বড় খবর

আসাম এনআরসি-তে ভুল রয়েছে, সরকারকে সংশোধন করতে বলল আরএসএস

আরএসএসের সাধারণ সম্পাদক বলেন, “এনআরসি-র চূড়ান্ত তালিকা কোনও আইন নয়… কিছু ভুলচুক এতে রয়েছে… সরকারের উচিত সে ভুলগুলি দূর করার ব্যাপারে অগ্রসর হওয়া।”

NRC
অসম ও উত্তর পূর্বাঞ্চলের আঞ্চলিক দলগুলি এই মানুষগুলোর পাশে দাঁড়াবে না

আসাম এনআরসি-র চূড়ান্ত তালিকায় ভুলচুক রয়েছে বলে মনে করে রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘ (আরএসএস)। এনআরসি-র পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়ে সে ভুলগুলিকে সংশোধন করতে বলেছে এই সংগঠন।

শনিবার আরএসএসের বার্ষিক সমন্বয় সভার শুরুর দিনেই বিষয়টি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়। সূত্র জানিয়েছে, ওই দিন আসামের চূড়ান্ত এনআরসি-তে অনেক খাঁটি ভারতীয়ের নাম বাদ পড়া এবং তাঁদের মধ্যে অধিকাংশই হিন্দু বলে দাবি করার বিষয়টি নিয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়।

বিজেপি সাধারণ সম্পাদক রাম মাধব আসামে এনআরসি প্রক্রিয়া কীভাবে কার্যকর করা হয়েছে এবং চূড়ান্ত তালিকা নিয়ে বৈঠকে আলোচনা করেন। প্রসঙ্গত সাতটি উত্তরপূর্বের রাজ্যে বিজেপির দায়িত্বে রয়েছেন রাম মাধবই।

আরও পড়ুন, ‘হিন্দু বিরোধী এনআরসি’, বিজেপি বিধায়ক-সাংসদদের পদত্যাগ দাবি বরাকের হিন্দু সংগঠনের

সোমবার সংঘের সমন্বয় বৈঠকের চূড়ান্ত দিনে এক সাংবাদিক সম্মেলনে আরএসএসের সাধারণ সম্পাদক দত্তাত্রেয় হোসাবালে বলেন, “এনআরসি একটি জটিল বিষয় কারণ বহু বাংলাদেশি অবৈধ অভিবাসীর নাম ভোটার তালিকায় রয়ে গিয়েছে।”

এনআরসি নিয়ে বৈঠকে আলোচনা হয়েছে বলে জানিয়ে তিনি বলেন, “৩৫ থেকে ৪০ লক্ষ অবৈধ অভিবাসী এখন আসামে বাস করছে, পূর্বতন সরকারগুলি তাদের আইনি নথিও দিয়ে দিয়েছে, ফলে গোটা বিষয়টি আরও জটিল হয়েছে।”

আরএসএসের সাধারণ সম্পাদক বলেন, “এনআরসি-র চূড়ান্ত তালিকা কোনও আইন নয়… কিছু ভুলচুক এতে রয়েছে… সরকারের উচিত সে ভুলগুলি দূর করার ব্যাপারে অগ্রসর হওয়া।”

তবে যথাসময়ে এনআরসি প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করার জন্য রাজ্য বিজেপিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন আরএসএস সাধারণ সম্পাদক।

বৈঠকে উপস্থিত সূত্র জানিয়েছে, এনআরসি নিয়ে দীর্ঘ আলোচনা হয়েছে এবং পার্শ্ববর্তী রাজ্য থেকে গিয়ে আসামে বসতি গড়েছেন এমন নাগরিকদের তালিকাছুট হওয়ার বিষয়টি নিয়ে উদ্বেগ ব্যক্ত করা হয়েছে।

সূত্র জানিয়েছে, তালিকাছুট ১৯ লক্ষের মধ্যে অধিকাংশ হিন্দু বলে দাবি করায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন নেতারা।

আরও পড়ুন, এনআরসি তালিকাছুটদের পরিচিতি আসলে কী? কোথা থেকে আসছে পরিসংখ্যান?

বিজেপি এই এনআরসি তালিকার সমালোচনা করে বলেছে, সরকারের উচিত ভারতীয় নাগরিকদের সুরক্ষায় এমন আইন প্রণয়ন করা যাতে বিদেশি ট্রাইবুনালে আবেদন নাকচ হয়ে গেলেও ভারতীয় নাগরিকরা সুরক্ষা পেতে পারেন।

এনআরসি-র চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশিত হয়েছে ৩১ অগাস্ট। ওই তালিকা থেকে বাদ পড়েছেন ১৯ লক্ষ মানুষ।

আরএসএসের অধীনস্থ ২৫টি সংগঠনের ২০০ জনেরও বেশি এই সমন্বয় বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন। লোকসভা বৈঠকের পর এ ধরনের বৈঠক এই প্রথম। বিজেপির কার্যকরী সভাপতি জেপি নাড্ডা, সাধারণ সম্পাদক (সংগঠন) বি এল সন্তোষ এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

Read the Full Story in English

Get the latest Bengali news and General news here. You can also read all the General news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Assam nrc mistakes government should take steps rss

Next Story
কাশ্মীর পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বিগ্ন রাষ্ট্রসংঘের মানবাধিকার হাইকমিশনারjammu kashmir, জম্মু কাশ্মীর
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com