scorecardresearch

বড় খবর

‘ওয়ার অ্যান্ড পিস’ কী আমরা জানি, বলল বম্বে হাইকোর্ট

‘ওয়ার অ্যান্ড পিস’ নিয়ে বিচারপতি সারঙ্গ কোতোয়ালের প্রশ্ন ছিল, “নিজের বাড়িতে অন্য দেশে হওয়া যুদ্ধ সংক্রান্ত বই কেন রাখবেন?”

‘ওয়ার অ্যান্ড পিস’ কী আমরা জানি, বলল বম্বে হাইকোর্ট
অলঙ্করণ: অভিজিৎ বিশ্বাস

লিও টলস্টয়ের ‘ওয়ার অ্যান্ড পিস’ যে কালজয়ী সাহিত্য, সে সম্বন্ধে তারা অবগত বলে বৃহস্পতিবার জানিয়েছে বম্বে হাইকোর্ট। একথাও জানানো হয়েছে যে এলগার পরিষদ মামলায় পুণে পুলিশের দ্বারা বাজেয়াপ্ত সমস্ত বইই যে অপরাধের ইঙ্গিত দিচ্ছে, সেকথা বলা আদালতের উদ্দেশ্য ছিল না।

এই শোধনের প্রয়োজন হয়ে পড়ে বুধবার হাইকোর্টের বিচারপতি সারঙ্গ কোতোয়ালের এক মন্তব্যের প্রেক্ষিতে, যখন তিনি মামলায় অভিযুক্ত ভার্নন গনজালভেজের কাছে জানতে চান, কেন টলস্টয়ের ‘ওয়ার অ্যান্ড পিস’ নিজের বাড়িতে রেখেছিলেন তিনি, যখন উপন্যাসটি “অন্য দেশে হওয়া যুদ্ধ নিয়ে লেখা”।

বিচারপতি কোতোয়ালকে উদ্ধৃত করে সংবাদ সংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, “আপনাদের কথায় এটি স্পষ্ট যে বইগুলি নিষিদ্ধ নয়। তাছাড়া গতকাল আমি চার্জশিট থেকে সম্পূর্ণ তালিকাটি পড়ি। অত্যন্ত খারাপ হস্তাক্ষরে লেখা। ‘ওয়ার অ্যান্ড পিস’ কী আমি জানি। আমি সমগ্র তালিকাটি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলাম, যেটির কথা পুলিশ (প্রমাণ হিসেবে) উল্লেখ করেছে।”

মামলায় আরেক অভিযুক্ত সুধা ভরদ্বাজের উকিল আদালতকে জানান, বুধবারের শুনানি চলাকালীন যে ‘ওয়ার অ্যান্ড পিস’-এর কথা বলা হয়েছিল, তা বাস্তবে বিশ্বজিৎ রায় সম্পাদিত একটি প্রবন্ধ সমগ্র, যার সম্পূর্ণ শীর্ষক হলো ‘ওয়ার অ্যান্ড পিস ইন জঙ্গলমহল: পিপল, স্টেট অ্যান্ড মাওইস্টস’।

আরও পড়ুন: ‘নতুন ভারতবর্ষে স্বাগত’, ওয়ার অ্যান্ড পিস প্রসঙ্গে বললেন জয়রাম রমেশ

বুধবার আদালতে চলছিল গনজালভেজের জামিনের শুনানি। গত বছরের ২৮ অগাস্ট সিপিআই-মাওইস্ট সংগঠনের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে পুণে পুলিশের হাতে গ্রেফতার হন গনজালভেজ।

গনজালভেজের বাড়ির তল্লাশি নিয়ে যেসব বই, নথিপত্র এবং সিডি পাওয়া গিয়েছে বলে পুলিশের দাবি, সেই তালিকায় রয়েছে ‘আরসিপি রিভিউ’, ‘মারক্সিস্ট আর্কাইভস’ এবং কবীর কলা মঞ্চের ‘রাজ্য দমন বিরোধী’, এবং ‘জয় ভীম কমরেড’ শীর্ষক একটি তথ্যচিত্র। সেই তালিকার প্রেক্ষিতে কোতোয়াল বলেন, “এসবের নাম দেখেই বোঝা যাচ্ছে এগুলি রাষ্ট্রবিরোধী।”

‘ওয়ার অ্যান্ড পিস’ নিয়ে বিচারপতি কোতোয়ালের প্রশ্ন, “নিজের বাড়িতে অন্য দেশে হওয়া যুদ্ধ সংক্রান্ত বই কেন রাখবেন?” এছাড়াও আদালত গনজালভেজের উকিলকে নির্দেশ দেয় যে আজ, অর্থাৎ বৃহস্পতিবার শুনানি চলাকালীন যেন তিনি তল্লাশিতে পাওয়া বই এবং নথিপত্রের বিষয়টি উদ্দেশ করেন।

১৮৬৯ সালে প্রকাশিত ‘ওয়ার অ্যান্ড পিস’ উপন্যাসের মূলে রয়েছে ফ্রান্সের রাশিয়া আক্রমণ এবং তার পরবর্তী সময়ের কাহিনী। প্রভূত জনপ্রিয় এবং অসংখ্য ভাষায় অনূদিত বইটি বিশ্বসাহিত্যের একটি ‘মাস্টারপিস’ হিসেবে ধরা হয়।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Bombay high court tolstoy classic know war and peace didnt suggest incriminating