেরিটেজ সংরক্ষণার্থে ১৯৭২ সালে একটি কনভেনশন আহ্বান করা হয়ষ সেই কনভেনশনটি ওয়ার্লড হেরিটেজ কনভেনশন নামে পরিচিত। সেখানে যে ১৯২টি স্বাক্ষরকারী দেশ, তার ২১ জন সদস্যের কমিটি কোন সাইট নতুন করে তালিকায় যুক্ত হবে সে নিয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে থাকে।

১৯৭৬ সালে এই কমিটি তৈরি হয়। এ কমিটির ৪৩ তম বৈঠক চলছে আজারবাইজানের বাকুতে।

নিজেদের পছন্দের কোনও জায়গাকে তালিকাভুক্ত করার জন্য দেশগুলি কী করে?

নির্দেশাবলী অনুসারে, বিভিন্ন দেশ একটি প্রাথমিক তালিকা বানায়, তার পর তৈরি হয় নমিনেশনের নথি।

ভারতে ইন্ডিয়ান ন্যাশনাল কমিশন ফর কোঅপারেশন উইথ ইউনেস্কো এবং আর্কিওলজিকাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়া এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ভূমিকা পালন করে থাকে।

বিভিন্ন দেশের তরফ থেকে নমিনেশন পাওয়ার পর কমিটি কোনও জায়গাকে ওয়ার্লড হেরিটেজ সাইটের অন্তর্ভুক্ত করার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয় কঠোর পরীক্ষা নিরীক্ষার পর।

ওয়ার্লড হেরিটেজ সাইট স্বীকৃতি পাওয়ার পর কী হয়?

সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হল, ওয়ার্লড হেরিটেজ সাইট হওয়ার পর কোনও একটি জায়গায় পর্যটনের চাহিদা ব্যাপক বৃদ্ধি পায়।

একই সঙ্গে সংশ্লিষ্ট দেশের সরকারের উপর দায়িত্ব বর্তায় যাতে সে জায়গাটি সংরক্ষণ করে রাখা যায় এবং তার যথাযথ রক্ষণাবেক্ষণ হয়। ওই জায়গার অসামান্য সার্বজনীন মূল্য কোনওভাবে নষ্ট হয়ে গেলে ওয়ার্লড হেরিটেজ সাইটের তালিকা থেকে তাকে বাদও দেওয়া হতে পারে।

Read the Story in English

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the Explained News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

Jaipur world heritage site explanation and significance

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement

ট্রেন্ডিং
বিশেষ খবর
X