বড় খবর

যুবরাজ-সেওয়াগ-জাহির-হরভজনদের অবসরে কেন আয়োজন নেই?

বিশ্বকাপের মঞ্চে ভারতকে শ্রেষ্ঠত্বের আসনে বসিয়েছেন তাঁরা সকলেই। কিন্তু অবসরে শেষ সম্মান পেলেন না এদের কেউই। সম্প্রতি এই বিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন যুবরাজ সিং।

দেশের হয়ে খেলেছেন প্রত্যেকে। বিশ্বকাপের মঞ্চে ভারতকে শ্রেষ্ঠত্বের আসনে বসিয়েছেন তাঁরা সকলেই। কিন্তু অবসরে শেষ সম্মান পেলেন না এদের কেউই। সম্প্রতি এই বিষয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন যুবরাজ সিং। একটি স্পোর্টস অনুষ্ঠান থেকে যুবরাজ বলেন, “আমার প্রথমেই যেটা মনে হয় তা হল আমি লেজেন্ড নই। আমি খুব অন্তর থেকেই ক্রিকেট খেলতাম। কিন্তু টেস্ট ক্রিকেটে আমি খুব একটা জায়গা পাইনি। লেজেন্ড তাঁরাই হয় যারা টেস্ট ক্রিকেটে নিজেদের কৃতিত্ব রেখে গিয়েছেন। তাই আমাকে কেন বিদায় সম্বর্ধনা দেওয়া হয়নি তা আমি স্থির করতে পারব না। বিসিসিআই বলতে পারবে।”

ভারতের এই অল রাউন্ডার বলেন, “আমার এটাই মনে হয় আমার কেরিয়ারের শেষ দিকে খুব অ-পেশাদার মনোভাব পোষণ করল বিসিসিআই। কিন্তু পিছনে ফিরে দেখলে জাহির খান, শেওয়াগ, হরভজনদের সঙ্গেও একই জিনিষ হয়েছে। এটাই হয়তো ভারতীয় ক্রিকেটের একটা অংশ। তাই অবাক হচ্ছি না।”

ভারতীয় ক্রিকেটে তিনি ‘যুবরাজ’ই। ২০০০ সালে মাত্র ১৮ বছর বয়সে যখন ক্রিকেট মাঠ দাপাচ্ছেন তখন কে জানত ভারতের সেরা অল রাউন্ডারের তালিকায় চিরকালের জন্য থেকে যাবে তাঁর নাম। এক ওভারে ইতিহাস তৈরি করা ছ’টা ছয় হোক কিংবা থার্ড লেগ থেকে পাখির মতো ঝাঁপিয়ে পড়া ক্যাচ কিংবা স্পিনের জাদুতে বহু ব্যাটসম্যানকে প্যাভেলিয়নে যিনি ফিরিয়ে দেন অনায়াসে, তিনি যুবরাজ সিং।

যোগরাজ সিং-পুত্র যুবরাজ তাঁর গৌরবোজ্জ্বল কেরিয়ারে ৪০টি টেস্ট ম্যাচ, ৩০৪টি একদিনের ম্যাচ এবং ৫৮টি টি-২০ ম্যাচ খেলেছেন। ২০০৭ সালে ভারতের টি-২০ বিশ্বকাপ জয় এবং ২০০১ সালে বিশ্বকাপ জয়ে অন্যতম কারিগর ছিলেন ভারতীয় ক্রিকেটের ‘যুবি’। আইসিসি ওয়ার্ল্ড কাপ টি২০ টুর্নামেন্টে ইংল্যান্ডের স্টুয়ার্ট ব্রডের ছ’বলে ছ’টা ছয় মেরে রেকর্ড করা যুবি কেন অবসরের শেষ দিনে ন্যায্য সম্মান পেলেন না তা নিয়ে সমালোচনা ওঠাটাই হয়তো স্বাভাবিক।

বাকি প্লেয়াররাও কি সেই সম্মান পেয়েছেন?

বীরেন্দ্র সেওয়াগ, হরভজন সিং, জাহির খান ভারতীয় ক্রিকেট দলের একসময়ের গুরুত্বপূর্ণ না। ওপেনার সেওয়াগের দুরন্ত গতিতে ব্যাট। ১০৪টি টেস্ট ম্যাচ খেলেছেন বীরু। ওয়ান ডে, টি২০ ফরম্যাটেও অত্যন্ত সফল দিল্লির এই ক্রিকেটার। তবু অবসরের সিদ্ধান্তে কোনও বিপ্রতীপ সাড়া আসেনি ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের তরফে। হরভজন সিং, জাহির খানের ক্ষেত্রেও তাই। একসময় স্পিন এবং ফাস্ট পেসের শক্ত লাইনআপ বিরুদ্ধ দলের ব্যাটিংয়ের ভিত নড়িয়ে দিত। কিন্তু কেন পেলেন না অবসর পরবর্তী সম্মান? প্রশ্ন কিন্তু থাকছেই।

Read the full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Explained news here. You can also read all the Explained news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Yuvraj harbhajan sehwag and zaheer did they get the closure they deserved by bcci

Next Story
অর্থনীতি-সীমান্ত-করোনা, স্বাধীনতা দিবসে মোদীর ভাষণের থিম কী?
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com
X