scorecardresearch

বড় খবর

টিপু সুলতানের প্রশংসাকারী, না রামমন্দির নির্মাণকারী মোদীকে বাছবেন, সরাসরি প্রশ্ন শাহর

বিরোধীরা ভোট শেষেই বিজেপিকে ঠেকাতে এক হয়ে যাবে, অভিযোগ শাহর।

টিপু সুলতানের প্রশংসাকারী, না রামমন্দির নির্মাণকারী মোদীকে বাছবেন, সরাসরি প্রশ্ন শাহর

কর্নাটকে নির্বাচনী দামামা বাজিয়ে বিরোধীদের তীব্র আক্রমণ করলেন বিজেপি নেতা তথা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। মন্দির রাজনীতিকে সামনে এনে শাহ জানিয়েছেন, আসন্ন কর্ণাটক বিধানসভা নির্বাচন এক শক্তির পরীক্ষা। যে পরীক্ষায় একপ্রান্তে রয়েছে দেশের সেই প্রধানমন্ত্রী যিনি মন্দির তৈরি করেন। অন্যদিকে আছেন তাঁরা, যাঁরা টিপু সুলতানকে গৌরবান্বিত করে দেখাতে চান। শাহ স্পষ্ট জানান, এবারের কর্ণাটক বিধানসভার লড়াই বিজেপি একাই লড়বে। এই লড়াই বিজেপির সঙ্গে কংগ্রেসের। আর, জনতা দল সেকুলার বা জেডিএসকে ভোট দেওয়া মানেও ঘুরিয়ে কংগ্রেসকেই ভোট দেওয়া।

দলীয় কর্মীদেরকে দেওয়া ভাষণে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘কর্ণাটকে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে জনগণকে হয় প্রধানমন্ত্রীকে কাশী, কেদারনাথ, বদ্রীনাথের উন্নয়নকারী, অযোধ্যায় রামমন্দির নির্মাণকারী প্রধানমন্ত্রীকে বাছতে হবে। অথবা, তাঁদেরকে বাছতে হবে যাঁরা টিপু সুলতানকে বড় করে দেখাচ্ছেন। হয় টুকরে টুকরে গ্যাং-কে বাছতে হবে। অথবা দেশভক্তদের বেছে নিতে হবে।’ শাহ পরিষ্কার বুঝিয়ে দেন যে বিজেপি তার নিজের জোরেই ক্ষমতায় ফিরবে।’ আর, এই প্রসঙ্গেই তিনি টেনে আনেন জেডিএস এবং কংগ্রেসের প্রসঙ্গ। শাহ বলেন, ‘দুই দলই একই কাপড়ের তৈরি পোশাক পরে আছে।’

শাহর অভিযোগ, কংগ্রেসের পিছনে সমর্থন বলতে টুকরে টুকরে গ্যাং। আর, বিজেপির শক্তি বলতে রাজ্যব্যাপী তার সংগঠন। শাহ বলেন, ‘কর্ণাটকবাসীকেই সিদ্ধান্ত নিতে হবে, তারা কাদের সঙ্গে থাকবে। দেশভক্তদের সঙ্গে থাকবে? নাকি যাঁরা দেশটাকে টুকরো টুকরো করছেন, সেই ব্যক্তিদের সঙ্গে থাকবেন।’ শাহর সোজা কথা, ‘বিজেপি কর্ণাটক থেকে পরিবারতন্ত্র, দুর্নীতি, জাতিবাদ উচ্ছেদ করবে। আর, এই রাজ্যে দেশপ্রেমী এক সরকার গঠন করবে।’ আর, এই সব কারণেই বিজেপিকে বিধানসভা নির্বাচনে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা দেওয়ার জন্য তিনি কর্ণাটকবাসীর কাছে আহ্বান জানান।

আরও পড়ুন- গোপন সত্যিটা ফাঁস করে দিলেন ঋষি, বর্ষবরণের আনন্দের মধ্যেই ব্রিটেনে বিষাদের সুর

দক্ষিণের এই রাজ্যে ত্রিমুখী লড়াইয়ের সম্ভাবনাও খারিজ করে দিয়েছেন শাহ। তিনি বলেন, ‘কোনও ত্রিমুখী লড়াই নেই। এই লড়াই সোজাসুজি বিজেপি আর কংগ্রেসের মধ্যে। এখানে জেডিএসকে ভোট দেওয়া মানেও কংগ্রেসকেই ভোট দেওয়া।’ শাহ বলেন, ‘ভোটের আগে হয়তো দুই দলই আলাদাভাবে বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াই করছে। কিন্তু, ভোট শেষে তারাই আবার বিজেপিকে ঠেকাতে পরস্পরের হাত ধরবে।’

Read full story in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Amit shah rules out any alliance with anyone