বড় খবর

তারকা প্রচারকের তকমা হারালেন অনুরাগ ঠাকুর, পরবেশ ভার্মা; তাতে ক্ষতি কী?

এ সপ্তাহের গোড়ার দিকে দিল্লির এক নির্বাচনী সমাবেশে শাহিন বাগের প্রতিবাদকারীদের উদ্দেশ্যে অনুরাগ স্লোগান তোলেন, ‘দেশ কে গদ্দারোঁ কো, গোলি মারো সালো কো’।

anurag thakur parvesh verma

বুধবার বিজেপির ‘তারকা প্রচারক’ (star campaigner) তালিকা থেকে বাদ গেলেন দুই বিজেপি নেতা অনুরাগ ঠাকুর, যিনি কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রীও বটে, এবং পরবেশ সাহিব সিং ভার্মা, সৌজন্যে জাতীয় নির্বাচন কমিশন।

এ সপ্তাহের গোড়ার দিকে দিল্লির এক নির্বাচনী সমাবেশে শাহিন বাগের প্রতিবাদকারীদের উদ্দেশ্যে অনুরাগ স্লোগান তোলেন, ‘দেশ কে গদ্দারোঁ কো, গোলি মারো সালো কো’। স্রেফ নিজে স্লোগান তোলেন তাই নয়, উপস্থিত জনতাকেও এই স্লোগান দিতে উস্কানি দেন। অন্যদিকে এক সাক্ষাৎকারে পরবেশ ভার্মা দাবি করেন যে শাহিন বাগের প্রতিবাদকারীরা “বাড়িতে ঢুকে মেয়ে-বোনদের ধর্ষণ করতে” পারে।

ইতিমধ্যেই ওই দুই নেতাকে তাঁদের উস্কানিমূলক মন্তব্যের জন্য নির্বাচন কমিশনের তরফে শো-কজ অর্থাৎ কারণ দর্শানোর নোটিশ জারি করা হয়েছে।

কিন্তু তারকা প্রচারকদের তালিকা থেকে সরানো হলে তার কী প্রভাব পড়বে অনুরাগ ও ভর্মার ওপর? এর অর্থ কি এই যে তাঁরা আর আদৌ এই নির্বাচনের জন্য প্রচার করতে পারবেন না?

তারকা প্রচারক কে?

যে কোনও স্বীকৃত রাজনৈতিক দলের ৪০ জন পর্যন্ত তারকা প্রচারক বা স্টার ক্যাম্পেনার থাকতে পারেন, এবং অস্বীকৃত (অথচ নথিভুক্ত) রাজনৈতিক দলের ক্ষেত্রে সংখ্যাটা অর্ধেক কমে হয়ে যায় ২০ জন। নির্বাচনের বিজ্ঞপ্তি জারি হওয়ার এক সপ্তাহের মধ্যে এই তালিকা পৌঁছে দিতে হবে মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক এবং নির্বাচন কমিশনের কাছে।

এই তারকা প্রচারকদের নির্বাচনী প্রচারের খরচ প্রার্থীর খরচের সঙ্গে যুক্ত হবে না। তবে এই নিয়ম ততক্ষণ পর্যন্তই প্রযোজ্য যতক্ষণ সেই তারকা প্রচারক নিজেকে তাঁর বেছে নেওয়া দলের হয়ে সাধারণ প্রচারে সীমাবদ্ধ রাখছেন, কোনও নির্দিষ্ট প্রার্থীর হয়ে নয়।

কোনও একজন প্রার্থীর হয়ে তারকা প্রচারক প্রচার করলে কী হবে?

যদি প্রার্থী অথবা তাঁর এজেন্টের সঙ্গে সমাবেশে এক মঞ্চে দাঁড়ান কোনও তারকা প্রচারক, তবে সেই সমাবেশের সমস্ত খরচ বহন করবেন প্রার্থী, তারকা প্রচারকের যাতায়াতের খরচ বাদে। যদি প্রার্থী সেই সমাবেশে সশরীরে হাজির নাও থাকেন, স্রেফ তাঁর ছবি বা নাম দেওয়া পোস্টার প্রদর্শিত হয়, সেক্ষেত্রেও খাটবে এই নিয়ম।

এমনকি তারকা প্রচারক সমাবেশে প্রার্থীর নামোচ্চারণ করলেও প্রযোজ্য হবে এই নিয়ম। তবে সমাবেশের মঞ্চে একজনের বেশি প্রার্থী থাকলে, অথবা একাধিক প্রার্থীর নামে পোস্টার বা ছবি প্রদর্শিত হলে, সমস্ত খরচ সংশ্লিষ্ট প্রার্থীদের মধ্যে সমানভাবে ভাগ করে দেওয়া হয়।

তারকা প্রচারক তালিকা থেকে সরানো হলে কি প্রচার করতে পারবেন না দুই বিজেপি নেতা?

এই বিষয়ে শো-কজ নোটিশের জবাবে তাঁরা কী লেখেন, সেই ভিত্তিতে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে নির্বাচন কমিশন। তবে একথা ঠিক যে তারকা প্রচারকদের তালিকা থেকে সরানো হলে প্রচার করতে অসুবিধেই হবে অনুরাগ ঠাকুর এবং পরবেশ ভার্মার।

এর অন্যতম কারণ হলো, যে কেন্দ্রেই নির্বাচনী সমাবেশ বা মিছিল করবেন তাঁরা, দলের হয়ে সাধারণ প্রচার করুন বা না করুন, অনুষ্ঠানের সমস্ত খরচ বহন করতে হবে সেই কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থীকে। যেহেতু খরচের বেঁধে দেওয়া সীমা (দিল্লি নির্বাচনের ক্ষেত্রে ২৮ লক্ষ টাকা) অতিক্রম করতে পারেন না কোনও প্রার্থী, কেউই চাইবেন না ঠাকুর বা ভার্মা তাঁদের কেন্দ্রে এসে প্রচার করুন।

Get the latest Bengali news and Explained news here. You can also read all the Explained news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: What removing anurag thakur parvesh verma from list of star campaigners means for bjp

Next Story
বোড়ো চুক্তির মূল বিষয়গুলি কী?Bodo Accord
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com