তিন দশক পর অরুণাচলপ্রদেশ থেকে আংশিক ভাবে সরল আফস্পা

১৯৮৭ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি আফস্পা জারি করা হয়েছিল অরুণাচলপ্রদেশে। ২০১৬ সালে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক কিছু অংশ থেকে আফস্পা তুলে নেয়। 

৩২ বছর পর অরুণাচলপ্রদেশ থেকে প্রত্যাহার করা হল বহু বিতর্কিত আর্মড ফোর্সেস স্পেশাল পাওয়ার অ্যাক্ট (আফস্পা)। মঙ্গলবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক থেকে জানানো হয়েছে।

অরুণাচলপ্রদেশের ন’টি জেলার মধ্যে তিনটি থেকে প্রত্যাহার করা হল আফস্পা। মায়ানমারের সীমান্তবর্তী জেলাগুলোয় এখনও লাগু রয়েছে ওই আইন। প্রসঙ্গত, কোনও রাজ্যে আফস্পা কার্যকর করতে হলে ওই আইনের ৩ নম্বর ধারা অনুযায়ী রাজ্য অথবা কেন্দ্র সরকার কর্তৃক অঞ্চলটিকে ‘অশান্ত’ ঘোষণা করা প্রয়োজনীয়।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের মঙ্গলবারের ঘোষণা অনুযায়ী অরুণাচলপ্রদেশের ৪ টি এলাকা এখন থেকে আর ওই আইনের আওতায় পড়বে না। এগুলি হল পশ্চিম কামেং-এর বালেমু এবং ভালুকপং থানা এলাকা, পূর্ব কামেং-এর সেইজোসা, পাপুম্পারের বালিজান থানা এলাকা।

আরও পড়ুন, দেশের অধিকাংশ রাজ্যে ন্যূনতম মজুরির চেয়ে কম মনরেগা মজুরি

রাজ্যের বাকি অঞ্চলে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত লাগু থাকবে আফস্পা।

১৯৮৭ সালের ২০ ফেব্রুয়ারি আফস্পা জারি করা হয়েছিল অরুণাচলপ্রদেশে। ২০১৬ সালে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক কিছু অংশ থেকে আফস্পা তুলে নেয়। আফস্পা জারি করার পেছনে কারণ হিসেবে কেন্দ্রের ব্যাখ্যা ছিল রাজ্যের বিচ্ছিন্নতাবাদী কিছু দল সেনাবাহিনীর সদস্যদের নিয়মিত হামলা করত। “আমরা চাই অরুণাচলের মানুষ স্বাভাবিক জীবনযাপন করুক। এখানকার পরিস্থিতির অনেকটা উন্নতি হয়েছে। উত্তরপূর্ব ভারতের আলফা ছাড়াও অন্যান্য দলের সঙ্গে সরকারের শান্তিপূর্ণ আলোচনাও হয়েছে”, জানালেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের এক আধিকারিক।

Read the full story in English

Get the latest Bengali news and General news here. You can also read all the General news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Arunachal pradesh afspa withdrawn partially from arunachal pradesh

Next Story
সিবিএসই প্রশ্ন ফাঁসকাণ্ড: দিল্লি হাইকোর্টে শুনানি, ধৃত আরও ৩সিবিএসই-র সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে লুধিয়ানার ফিরোজপুরে প্রতিবাদে পড়ুয়ারা। ছবি গুরমীত সিং, ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com