scorecardresearch

বড় খবর
এক ফ্রেমে কেন্দ্রীয় কয়লামন্ত্রী ও কয়লা মাফিয়া, বিজেপিকে বিঁধলেন অভিষেক

মলে নামাজ পড়ার ভিডিও ভাইরাল হতেই সক্রিয় যোগী পুলিশ, গ্রেফতার ৪

একই সঙ্গে কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে ধর্মীয় পক্ষপাতেরও অভিযোগ আনা হয়েছে।

মলে নামাজ পড়ার ভিডিও ভাইরাল হতেই সক্রিয় যোগী পুলিশ, গ্রেফতার ৪
উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ।

লখনউতে মলের ভিতর নামাজ পড়ার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই তৎপর যোগী পুলিশ। লুলু মলের ভিতরে নামাজ পড়ার ঘটনায় লখনউ পুলিশ মঙ্গলবার চারজনকে গ্রেফতার করেছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় শপিং মলের ভিতরে নামাজ পড়ার ঘটনা ভাইরাল হতেই উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ লখনউ প্রশাসনকে বিষয়টি দেখার নির্দেশ দেওয়ার মাত্র একদিনের মাথায় গ্রেফতার করা হয় চারজনকে।

একই সঙ্গে কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে ধর্মীয় পক্ষপাতেরও অভিযোগ আনা হয়েছে। গ্রেপ্তার হওয়া চারজনই লখনউয়ের বাসিন্দা। ধৃতরা হলেন, মহম্মদ রেহান ও আতিফ খান এবং সীতাপুরের বাসিন্দা মহম্মদ লোকমান ও মহম্মদ নোমান। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে প্রাথমিক তদন্তে দেখা গেছে যে মলের ভিতরে নামাজ পড়ার তাদের কাজের পিছনে তাদের কোন উদ্দেশ্য ছিল না।

সোমবার গভীর রাতে, নামাজ বিতর্কে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ এক বিবৃতিতে বলেন, “বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানকে রাজনৈতিক মাঠে পরিণত করা হয়েছে। একই সঙ্গে তিনি বলেন, সাম্প্রদায়িক বিভেদ সৃষ্টির এক চেষ্টা চালানো হচ্ছে ওই মলে। অপ্রয়োজনীয় বিষয় প্রচার করে অশান্তি সৃষ্টি এবং পরিবেশ নষ্ট করার জন্য দোষীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার কথাও বলেন তিনি। আর এই মন্তব্যের ২৪ ঘণ্টা পেরোতেই না পেরোতেই গ্রেফতার করা হয় নামাজ কাণ্ডের ৪ জনকে।

লখনউ পুলিশের যুগ্ম পুলিশ কমিশনর রাজেশ শ্রীবাস্তব বলেছেন “সিসিটিভি ফুটেজ দেখেই চারজনকে চিহ্নিত করা হয়েছে”। নামাজের ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচারের পাশাপাশি মলের বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে তারা বাইরে থেকে ৮০ শতাংশ মুসলিম কর্মীকে নিয়োগ করেছে।

আরও পড়ুন: [মায়ের স্টোল দিয়ে শরীর ঢাকতে হয় ছাত্রীকে, অন্তর্বাস কাণ্ডে শোরগোল কেরলে]

যদিও এই ঘটনার প্রেক্ষিপ্তে এক বিবৃতিতে মল কর্তৃপক্ষ জানায়, তাদের মলের বেশিরভাগ কর্মীই হিন্দু। মলটি ১১ জুলাই উদ্বোধনের একদিন পরে সাধারণের জন্য খুলে দেওয়া হয়। নামাজের ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পরে ১৪ জুলাই লখনউ পুলিশ ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৫৩এ, ২৯৫এ ধারায় এফআইআর দায়ের করে।

এই ঘটনার দু’দিন পরে মলের ভিতর হনুমান চালিসা পাঠ করতে মলে প্রবেশের চেষ্টা করার অভিযোগে পুলিশ চারজনকে গ্রেপ্তার করে। তাদের বিরুদ্ধে শান্তি ভঙ্গের অভিযোগে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। এবিষয়ে লখনউ পুলিশের এক আধিকারিক বলেন, ‘মলের মধ্যে দুই ব্যক্তি ঢুকে মেঝেয় বসে হনুমান চালিশা পাঠ করতে শুরু করেন। নিরাপত্তারক্ষীরা তাঁদের ধরে পুলিশের হাতে তুলে দেন। গ্রেফতার করা হয়েছে তাঁদের।’

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: After yogi orders strict action four held in lulu namaz video