scorecardresearch

বড় খবর

চিনে করোনা বিস্ফোরণ, তাণ্ডব চালাচ্ছে BF.7, জেনে নিন এই ভ্যারিয়েন্টের উপসর্গগুলি

বৃহস্পতিবারই ভারতে আগত আন্তর্জাতিক পর্যটকদের জন্য সরকার একটি নির্দেশিকা জারি করেছে।

চিনে করোনা বিস্ফোরণ, তাণ্ডব চালাচ্ছে BF.7, জেনে নিন এই ভ্যারিয়েন্টের উপসর্গগুলি

ওমিক্রনের নয়া ভ্যারিয়েন্টের দাপট। বিশ্ববাসীর উদ্বেগ বাড়িয়ে দিয়েছে Omicron এর সাব-ভেরিয়েন্ট BF.7। চিনে একদিনেই আক্রান্ত প্রায় সাড়ে তিন কোটির বেশি মানুষ। ভেঙে পড়েছে দেশের স্বাস্থ্যপরিকাঠামো। চিনের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হচ্ছে তা ভয়ঙ্কর। ভারতেও সতর্কতা জারি করা হয়েছে। সরকার প্রস্তুতি শুরু করেছে। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে ভাইরাসের নতুন রূপের আবির্ভাব নিয়ে মানুষজন চিন্তিত। মিউটেশনের কারণে এই ভাইরাস তার লক্ষণও পরিবর্তন করছে। আসুন জেনে নিই Omicron এর সাব-ভেরিয়েন্ট BF.7 এর বৈশিষ্ট্যগুলি কী কী:-

BF.7 প্রধানত আপার রেসপিরেটরিতে সংক্রমণ ঘটায়। এতে আক্রান্ত হলে বুকের উপরের অংশে এবং গলার কাছে ব্যথা অনুভূত হয়। এই ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে রোগীর গলা ব্যথা, হাঁচি, সর্দি, নাক বন্ধ হওয়ার মত উপসর্গ দেখা দিতে পারে। সেই সঙ্গে থাকতে পারে জ্বর, মাথা ব্যাথা।

আক্রান্ত ব্যক্তির সর্দি- কাশি, মাথাব্যথার লক্ষণ দেখা যায়। এর পাশাপাশি, রোগীর কথা বলতে অসুবিধা হয় এবং পেশী ব্যথা অনুভূত হয়। ক্লান্তি, বমি ও ডায়রিয়ার উপসর্গ দেখা দিতে পারে। এই ভাইরাস দুর্বল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা সম্পন্ন ব্যক্তিদের গুরুতর অসুস্থ করে তুলতে পারে। এবং দেখা দিতে পারে প্রাণসংশয়ও।আক্রান্ত ব্যক্তির অবিরাম কাশির সঙ্গে কাঁপুনি সহ জ্বর হতে পারে।

এছাড়াও শ্বাসকষ্ট এবং ক্লান্তির গন্ধ না পাওয়ার মত একাধিক উপসর্গ দেখা দিতে পারে এই নয়া ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত রোগীদের। গন্ধ না পাওয়া এবং শ্বাসকষ্ট এর BF-7 রূপের সাধারণ লক্ষণ। BF.7 সাব-ভেরিয়েন্টটি এখন পর্যন্ত এর ওমিক্রনের অন্যান্য ভেরিয়েন্টের তুলনায় সবচেয়ে সংক্রামক। বিশেষজ্ঞদের মতে, এই নয়া রূপটি খুব দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। এই ভাইরাসের ইনকিউবেশন পিরিয়ড খুবই কম। এই ভাইরাস মানুষকে দ্রুত সংক্রমিত করতে পারে। বলা হচ্ছে, এই ভাইরাসের ভ্যাকসিন নেওয়া লোকেদেরও সংক্রমিত করার ক্ষমতা রয়েছে। একজন আক্রান্ত ব্যক্তি ১০ থেকে ১৮ জনের মধ্যে সংক্রমণ ছড়াতে পারেন।    

বৃহস্পতিবারই ভারতে আগত আন্তর্জাতিক পর্যটকদের জন্য সরকার একটি নির্দেশিকা জারি করেছে। এই নির্দেশিকা অনুসারে, ভারতে আগত সমস্ত আন্তর্জাতিক ভ্রমণকারীদের টিকার দুটি ডোজ দেওয়া প্রয়োজন। এর পাশাপাশি, যাত্রার সময়, ফ্লাইট বা বিমানবন্দরে প্রবেশ এবং প্রস্থান পয়েন্টে মাস্ক পরা এবং সামাজিক দূরত্ব অনুসরণ করা বাধ্যতামূলক। কোভিড প্রোটোকল অনুসরণ করতে এবং আন্তর্জাতিক ফ্লাইটের ২% যাত্রীর র‍্যানডাম কোভিড টেস্টের কথাও বলা হয়েছে এই নির্দেশে। সরকারের এই নির্দেশ আজ ২৪ ডিসেম্বর থেকে প্রযোজ্য হবে।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest Explained news download Indian Express Bengali App.

Web Title: What is bf 7 the omicron sub variant driving the new surge in china