scorecardresearch

বড় খবর

গণধর্ষণ কাণ্ডে ১১আসামীর ‘অকাল মুক্তি’, সুবিচারের আশায় শীর্ষ আদালতে বিলকিস বানো  

১১ আসামীর মুক্তির বিরুদ্ধে আজই সুপ্রিম কোর্টে রিভিউ পিটিশন দায়ের করেন বিলকিস বানো।

গণধর্ষণ কাণ্ডে ১১আসামীর ‘অকাল মুক্তি’, সুবিচারের আশায় শীর্ষ আদালতে বিলকিস বানো  

১১ আসামীকে মুক্তির দাবির বিরুদ্ধে খোদ এবার শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ বিলকিস বানো। ২০০২ সালের গোধরা দাঙ্গার সময় গণধর্ষণ এবং পরিবারের সদস্যদের হত্যার জন্য দোষী সাব্যস্ত হওয়া ১১ আসামীর ‘অকাল মুক্তিকে’ চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে একটি বিভিউ পিটিশন দায়ের করেন তিনি। বিচারপতি ডিওয়াই চন্দ্রচূড়ের কাছে এই মামলাকে তালিকাভুক্ত করার অনুরোধ করেন।

ফের সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হলেন বিলকিস বানো। বিলকিস বানো সুপ্রিম কোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে রিভিউ পিটিশন দায়ের করেছেন, যেখানে আদালত মুক্তির সিদ্ধান্ত গুজরাট সরকারের উপর ছেড়ে দিয়েছিল। এছাড়াও বিলকিস বানো ১১ আসামির অকাল মুক্তির বিরুদ্ধে আবেদনও করেছেন। ২০০২ সালে গোধরা দাঙ্গার পরই গণধর্ষিত হয়েছিলেন বিলকিস বানো। তার চোখের সামনেই নয় বছরের মেয়ে সহ গোটা পরিবারকে খুন করা হয়। সেই মামলায় যাবজ্জীবন সাজা দেওয়া হয় ১১ জন আসামীকে। কিন্তু সম্প্রতি গুজরাট সরকার ওই ১১ জনকে মুক্তির আদেশ দেয় তা নিয়ে সমালোচনার ঝড় বইতে শুরু করে দেশ জুড়ে। এবার শীর্ষ আদালতের সিদ্ধান্তকে সিদ্ধান্তকেই চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হলেন বিলকিস বানো।

বিলকিস বানোর আইনজীবী প্রধান বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড়ের সামনে বিষয়টি উল্লেখ করেছেন। বিচারপতি চন্দ্রচূড় বলেছেন যে উভয় পিটিশন একসঙ্গে শুনানি করা যায় কিনা এবং একই বেঞ্চের সামনে শুনানি করা যায় কিনা সে বিষয়টি তিনি খতিয়ে দেখবেন। গণধর্ষণের শিকার বিলকিস বানো সুপ্রিম কোর্টে রিভিউ পিটিশন দাখিল করেছেন।

তিনি ১৩ মে আদালতের নির্দেশ পুনর্বিবেচনার আবেদন করেন। চলতি বছর ১৫ আগস্ট ১১ জন ধর্ষককে মুক্তি দেয় গুজরাট সরকার। এর আগে  সিপিএম পলিটব্যুরোর সদস্য সুভাষিণী আলি, তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ মহুয়া মৈত্র এবং অন্য একজন আদালতে এই ১১ জনের মুক্তিকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে মামলা দায়ের করেছিলেন। সেই মামলার প্রেক্ষিতে গুজরাট সরকারের তরফে আদালতে হলফনামা পেশ করা হয় তাতে বলা হয়, বিলকিস বানোর ধর্ষণ মামলায় দোষী সাব্যস্ত ১১ অপরাধীকে ভালো ব্যবহারের জন্য কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের অনুমতিতেই ছাডা হয়েছিল। জানানো হয়, গুজরাট সরকারকে এই সংক্রান্ত অনুমতি দিয়ে গত ১১ জুলাই কেন্দ্রের তরফে চিঠি দেওয়া হয়েছিল।

এদিকে ১১ আসামীর মুক্তির বিরুদ্ধে আজই সুপ্রিম কোর্টে রিভিউ পিটিশন দায়ের করেন বিলকিস বানো। গণধর্ষণ হত্যার ঘটনায় দায়ে দোষী সাব্যস্ত হওয়া ১১ আসামির অকাল মুক্তিকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে একটি রিভিউ পিটিশন দাখিল করেছেন বানো। প্রধান বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড়ের সামনে বিষয়টি পর্যালোচনার জন্য উত্থাপন করা হয়। এ সময় প্রধান বিচারপতি বলেন, উভয় আবেদন একসঙ্গে শুনানি করা যায় কি না এবং একই বেঞ্চে শুনানি করা যায় কি না, সে বিষয়টি তিনি খতিয়ে দেখবেন।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Bilkis bano moves supreme court challenging release of 11 convicts in gangrape case