বড় খবর


বিহারে কোভিড টেস্ট জালিয়াতি: দোষীদের শাস্তির আশ্বাস নীতীশের, রিপোর্ট তলব কেন্দ্রের

বিহারে কোভিড টেস্টের দুর্নীতি নিয়ে দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসে তদন্তমূলক প্রতিবেদনে চাঞ্চল্যকর তথ্য ধরা পড়েছে। সরগরম রাজ্য রাজনীতি।

বিহারে কোভিড টেস্টের দুর্নীতি নিয়ে দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসে তদন্তমূলক প্রতিবেদনে চাঞ্চল্যকর তথ্য ধরা পড়েছে। সরগরম রাজ্য রাজনীতি। শেষ পর্যন্ত দুর্নীতি তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার। ইতিমধ্যেই কোভিড টেস্ট সংক্রান্ত দুর্নীতিতে যুক্ত সন্দেহে জামুইয়ের পাঁচ অফিসার সহ ন’জন স্বাস্থ্য কর্মীকে বরখাস্ত করা হয়েছে। মূলত এই জামুই জেলাতেই বেনিয়ম বেশি নজরে এসেছে। বিহার সরকারের থেকে পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট তলব করেছে কেন্দ্র।

রাষ্ট্রীয় জনতা দলের সাংসদ মনোজ ঝা শুক্রবারই কোভিড টেস্ট কেলেঙ্কারির জন্য দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের রিপোর্ট উল্লেখ করে রাজ্যসভায় সোচ্চার হন। চেয়ারপার্সন বেঙ্কাইয়া নাইডুর কাছে এই সংক্রান্ত জালিয়াতির কিনারায় উচ্চপর্যায়ের তদন্ত দাবি করেন। জবাবে রাজ্যসভার চেয়ারম্যান তথা উপরাষ্ট্রপতি নাইডু কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে এই বিষয়ে তদন্তের প্রয়োজন রয়েছে বলে জানান।

কেন্দ্রীয় সরকারের এক অফিসার দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে জানিয়েছেন যে, কোভিড টেস্ট কেলেঙ্কারির পূর্ণাঙ্গ তথ্য জানতে চেয়ে বিহার সরকারকে চিঠি দিয়েছে স্বাস্থ্যমন্ত্রক।

আরও পড়ুন- কোভিড পরীক্ষায় ভর্তি ভুয়ো ডেটা, ফোন নাম্বারে ১০টি শূন্য

পাটনায় মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার বলেছেন, ‘কোভিড টেস্ট নিয়ে দুর্নীতির কথা শুনেছি। স্বাস্থ্য দফতরের কাছ থেকে পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট চেয়েয়ছি। তদন্ত হবে। যে দোষী সাব্যস্ত হবে তার শাস্তি হবে। মূলত একটি জায়গা (জামুই) থেকেই বেনিয়মের অভিযোগ সামনে এসেছে।’

বিহারের স্বাস্থ্যমন্ত্রী মঙ্গল পাণ্ডের জানিয়েছেন, জামুইয়ের সিভিল সার্জেন ডাঃ বীজেন্দ্র সত্যরথি, জেলা প্রোগ্রাম অফিসার সুধাংশু লাল সহ পাঁচ উচ্চ পর্যায়ের স্বাস্থ্য কর্মী ও চার জুনিয়ান কর্মীকে বরখাস্ত করা হয়েছে।

আরও পড়ুন- বিহারে কোভিড টেস্ট জালিয়াতি: উচ্চপর্যায়ের তদন্তের দাবি আরজেডি সাংসদের

শুক্রবার সংসদের জিরো আওয়ারে আরজেডি সাংসদ মনোজ ঝাঁ বলেন, ‘গত দুদিন ধরে জনপ্রিয় জাতীয় সংবাদপত্র বিহারে কোভিড টেস্টের জালিয়াতি নিয়ে প্রতিবেদন বের করেছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে, এক সপ্তাহে টেস্ট হয়েছে এক লক্ষের আর সেটাই দুসপ্তাহে ২ লক্ষ ছাড়িয়ে যাচ্ছে। অনেক কলাম টেস্টিং তথ্যে খালি রাখা হচ্ছে। বেশ কিছু কোভিড টেস্টের রোগীদের মোবাইল নম্বরের জায়গায় ১০টি শূন্য লেখা রয়েছে। নাম এবং মোবাইল নম্বরের সঙ্গে ব্যক্তির পরিচিতি মিলছে না। এই কারণে উচ্চপর্যায়ের তদন্ত প্রয়োজন।’ স্বাস্থ্য পরিষেবা কার্যত ‘হাস্যকর’ হয়ে উঠেছে বলে কটাক্ষ করেন তিনি।

দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস জামুই, শেখপুরা এবং পাটনাতে ছ’টি পিএইচসি পরিদর্শন করে। ১৬, ১৮ এবং ২৫ জানুয়ারীর মধ্যে যে করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে তা খতিয়েও দেখে। জামুইতে তিনটি পিএইচসি-তে ৫৮৮টি করোনা পরীক্ষার সন্ধান পাওয়া যায়। যেখানে সব রিপোর্ট নেগেটিভ। এর পরই সেখানকার বিভিন্ন কর্মীদের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে কথাও বলা হয়। হাতে আসে ভুয়ো নথি। যেখানে নাম থেকে ফোন নম্বর সবটাই মিথ্যে। করোনার দৈনিক পরীক্ষার লক্ষ্যমাত্রা পূরণের জন্যই এই কাজ করা হয়েছিল, এমনটাই মানছে অনেকে।

পরিসংখ্যান অনুযায়ী বিহারে কোভিড সংক্রমিত হয়েছেন ২ লক্ষ ৬১ হাজার ৫৬৮ জন। বর্তামে রাজ্যে ৭০০ জন অ্যাকটিভ রয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ৫২১ জনের। রাজধানী পাটনাতে আক্রান্তের হার সব থেকে বেশি।

Read in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Web Title: Bihar covid test fudge nitish kumar promises action some heads roll centre seeks report

Next Story
কোভিড পরীক্ষায় ভর্তি ভুয়ো ডেটা, ফোন নাম্বারে ১০টি শূন্য
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com