scorecardresearch

বড় খবর
এক ফ্রেমে কেন্দ্রীয় কয়লামন্ত্রী ও কয়লা মাফিয়া, বিজেপিকে বিঁধলেন অভিষেক

জেল নাকি পার্লার? কারাগারেই ম্যাসাজ নিচ্ছেন দিল্লির মন্ত্রী!

ভাইরাল এই ভিডিও নিয়ে ইতিমধ্যে রাজনীতি শুরু হয়েছে।

জেল নাকি পার্লার? কারাগারেই ম্যাসাজ নিচ্ছেন দিল্লির মন্ত্রী!

দিল্লির তিহার জেলে বন্দী থাকা অবস্থায় ম্যাসাজ করাচ্ছেন দিল্লির মন্ত্রী। ভাইরাল ভিডিওকে কেন্দ্র করে ধুন্ধুমার। আম আদমি পার্টির নেতা তথা দিল্লির স্বাস্থ্যমন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈনের একটি ভিডিও সম্প্রতি সামনে এসেছে। যেখানে দাবি করা হচ্ছে যে জৈন জেলে ম্যাসাজ করাচ্ছেন। ভাইরাল ভিডিওতে সত্যেন্দ্র জৈনকে তার পায়ে তেল মালিশ করাতে দেখা যাচ্ছে। ভিডিওতে স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে তিনি খুব আরামে বিছানায় শুয়ে  আছেন। তার হাত-পা মালিশ করা হচ্ছে এবং তিনি অন্যান্য আসামীদের সঙ্গে কথাও বলছেন। যদিও জেল কর্তৃপক্ষের দাবি ভিডিওটি পুরনো।

এর আগে, ইডিও দাবি করেছিল যে সত্যেন্দ্র জৈন জেলে ভিভিআইপি পরিষেবা পাচ্ছেন। এবার এই ভিডিও সামনে আসতেই ইডির অভিযোগেই সিলমোহর পড়েছে। ভিডিওতে স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে তিনি খুব আরামে বিছানায় শুয়ে আছেন। তার হাত-পা মালিশ করা হচ্ছে এবং তিনি আশেপাশে থাকা মানুষজনের সঙ্গে খোশ মেজাজেই গল্প করছেন। পাশেই রাখা রয়েছে সিল করা জলের বোতল।

দাবি করা হচ্ছে ভিডিও ফুটেজটি তিহার জেলের ব্লক এ-এর ৪ নম্বর সেলের। ফুটেজটি ১৩ সেপ্টেম্বর, ১৪ সেপ্টেম্বর এবং ২১ সেপ্টেম্বরের বলেও দাবি করা হয়েছে। ইডি এর আগে আদালতে হলফনামা দাখিল করে বলে যে জেলে জৈনকে ভিভিআইপি পরিষেবা দেওয়া হচ্ছে, তিনি সেখানে স্বাচ্ছন্দ্যময় জীবনযাপন করছেন। এমনকি হলফনামায় জৈনকে ম্যাসাজ দেওয়ারও উল্লেখ করা হয়। এখন ম্যাসাজ করার ভিডিওটিও সামনে আসতেই ইডির অভিযোগে সিলমোহর পড়ল।

আরও পড়ুন: [ আগেও প্রেমিকের হাতে মার খেয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয় হাসিখুশি শ্রদ্ধাকে, তদন্তে ফাঁস সেই নথিও ]

ভিডিওতে স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে কারাগারে কেজরিওয়ালের মন্ত্রীকে বিশেষ সুবিধা দেওয়া হচ্ছে। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে তার সেলের ভিতর মিনারেল ওয়াটারের বোতল রাখা আছে। এই ভিডিও প্রকাশ্যে আসায় প্রশ্নের মুখে জেল প্রশাসন। ভাইরাল এই ভিডিও নিয়ে ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে রাজনীতিও। আম আদমি পার্টির বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন বিজেপি নেতারা। বিজেপির অভিযোগ যে আপ মন্ত্রীরা তিহার জেলে তাদের সাজা ভোগ করছেন না, পুরো মজা উপভোগ করছেন। বিজেপি এই ঘটনার উপযুক্ত তদন্তের দাবি করেছে। বিজেপি বলছে এই ঘটনার সঙ্গে কারা কারা যুক্ত তার তদন্ত হওয়ার প্রয়োজন। বিজেপি সাংসদ রমেশ বিধুরি বলেছেন, আপ মন্ত্রীর আসল সত্য এবারই সামনে এসেছে।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Aap leader satyendar jain gets oil massage in tihar jail