বড় খবর

কিশোরীকে গণধর্ষণ করে খুনের ঘটনায় মৃত্যুদণ্ড

পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীকে গণধর্ষণ করে খুনের ঘটনায় জাকির হুসেন নামে এক তরুণকে মৃত্যুদণ্ডের সাজা শোনাল জেলা ও দায়রা আদালত।

rape, ধর্ষণ
আসামে ১১ বছরের কিশোরীকে গণধর্ষণ করে খুনের ঘটনায় জাকির হুসেন নামে এক তরুণকে মৃত্যুদণ্ডের সাজা শোনাল আদালত। প্রতীকী ছবি।

দেশে ধর্ষণের মতো বর্বরোচিত ঘটনা রুখতে আরও একবার কড়া শাস্তির বিধান দিল দেশের এক আদালত। আসামে ১১ বছরের কিশোরীকে গণধর্ষণ করে খুনের ঘটনায় জাকির হুসেন নামে এক তরুণকে মৃত্যুদণ্ডের সাজা শোনাল আদালত। মার্চ মাসে ১১ বছরের এক কিশোরীকে গণধর্ষণ করে খুনের অভিযোগে ওই তরুণকে মৃত্যুদণ্ডের সাজা শুনিয়েছে জেলা ও দায়রা আদালত। অন্যদিকে, উপযুক্ত প্রমাণের অভাবে ৫ জন অভিযুক্তকে বেকসুর খালাস করা হয়েছে। চলতি মাসের ৪ তারিখ এ ঘটনায় ওই তরুণকে দোষী সাব্যস্ত করে আদালত।

কিশোরীকে গণধর্ষণ করে খুনের ঘটনায় জাকির হুসেনকে পকসো আইনে মৃত্যুদণ্ডের সাজা শোনানো হয়েছে। পাশাপাশি কিশোরীকে ধর্ষণের দায়ে যাবজ্জীবন সাজা ঘোষণা করা হয়েছে। অন্যদিকে, এ ঘটনায় আরও দুই অভিযুক্ত নাবালককে তিনবছরের কারাবাসের সাজা শোনানো হয়েছে।

আরও পড়ুন, মহিলা এনসিসি ক্যাডেটকে যৌন হেনস্থার অভিযোগ মেজর জেনারেলের বিরুদ্ধে

চলতি বছরের ২৩ মার্চ নওগাঁও জেলায় পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীকে গণধর্ষণ করা হয়। শুধু তাই নয়, গণধর্ষণের পর ওই ছাত্রীর বাড়িতে আগুন লাগানো হয়। সেসময় বাড়িতে একাই ছিল ওই কিশোরী। ঘটনার পর গুরুতর জখম অবস্থায় গুয়াহাটি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয় কিশোরীকে। পরের দিন সেখানেই তার মৃত্যু হয়। এদিকে, ঘটনার পর থেকেই পলাতক ছিল অভিযুক্তরা।

পরে অভিযুক্তদের গ্রেফতার করা হয়। চলতি বছরের ২৮ এপ্রিল এ ঘটনায় চার্জশিট জমা দেয় পুলিশ। ৮ জনের নামে চার্জশিট দাখিল করা হয়। অন্যদিকে, এ ঘটনার জেরে আসামে বিভিন্ন মহল থেকে প্রতিবাদ জানানো হয়। এ ঘটনার জেরেই রাজ্যের পুলিশবাহিনীতে ৩০ শতাংশ মহিলা সাবইন্সপেক্টর নিয়োগ করার কথা ঘোষণা করে আসাম সরকার। পাশাপাশি রাজ্যের নারীদের সুরক্ষার জন্য বিশেষ টোল ফ্রি হেল্পলাইন নম্বরের সূচনা করেন সে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী।

Get the latest Bengali news and General news here. You can also read all the General news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Assam nagaon gangrape murder case

Next Story
গোরক্ষা ও গণপ্রহার: যেসব রাজ্য রিপোর্ট জমা দেয়নি, তাদের তিরস্কার করল শীর্ষ আদালত, তিন সপ্তাহের সময়সীমা
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com