scorecardresearch

বড় খবর

বিশ্লেষণ: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও গ্লোবাল গোলকিপার অ্যাওয়ার্ড

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে যে গ্লোবাল গোলকিপার অ্যাওয়ার্ড দেওয়া হয়েছে, তা দেওয়া হয় “কোনও রাজনৈতিক নেতার আন্তর্জাতিক লক্ষ্য পূরণের উদ্দেশ্যে নিজের দেশে বা পৃথিবীতে প্রভাবমূলক কাজের জন্য।”

PM Narendra Modi, Global Goalkeeper Award
ফাইল ছবি

বুধবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে গ্লোবাল গোলকিপার অ্যাওয়ার্ড দিয়েছে নিউইয়র্কের বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন। ওই অনুষ্ঠানেই রাজস্থানের ১৬ বছর বয়সী সমাজকর্মী পায়েল জাঙ্গিড়কে বাল্যবিবাহের বিরুদ্ধে কাজের জন্য চেঞ্জমেকার পুরস্কার দেওয়া হয়।

২০১৫ সালে রাষ্ট্রসংঘের সাধারণ অধিবেশনে ২০৩০ সালের জন্য স্থায়ী উন্নয়নের স্থিরীকৃত লক্ষ্যে উপনীত হওয়ার জন্য সারা পৃথিবী জুড়ে পরিবর্তন আনছেন তাঁদের সম্মানিত করা হয় গোলকিপার অ্যাওয়ার্ডের মাধ্যমে। এই পুরস্কার তুলে দেওয়া হয় গোলকিপার ফাংশনে। প্রথম এ অনুষ্ঠান হয়েছিল ২০১৭ সালে।

আরও পড়ুন, গ্রেটা থুনবার্গ কি বিশ্বের জলবায়ু নীতিতে কোনও পরিবর্তন ঘটাতে সক্ষম?

রাষ্ট্রসংঘের স্থায়ী উন্নয়নের স্থিরীকৃত লক্ষ্য কী, গোলকীপার অ্যাওয়ার্ডই বা কী?

স্থায়ী উন্নয়নের স্থিরীকৃত লক্ষ্য

রাষ্ট্রসংঘের এ সম্পর্কিত ওয়েবসাইটে লেখা হয়েছে, এ হল সকলের জন্য স্থায়ী ও অপেক্ষাকৃত ভাল ভবিষ্যতের নীল নকশা।

২০১৫ সালে রাষ্ট্রসংঘ এরকম ১৭টি লক্ষ্য স্থির করে, যা কার্যকরী হয় ২০১৬ সালের ১ জানুয়ারি থেকে। এ লক্ষ্যগুলি সারা পৃথিবীতেই জন্যই কার্যকর এবং দারিদ্র্য, অসাম্য ও জলবায়ু পরিবর্তনের মত জটিল বিষয় নিয়ে দেশগুলি কতটা এগিয়েছে তার একটি রোডম্যাপও বটে।

২০১৫ সালে রাষ্ট্রসংঘ যে ১৭টি লক্ষ্য স্থির করে সেগুলি পর্যায়ক্রমে হল:

দারিদ্র্যহীনতা, ক্ষুধাশূন্যতা, সুস্বাস্থ্য ও ভাল থাকা, উন্নতমানের শিক্ষা, লিঙ্গসাম্য, পরিষ্কার জল ও শৌচব্যবস্থা, শস্তা ও স্বচ্ছ বিদ্যুৎ, পরিমিত কাজ ও আর্থিক উন্নয়ন, শিল্প, উদ্ভাবন, পরিকাঠামো, অসাম্য হ্রাস, সাসটেনেবেল শহর ও সম্প্রদায়, দায়িত্বশীল ভোগ ও উৎপাদন, জলবায়ু সম্পর্কিত পদক্ষেপ, জলের নিচের জীবন, ভূমির উপরস্থ জীবন, শান্তি, ন্যায়বিচার, শক্তিশালী প্রতিষ্ঠান, লক্ষ্যপূরণে অংশীদারিত্ব।

গোলকিপার অ্যাওয়ার্ড

২০১৭ সাল থেক বিল অ্যান্ড মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন গোলকিপার শীর্ষক বার্ষিক রিপোর্ট কার্ড প্রকাশ করে আসছে। এখানে স্থিরীকৃত লক্ষ্যমাত্রা বিষয়ে সারা দুনিয়ার খতিয়ান প্রকাশ করা হয়। ফাউন্ডেশনের ওয়েবসাইট বলছে এ রিপোর্ট কার্ডে বিভিন্ন তথ্য, এ ব্যাপারে অর্জিত সাফল্য, সাফল্যের কাহিনির মাধ্যমে কাজ কতটা এগোল তার হিসেব রাখা হয়, সরকারগুলির কাছে কৈফিয়ৎ চাওয়া হয় এবং পৃথিবীর বড়সড় চ্যালেঞ্জগুলিকে মোকাবিলা করার জন্য নতুন প্রজন্মের নেতাদের একত্রিত করা হয়।

আরও পড়ুন, বিশ্লেষণ: মোদীর আর্থিক উপদেষ্টা পরিষদ থেকে বাঙালি বাদ

সফলদের সম্মানিত করার জন্য প্রতি বছরই গোলকিপার্স ইভেন্ট অনুষ্ঠিত হয়। এবারের অনুষ্ঠান হয়েছিল ২৪-২৫ সেপ্টেম্বর নিউ ইয়র্কে রাষ্ট্রসংঘের সাধারণ অধিবেশন চলবার সময়েই।

এই পুরস্কারের পাঁচটি বিভাগ রয়েছে। প্রোগ্রেস অ্যাওয়ার্ড (১৬-৩০ বছর), চেঞ্জমেকার অ্যাওয়ার্ড (১৬-৩০ বছর), চেঞ্জমেকার অ্যাওয়ার্ড (১৬-৩০ বছর), ক্যাম্পেন অ্যাওয়ার্ড (১৬-৩০ বছর), গোলকিপার্স ভয়েস অ্যাওয়ার্ড (যে কোনও বয়সীদের জন্য) এবং গ্লোবাল গোলকিপার অ্যাওয়ার্ড (যে কোনও বয়সীদের জন্য)।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে যে গ্লোবাল গোলকিপার অ্যাওয়ার্ড দেওয়া হয়েছে, তা দেওয়া হয় “কোনও রাজনৈতিক নেতার আন্তর্জাতিক লক্ষ্য পূরণের উদ্দেশ্যে নিজের দেশে বা পৃথিবীতে প্রভাবমূলক কাজের জন্য।”

এর আগে গোলকিপার্স ইভেন্টে বক্তব্য রেখেছেন প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা, ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরঁ, কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডু, নোবেল পুরস্কার বিজেতা মালালা ইউসুফজাই এবং নাদিয়া মুরাদ।

Read the Full Story in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Explained news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Pm narendra modi global goalkeeper award