scorecardresearch

‘আফগানিস্তানকে সন্ত্রাসবাদীদের স্বর্গরাজ্য হতে দেব না’, একজোট ভারত-অস্ট্রেলিয়া

মানবাধিকার নিয়ে কাজ করা সংগঠনগুলিকে আফগানিস্তানের বর্তমান পরিস্থিতির দিকে নজর দেওয়ার আবেদন অজি বিদেশমন্ত্রীর।

‘আফগানিস্তানকে সন্ত্রাসবাদীদের স্বর্গরাজ্য হতে দেব না’, একজোট ভারত-অস্ট্রেলিয়া
তালিবানের পতাকা

তালিবানের কব্জায় গোটা আফগানিস্তান। ইতিমধ্যেই সে দেশে সরকার গড়েছে তালিবান। আফগানিস্তানে একাধিক জঙ্গি গোষ্ঠী ফের সক্রিয় হয়ে উঠেছে। যা রীতিমতো উদ্বেগ বাড়িয়েছে বিশ্বের একাধিক দেশের। আফগানিস্তানকে কোনও মতেই সন্ত্রাসবাদীদের স্বর্গরাজ্য হতে দেওয়া যাবে না, এব্যাপারে এককাট্টা ভারত-অস্ট্রেলিয়া।

আফগানিস্তানে তালিবান-রাজ ফিরতেই সে দেশে মাথাচাড়া দিতে শুরু করেছে ভারত-বিরোধী একাধিক জঙ্গি গোষ্ঠী। যা নিয়ে রক্তচাপ বাড়ছে নয়াদিল্লির। ভারতের মতো আফগানিস্তানের পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বিগ্ন অস্ট্রেলিয়াও। শনিবার অস্ট্রেলিয়ার বিদেশমন্ত্রী মারিস পেইন বলেন, “আফগানিস্তান নিয়ে ভারতের পাশাপাশি আমরাও উদ্বেগে রয়েছি। ভারতের মতোই আমরাও মনে করি আফগানিস্তানকে কখনই সন্ত্রাসবাদীদের স্বর্গরাজ্য হতে দেওয়া যাবে না। আফগানিস্তানকে সন্ত্রাসবাদীদের উৎসস্থল ও তাদের প্রশিক্ষণের জন্য নিরাপদ আশ্রয়স্থল হতে দেওয়া যাবে না। এটি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের জন্যও স্থায়ীভাবে উদ্বেগের কারণ।” মানবাধিকার নিয়ে কাজ করা সংগঠনগুলিকে আফগানিস্তানের বর্তমান পরিস্থিতির দিকে নজর দেওয়ারও আবেদন জানিয়েছেন অজি বিদেশমন্ত্রী।

অন্যদিকে, আফগানিস্তানে সন্ত্রাসবাদীদের বাড়বাড়ন্ত নিয়ে বরাবরই উদ্বেগে রয়েছে ভারত। বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর বলেন, ”আফগানিস্তানের মাটি সন্ত্রাসবাদের জন্য যে কোনওভাবে ব্যবহার করতে দেওয়া উচিত নয়।” এদিকে, আফগানিস্তানে তালিবান যোদ্ধাদের অত্যাচার জারি রয়েছে। তালিবানি শাসনের বিরুদ্ধে ফি দিন কাবুলের রাস্তায় শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ-বিক্ষোভ চলছে। পুরুষদের পাশাপাশি নারীরাও সেই বিক্ষোভে সামিল হচ্ছেন। বিক্ষোভ সামলাতে চাবুক পেটা করতে দেখা যাচ্ছে তালিবানি যোদ্ধাদের। কখনও গুলি ছুঁড়ে বিক্ষোভ তোলার চেষ্টা জঙ্গিদের।

আরও পড়ুন- পদ্ম ‘মডেল’ গুজরাটের পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী বাছতে ২ পর্যবেক্ষক নিয়োগ, আজই নাম ঘোষণা

গোটা আফগানিস্তান-জুড়েই এখন একই ছবি। আফগান মুলুকের এই পরিস্থিতিতে উদ্বেগে রয়েছে রাষ্ট্রসংঘও। রাষ্ট্রসংঘের মানবাধিকার রক্ষা শাখার তরফে একটি বিবৃতি জারি করা হয়েছে। সেই বিবৃতিতে আফগানিস্তানে মানবাধিকার রক্ষার দাবিতে লড়াই করা মানুষজনের কথা শোনার দাবি জানানো হয়েছে। ইতিমধ্যেই আফগানিস্তানের বিভিন্ন প্রান্তে চলা সরকার-বিরোধী সব বিক্ষোভকে বেআইনি বলে ঘোষণা করেছে তালিবান। তালিবানিদের এই সিদ্ধান্ত অত্যন্ত বিপজ্জনক ইঙ্গিত বলেই মনে করে রাষ্ট্রসংঘ।

Read full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Cant let afghanistan become terror safe haven says india australia