বড় খবর

আমফান বিধ্বস্ত সুন্দরবনের গ্রামে পুজোর গন্ধ ফেরাল কলকাতার বারোয়ারি

আমফান মিলিয়ে দিল ছোট সাহেবখালি ও দমদম তরুণ দলকে।

একা করোনায় রক্ষে নেই, তায় আমফান দোসর! দুর্যোগের জোড়া ফলায় বিদ্ধ হয়েছে দক্ষিণবঙ্গ। ঘূর্ণিঝড় আমফানের ছোবলে ভিটেমাটি উজাড় হয়েছে সুন্দরবনের। সহায়-সম্বল তো নষ্ট হয়েইছে, মাথা ঢাকার আশ্রয়ও ভেঙেছে বহু জায়গায়। এমনই এক গ্রাম হিঙ্গলগঞ্জের ছোট সাহেবখালি। শারদীয়ার প্রাক্কালে এখানে উৎসবের মেজাজ নেই। গ্রামে দুটো ক্লাব দুর্গাপুজো করত। কিন্তু এবার জোড়া দুর্যোগে পুজো দূরের কথা, ভাল জামাকাপড় কেনারও উপায় নেই গ্রামবাসীদের। তাঁদের দুর্দশায় সমব্যথী হয়ে এবার পাশে দাঁড়াল কলকাতার বিখ্যাত পুজো কমিটি। উত্তর কলকাতার নামী ক্লাব দমদম তরুণ দল ছোট সাহেবখালির পুজোর উদ্যোগ নিল। করোনা-আমফান হয়েছে তো কী! উৎসব হবে না তা কি হয়? আমফান মিলিয়ে দিল ছোট সাহেবখালি ও দমদম তরুণ দলকে।

মে মাসে আমফান ঘূর্ণিঝড় বিধ্বস্ত এই গ্রামের মানুষের পাশে দাঁড়াতে এগিয়ে আসেন তরুণ দলের পুজোওয়ালারা। তখনই তাঁদের কাছে জানতে পারেন, দুর্যোগের জেরে এবার গ্রামের দুই ক্লাবে পুজো করার জো নেই। কী করে হবে? ঠাকুর কেনা, পুজোর জোগাড়ের টাকা আসবে কোথা থেকে! একে করোনায় কাজকর্ম নেই, তার উপর আমফানে ঘরবাড়ি ভেঙেছে। এই অবস্থায় উৎসবের মানসিকতা নেই তাঁদের। এ কথা জানতে পেরে গ্রামবাসীদের পাশে দাঁড়ানোর শপথ নেয় দমদম তরুণ দল। ঠিক করে, এবার এখানেও পুজো হবে। তারাই দায়িত্ব নিয়ে পুজো করবেন। সেইমতো সম্প্রতি দুই ক্লাবের হাতে পুজোর প্রতিমা ও আনুষঙ্গিক খরচ বাবদ পাঁচ হাজার টাকা করে তুলে দিয়েছেন তরুম দলের সদস্যরা।

আরও পড়ুন থিম সং গাইবেন দুই কোভিড যোদ্ধা, ‘লড়াই’য়ের শক্তি দিচ্ছে কলকাতার এই পুজো

শুধু তাই নয়, তাঁরা ঠিক করেছেন প্রতিবারের রীতি মেনে নবমীর খাওয়াদাওয়ায় খরচ করবে না তরুণ দল। বরং সেই টাকা ছোট সাহেবখালির হাজার খানেক বাসিন্দাদের পুজোর ভোগ খাওয়ার জন্য তুলে দিয়েছেন উদ্যোক্তারা। পোলাও, আলুর দম, পায়েস সহযোগে পুজোর সময় পেটভরে খাবেন গ্রামবাসীরা। তাতেই পুজো সার্থক হবে তরুণ দলের। কিন্তু নতুন জামাকাপড় হবে না তা কি হয়? তরুণ দল ঠিক করেছে, পুজোর সময় প্রত্যেক গ্রামবাসীকে নতুন জামাকাপড় কিনে দেবে তারা। জমিয়ে হবে উৎসব। অঙ্গীকার দমদম তরুণ দলের। ক্লাবের পুজোর সম্পাদক বিশ্বজিৎ প্রসাদ জানিয়েছেন, “দুর্যোগ উৎসবের আনন্দ কেড়ে নেবে এটা হতে দেওয়া যায় না। কলকাতা যখন আলোর রোশনাইয়ে সাজবে তখন ছোট সাহেবখালিতে অন্ধকার থাকবে কেন, বরং এবার দমদম তরুণ দল নিজেদের সঙ্গে এই গ্রামের দুটো পুজোও করবে। একসঙ্গে তিনটি পুজো করব আমরা।” কলকাতার ক্লাবের এমন মানবিক উদ্যোগে উচ্ছ্বসিত ছোট সাহেবখালির বাসিন্দারা।

আরও পড়ুন লাইভ বাঁশির সুরে মাতবে পুজো মণ্ডপ, বেঁচে থাকার মন্ত্র শেখাবেন কাকদ্বীপের মিহির

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and Feature news here. You can also read all the Feature news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Kolkatas club to do durga puja in sunderban village this festive season

Next Story
ব্রিটিশ শাসিত ভারত ১৯৪৭ সালে ‘স্বাধীনতা’ পায়নি! কবে স্বাধীন দেশের মর্যাদা পেয়েছিল?
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com