scorecardresearch

বড় খবর

‘আমার ভাই নির্দোষ’! পুলিশের বিরুদ্ধে বোমা ফাটালেন আইএস জঙ্গি সন্দেহে ধৃত জঙ্গির পরিবার

তার সঙ্গে কোন জঙ্গি গোষ্ঠীর কোন যোগ নেই এমনটাই দাবি , পরিবার এবং প্রতিবেশীদের

‘আমার ভাই নির্দোষ’! পুলিশের বিরুদ্ধে বোমা ফাটালেন আইএস জঙ্গি সন্দেহে ধৃত জঙ্গির পরিবার
ফাইল ছবি

স্বাধীনতা দিবসের আগে একাধিক জায়গায় বিস্ফোরণ ঘটানোর পরিকল্পনার অভিযোগে আজমগড় থেকে ইউপি পুলিশের অ্যান্টি-টেররিজম স্কোয়াড (এটিএস) আইএস জঙ্গি সন্দেহে গ্রেফতার করে সাবাহউদ্দিন আজমি, নামে এক যুবককে। যদিও গ্রেফতারের পরই মুখ খুলেছে ধৃতের পরিবার। পরিবার সূত্রে দাবি করা হয়  সাবাহউদ্দিন সম্পূর্ণ নির্দোষ। ষষ্ঠ শ্রেণির পর স্কুল ছাড়ে সাবাউদ্দিন।  এসি  মেকানিক হিসাবে কাজ করে সংসার চালাত। তার সঙ্গে কোন জঙ্গি গোষ্ঠীর কোন যোগ নেই এমনটাই দাবি পরিবার এবং প্রতিবেশীদের  

তার গ্রেফতারের পর পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন আজমির পরিবার এবং আজমগড়ের মুবারকপুর এলাকায় প্রতিবেশীরা দাবি করেছে যে তিনি নির্দোষ এবং ইউপি এটিএস তাকে ইচ্ছাকৃতভাবে  গ্রেফতার করে ।

সাবাহউদ্দিনের ভাই সালাউদ্দিন বলেন , ‘আমার ভাই নির্দোষ। এটিএস তাকে ইচ্ছাকৃত ভাবে গ্রেফতার করেছে।  তিনি আরও বলেন, গত সপ্তাহে পুলিশ সাবাহউদ্দিনকে আমাদের বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যায়। একদিন পরে, এটিএস এলাকা থেকে আরও দু’জনকে গ্রেফতার করে। মঙ্গলবার, পুলিশ সাবাহউদ্দিনকে গ্রেফতার করে অন্য ২ যুবককে ছেড়ে দিয়েছে ।” মঙ্গলবার এটিএসের তরফে দাবি করা হয়েছে  আজমির সঙ্গে  ইসলামিক স্টেটের (আইএস)  সম্পর্ক রয়েছে এবং তার যথেষ্ট প্রমাণও রয়েছে পুলিশের হাতে।

স্থানীয় এক দোকানী জিয়াউল্লাহ বলেন  “সাবাহউদ্দিনের পরিবার তাঁতের ব্যবসা করে। প্রায় পাঁচ বছর আগে, সাবাহউদ্দিন মুম্বাই গিয়েছিলেন যেখানে তিনি এয়ার কন্ডিশন মেরামত শিখেছিলেন। তিনি প্রায় দুই মাস মুম্বাইয়ে ছিলেন এবং তার পর ফিরে এসে, তিনি আজমগড়ে এয়ার কন্ডিশনার মেরামত করতেন,”।

আরও পড়ুন: [ কাজের জন্য বাইরে গিয়েই মর্মান্তিক পরিণতি ৯ জনের! হাহাকার বীরভূমের গ্রামজুড়ে ]

পাঁচ ভাইয়ের মধ্যে সবার ছোট সাবাহউদ্দিন । যদিও ATS দাবি করেছে যে সাবাহউদ্দিন AIMIM-এর সদস্য ছিলেন, যদিও পার্টি তা অস্বীকার করেছে। যদিও গ্রেফতারের পর সাবাহউদ্দিনের রাজনৈতিক পরিচয় নিয়েও শুরু হয়েছে তরজা।

দিল্লির পর এবার শিরোনামে উত্তরপ্রদেশ। স্বাধীনতা দিবসের প্রাক্কালে নাশকতার ছক বানচাল করল উত্তরপ্রদেশ পুলিশের অ্যান্টি-টেররিজম স্কোয়াড। সংবাদ সংস্থা পিটিআইয়ের রিপোর্ট অনুসারে উত্তরপ্রদেশ পুলিশের অ্যান্টি-টেররিজম স্কোয়াড স্বাধীনতা দিবসের প্রাক্কালে এক সন্দেহভাজন আইএস জঙ্গিকে গ্রেফতার করেছে। পুলিশ সূত্রে খবর স্বাধীনতা দিবসের আগে একাধিক জায়গায় হামলার ছক কষেছিল সন্দেহভাজন আইএস জঙ্গি।

জানা গিয়েছে ধৃত জঙ্গির নাম সাবাউদ্দিন আজমি। রাজ্যপুলিশের এডিজি প্রশান্ত কুমার মঙ্গলবার জারি করা এক বিবৃতিতে বলেছেন, উত্তরপ্রদেশের আজমগড় থেকে আইএস জঙ্গি সন্দেহে রাজ্যপুলিশের বিশেষ অপরাধ দমন শাখা তাকে গ্রেফতার করে। ধৃতের বিরুদ্ধে বেআইনি কার্যকলাপে জড়িত থাকা এবং অস্ত্র আইনে একটি মামলা রুজু করা হয়েছে। ধৃতের কাছ থেকে বেশ কিছু নথিও উদ্ধার করা হয়েছে। স্বাধীনতা দিবসের আগে বড়সড় নাশকতার পরিকল্পনা ছিল তার।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Azamgarh youths family says ats wrongly arrested him