scorecardresearch

বড় খবর

ভারতের ‘নিরাপত্তা ও সার্বভৌমত্বের’ পক্ষে ক্ষতিকর, TRF-কে নিষিদ্ধ করল কেন্দ্র

TRF অনলাইন মাধ্যমে যুবকদের সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপে নিয়োগ করছে

ভারতের ‘নিরাপত্তা ও সার্বভৌমত্বের’ পক্ষে ক্ষতিকর, TRF-কে নিষিদ্ধ করল কেন্দ্র

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক TRF কে সন্ত্রাসবাদী সংগঠন হিসাবে ঘোষণা করেছে। জম্মু ও কাশ্মীরে একজন সাংবাদিককে হুমকি দেওয়ার তিন মাস পরে, লস্কর-ই-তৈবা (এলইটি) এর সহযোগী সংগঠন দ্য রেজিস্ট্যান্স ফ্রন্ট (টিআরএফ) কে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক সন্ত্রাসবাদী সংগঠন হিসাবে ঘোষণা করেছে। বৃহস্পতিবার (৫ জানুয়ারি), স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক সংগঠনকে বেআইনি কার্যকলাপ (প্রতিরোধ), সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপ, সন্ত্রাসবাদী নিয়োগ, জঙ্গি অনুপ্রবেশ এবং পাকিস্তান থেকে জম্মু ও কাশ্মীরে অস্ত্র ও গোলাবারুদ পাচারের অভিযোগে কালো তালিকাভুক্ত করেছে। পাশাপাশি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক TRF কে সন্ত্রাসবাদী সংগঠন হিসাবে ঘোষণা করেছে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের জারি করা বিজ্ঞপ্তি অনুসারে, টিআরএফ ২০১৯ সালে একটি নিষিদ্ধ সন্ত্রাসী সংগঠন লস্কর-ই-তৈয়বার একটি সহযোগী সংগঠন হিসাবে সামনে আসে। একাধিক সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপের সঙ্গে সংগঠন জড়িত বলেও উল্লেখ করা হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, “TRF অনলাইন মাধ্যমে যুবকদের সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপে নিয়োগ করছে, পাশাপাশি অনুপ্রবেশ এবং পাকিস্তান থেকে জম্মু ও কাশ্মীরে অস্ত্র ও মাদক চোরাচালানের সঙ্গেও সংগঠনের যোগাযোগের প্রমাণ মিলেছে।

এমএইচএ দ্বারা জারি করা বিজ্ঞপ্তি অনুসারে, টিআরএফ কমান্ডার শেখ সাজ্জাদ গুলকে ইউএপিএর চতুর্থ তালিকার অধীনে সন্ত্রাসবাদী হিসাবে ঘোষণা করা হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, “TRF-এর কার্যকলাপ ভারতের নিরাপত্তা ও সার্বভৌমত্বের পক্ষে ক্ষতিকর। জম্মু ও কাশ্মীরে মোতায়েন নিরাপত্তা কর্মী এবং সাধারণ নাগরিকদের হত্যার ষড়যন্ত্র, নিষিদ্ধ সন্ত্রাসবাদী সংগঠনকে সমর্থন, অস্ত্র ও গোলাবারুদ সরবরাহ সংক্রান্ত যাবতীয় সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপের সঙ্গে TRF-এর সক্রিয় যোগাযোগ রয়েছে। এবং সংগঠনের মানে একাধিক মামলা নথিভুক্ত করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: [ দুই মহিলার ‘হাড্ডাহাডি লড়াই’, আজই নতুন মেয়র পেতে চলেছে দিল্লি MCD ]

একই সঙ্গে সংগঠনের বিরুদ্ধে উপত্যকার কিছু মিডিয়া প্রতিষ্ঠানকে হুমকির অভিযোগও সামনে আসে, যার পরে বেশ কয়েকজন সাংবাদিক তাদের প্রতিষ্ঠান থেকে পদত্যাগ করেছিলেন। জম্মু ও কাশ্মীরের ডিজিপি দিলবাগ সিং ২০২০ সালে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে জানিয়েছিলেন, যে TRF করাচি থেকে পরিচালিত একটি সোশ্যাল মিডিয়া অপারেশন শুরু করে। যখন এই সন্ত্রাসবাদীরা অনলাইনে ভার্চুয়াল সমর্থন পায় এবং এতে তারা বিপুল সংখ্যক যুবকের উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায় এবং তারপরে তারা বিপুল সংখ্যক যুবককে নিয়োগ করে সন্ত্রাসবাদী কর্মকাণ্ডে

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Centre declares trf terrorist organisation