বড় খবর

‘লালকেল্লার হিংসা বিজেপির চক্রান্ত’, সংসদে সরব অধীর

লোকসভা স্বাভাবিক রাখতে সোমবার সকাল থেকে দফায় দফায় বৈঠক হয় সরকার-বিরোধীপক্ষের। তারপরেই রাজনাথ সিংযের অনুরোধ। অবশেষে প্রায় এক সপ্তাহ বাদে স্বাভাবিক হয় অধিবেশন

প্রজাতন্ত্র দিবসে লালকেল্লার হিংসা বিজেপির চক্রান্ত ছিল। সোমবার সংসদে এই অভিযোগ করেন কংগ্রেস সাংসদ অধীর চৌধুরী। দলের সংসদীয় নেতা তথা বহরমপুরের সাংসদের প্রশ্ন, ‘প্রজাতন্ত্র দিবসের দিন দুষ্কৃতীরা কীভাবে লালকেল্লা পৌছতে পারল? প্রজাতন্ত্র দিবসের দিন জাতীয় চাদরে মোড়া থাকে। তাহলে কীভাবে এই ঘটনা ঘটলো? আমি নিশ্চিত কেন্দ্র সরকার এই ঘটনার পিছনে। তোমরা কৃষকদের বেশে লোক পাঠিয়ে হিংসা ছড়িয়েছ।‘

সংসদে বাজেট ভাষণের পর থেকে দফায় দফায় হল্লায় মুলতুবি হয়েছে লোকসভা। এদিন, প্রতিরক্ষামন্ত্রী অনুরোধ করেন লোকসভা অধিবেশন স্বাভাবিক রাখার। সেই অনুরোধকে মান্যতা দিয়ে এদিন বলতে ওঠেন অধীর চৌধুরী।

লোকসভা স্বাভাবিক রাখতে সোমবার সকাল থেকে দফায় দফায় বৈঠক হয় সরকার-বিরোধীপক্ষের। তারপরেই রাজনাথ সিংযের অনুরোধ। অবশেষে প্রায় এক সপ্তাহ বাদে স্বাভাবিক হয় অধিবেশন।

রাষ্ট্রপতি ভাষণের জবাবে ধন্যবাদ দিতে গিয়ে কৃষক আন্দোলন নিয়ে সংসদে কড়া বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী৷ শুধু তাই নয়, কৃষি ক্ষেত্রে সংস্কার নিয়ে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের উক্তি তুলে কংগ্রেসের ‘ইউ-টার্ন’-এর সমালোচনা করেন নমো৷ সোমবার রাজ্যসভায় তিনি জানান, মনমোহন সিং কৃষি ক্ষেত্রে সংস্কারের পক্ষে ছিলেন৷ বর্তমান সরকার সেই কাজটাই করে দেখাচ্ছে৷

প্রধানমন্ত্রী থাকাকালীন মনমোহন সিং ভারতকে বৃহৎ বাজার হিসাবে তুলে ধরেছিলেন৷ বলেছিলেন, ‘যা যা বাধা হবে সেটার বিরুদ্ধে আমাদের লড়তে হবে৷ কৃষকরা যাতে ফসলের সর্বোচ্চ দাম পায়, তা নিশ্চিত করতে সংস্কারের প্রয়োজন৷’ সেই উক্তির স্মৃতি উস্কে মোদী বলেন, ‘মনমোহনজি ফ্রি মার্কেটের কথা বলেছিলেন৷ আমরা সেটা করে দেখাতে চাই৷’

কংগ্রেস শুধু বিরোধিতার জন্য বিরোধিতা করছে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী৷ কৃষকদের আন্দোলনকে সবুজ বিপ্লবের সঙ্গে তুলনা করেন নরেন্দ্র মোদী৷ বলেন, ‘সবুজ বিপ্লবের সময় প্রচুর বিক্ষোভ হয়েছিল৷ লালবাহাদুর শাস্ত্রীকে আমেরিকার এজেন্ট বলেছিল বামেরা৷ তবুও সংস্কার হয়েছিল৷ যার ফল আজ দেশ দেখছে৷ আমাদের কৃষিক্ষেত্রে সমস্যা রয়েছে৷ আর সেই সমস্যা মেটাতে আমাদের একসঙ্গে কাজ করতে হবে৷’

৮০ দিন ধরে চলতে থাকা আন্দোলন থেকে সরে আসার জন্য কৃষকদের কাছে আবেদন করেন প্রধানমন্ত্রী৷ তিনি বলেন, ‘আমরা আলোচনার জন্য রাজি আছি৷ সভা থেকে দাঁড়িয়ে আপনাদের আলোচনার জন্য আহ্বান জানাচ্ছি৷ ফসলের উপর সহায়ক মূল্য ছিল, আছে এবং থাকবে৷ কেউ ভুল তথ্য প্রচার করবেন না৷’

কৃষকদের সমস্যার কথা নিয়ে চুপ থাকার জন্য বিরোধীদের তুলোধনা করেন মোদী৷ বলেন, ‘আমদের এগিয়ে যেতে হবে৷ পিছনের দিকে নয়৷ যে সংস্কারগুলির কথা বলা হচ্ছে অন্তত একটা সুযোগ দেওয়া হোক৷ কৃষক সমস্যার কথা না বলে বিরোধীরা আন্দোলনকে সমর্থন জানাচ্ছেন৷ ঠিক আছে, আপনারা সরকারকে আক্রমণ করছেন৷ কিন্তু এই সংস্কারের প্রয়োজন রয়েছে- এটা কৃষকদের বোঝানো দায়িত্ব আপনাদেরও ৷ দেশের ৮৬ শতাংশ কৃষকের হাতে দু’হেক্টরের কম জমি আছে৷ এই ১২ কোটি কৃষকের প্রতি আমাদের কোনও দায়িত্ব নেই?

Get the latest Bengali news and General news here. You can also read all the General news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Bjp plotted the red fort violence alleges congress mp national %e0%a6%b2%e0%a6%be%e0%a6%b2%e0%a6%95%e0%a7%87%e0%a6%b2%e0%a7%8d%e0%a6%b2%e0%a6%be%e0%a6%b0 %e0%a6%b9%e0%a6%bf%e0%a6%82%e0%a6%b8

Next Story
মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের প্রতি ‘আপত্তিকর’ মন্তব্য! বিজেপি কর্মীর মুখে কালি লেপে, শাড়ি-চুড়ি পরিয়ে ঘোরানোর অভিযোগ
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com