scorecardresearch

বড় খবর

সাজা মকুব করতে এবার ক্ষমাভিক্ষার আর্জি আসারাম বাপুর

নাবালিকাকে ধর্ষণের অভিযোগে যাবজ্জীবন কারাবাসের সাজা ভোগ করছে ওই স্বঘোষিত ধর্মগুরু। এবার সেই সাজা লঘু করতে রাজস্থানের রাজ্যপালের কাছে ক্ষমাভিক্ষার আর্জি জানাল ওই ধর্মগুরু।

সাজা মকুব করতে এবার ক্ষমাভিক্ষার আর্জি আসারাম বাপুর
আসারাম বাপু। ফাইল ছবি, ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

শাস্তির মেয়াদ কমাতে এবার রাজস্থানের রাজ্যপালের দ্বারস্থ হল আসারাম বাপু। নাবালিকাকে ধর্ষণের অভিযোগে যাবজ্জীবন কারাবাসের সাজা ভোগ করছে ওই স্বঘোষিত ধর্মগুরু। এবার সেই সাজা লঘু করতে রাজস্থানের রাজ্যপালের কাছে ক্ষমাভিক্ষার আর্জি জানাল ওই ধর্মগুরু, সংবাদসংস্থা পিটিআই সূত্রে এমনটাই খবর। সূত্র মারফৎ জানা গিয়েছে, বয়সের দোহাই দিয়ে শাস্তি মকুবের আর্জি জানিয়েছে আসারাম।

ইতিমধ্যেই আসারাম বাপুর আর্জি স্বরাষ্ট্রদফতরে পাঠিয়েছেন রাজস্থানের রাজ্যপাল কল্যাণ সিং। একইসঙ্গে এ নিয়ে বিশদে রিপোর্টও তলব করেছেন রাজ্যপাল। স্বরাষ্ট্র দফতর ওই আবেদনপত্র পাঠিয়েছে যোধপুর সেন্ট্রাল জেল প্রশাসনকে। এ নিয়ে জেলা প্রশাসন ও পুলিশের থেকেও রিপোর্ট চাওয়া হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে যোধপুর সেন্ট্রাল জেলের সুপারিন্টেনডেন্ট কৈলাশ ত্রিবেদী বলেন,‘‘আসারামের ক্ষমাভিক্ষার আবেদন আমরা পেয়েছি। এ নিয়ে জেলা প্রশাসন ও পুলিশের থেকে রিপোর্ট চেয়েছি।’’ রিপোর্ট হাতে পেলে তা রাজস্থানের ডিজিকে পাঠাবে জেল কর্তৃপক্ষ।

আরও পড়ুন, পেশাগত শত্রুতার জেরেই খুন এইচডিএফসি ব্যাঙ্ক কর্তা

রাজস্থানের যোধপুরের কাছে একটি আশ্রমে তাকে আসারাম ডেকে পাঠায় বলে অভিযোগ করেছিল ১৬ বছরের এক কিশোরী। ২০১৩ সালে স্বাধীনতা দিবসের রাতে তাকে আসারাম ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ করেছে ওই কিশোরী। এমনকি এ ঘটনা সম্পর্কে ওই কিশোরী যাতে মুখ না খোলে, সেজন্য আসারাম হুমকিও দেয় বলে অভিযোগ। ২০১৩ সালের সেপ্টেম্বরে গ্রেফতার হয় আসারাম বাপু। গ্রেফতারের পর থেকেই যোধপুর জেলে বন্দি রয়েছে আসারাম।

চলতি বছরের ২৫ এপ্রিল এ ঘটনায় দোষী সাব্যস্ত হয় আসারাম বাপু। গত ২ জুলাই নিম্ন আদালতের রায়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে রাজস্থান হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয় আসারাম। কিন্তু এই আবেদনের শুনানি এখনও শুরু হয়নি।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Asaram seeks dilution of life sentence in mercy plea