Delhi: পরিচারিকাকে ধর্ষণে অভিযুক্ত সেনাবাহিনীর মেজর, আত্মহত্যা নিগৃহীতার স্বামীর | Indian Express Bangla

পরিচারিকাকে ধর্ষণে অভিযুক্ত সেনাবাহিনীর মেজর, আত্মহত্যা নিগৃহীতার স্বামীর

অভিযোগ, ওই মাসের শেষে মেজর তাঁকে ফোন করে বলেন যে তাঁর স্বামী গলায় ফাঁস দিয়েছেন। এর পর তিনি পুলিশে অভিযোগ জানালেও তাতে কর্ণপাত করা হয়নি। এর পর তিনি দিল্লির একটি আদালতের দ্বারস্থ হন। 

পরিচারিকাকে ধর্ষণে অভিযুক্ত সেনাবাহিনীর মেজর, আত্মহত্যা নিগৃহীতার স্বামীর
চাকরির লোভ দেখিয়ে গণধর্ষণ

পরিচারিকাকে ধর্ষণ এবং তাঁর স্বামীকে হুমকি দিয়েছিলেন সেনাবাহিনীর এক মেজর। ধর্ষিতার স্বামী পরে আত্মহত্যা করেন। এ ঘটনায় ওই মেজররের বিরুদ্ধে দিল্লি ক্যান্টনমেন্ট থানায় এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। তবে ওই মেদরকে এখনও গ্রেফতার করা হয়নি।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে ওই মহিলার অভিযোগ, তাঁর স্বামীর অনুপস্থিতিতে গত ১২ জুলাই তাঁকে ধর্ষণ করা হয়। তিনি জানিয়েছেন, তাঁর স্বামী ফিরে কী ঘটছে তা দেখতে পান। এরপর তাঁর স্বামীকে মারধর করেন ওই মেজর। তাঁদের দুজনকে হুমকিও দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন: ছেলেকে খুন করে আত্মঘাতী বাবা, চাঞ্চল্য সোনারপুর গড়িয়ায়

ওই মহিলা জানিয়েছেন, ওই একবারই নয়, তাঁকে বেশ কয়েকবার ধর্ষণ করা হয়েছে, যার ফলে তিনি শ্বশুরবাড়িতে চলে যান। তবে তাঁর স্বামী ওই বাড়িতে থেকে গিয়েছিলেন। তাঁর অভিযোগ, ওই মাসের শেষে মেজর তাঁকে ফোন করে বলেন যে তাঁর স্বামী গলায় ফাঁস দিয়েছেন। এর পর তিনি পুলিশে অভিযোগ জানালেও তাতে কর্ণপাত করা হয়নি। এর পর তিনি দিল্লির একটি আদালতের দ্বারস্থ হন।

তাঁর স্বামী আদৌ আত্মহত্যা করেছেন কি না তা নিয়ে তাঁর যথেষ্ট সন্দেহ রয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

ওই মহিলা পুলিশকে জানিয়েছেন যে তাঁর এবং তাঁর ছেলের প্রাণের আশঙ্কা রয়েছে বলে বোধ করছেন তিনি।

আদালতের নির্দেশে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৬, ৩২৩ ও ৫০৬ ধারায় ওই মেজরের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, তারা অভিযুক্ত ডেকে পাঠিয়েছে এবং তদন্তে সহযোগিতা করতে বলেছে।

ডিসিপি (দক্ষিণপশ্চিম) দেবেন্দ্র আর্যের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং তদন্ত শুরু হয়েছে।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Army major accused of raping domestic help husband committed suicide

Next Story
পেহলু খান গণপ্রহার মামলায় সাক্ষী দিতে যাওয়ার সময়ে দিন দুপুরে জাতীয় সড়কে গুলি