scorecardresearch

বড় খবর

জানুয়ারিতেই করোনা বিস্ফোরণ ভারতে? চূড়ান্ত বিপদের আভাস দিয়ে সতর্ক থাকার বার্তা

এদিকে, বিশেষজ্ঞরা বলছেন যে ভারতে এখনই চতুর্থ ডোজের প্রয়োজন নেই।

জানুয়ারিতেই করোনা বিস্ফোরণ ভারতে? চূড়ান্ত বিপদের আভাস দিয়ে সতর্ক থাকার বার্তা
চিন সহ পাঁচটি দেশ থেকে আগত যাত্রীদের জন্য আরটি-পিসিআর পরীক্ষা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

ভারতসহ সারা বিশ্বে করোনার আতঙ্কের মধ্যেই সামনে আসছে এক বড় তথ্য। দাবি করা হচ্ছে যে জানুয়ারিতে ভারতে কোভিড-এর সংখ্যা দ্রুত বাড়তে পারে। এমন পরিস্থিতিতে আগামী ৪০ দিন ভারতের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। সরকারি সূত্র এ তথ্য দিয়ে জানিয়েছে আগামী ৪০ দিন সতর্ক না থাকলেই ফের আরও একটা কোভিড ঢেউ আছড়ে পড়তে পারে ভারতে।  

চিন ও দক্ষিণ কোরিয়াসহ কয়েকটি দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দ্রুত বাড়ছে। এদিকে সতর্ক হয়ে উঠেছে কেন্দ্রীয় সরকার। রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে যে কোনও পরিস্থিতি মোকাবেলায় প্রস্তুতি নিতে বলা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং স্বাস্থ্যমন্ত্রী মনসুখ মান্ডাভিয়াও করোনার পরিস্থিতি মোকাবিলায় প্রস্তুতির পর্যালোচনা করার জন্য বৈঠক করেছেন। সাম্প্রতিক কোভিড বৃদ্ধির কারণ হল BF.7 এর দাপট। সরকারি সূত্র জানিয়েছে যে BF.7 এর বিস্তারের হার খুব বেশি এবং একজন সংক্রামিত ব্যক্তি ১৬ জনকে সংক্রামিত করতে পারে।

এদিকে, বিশেষজ্ঞরা বলছেন যে ভারতে এখনই চতুর্থ ডোজের প্রয়োজন নেই। অ্যান্টি-কোভিড ভ্যাকসিনের চতুর্থ ডোজ এই সময়ে অপ্রয়োজনীয়, কারণ দেশের বেশিরভাগ মানুষ এখনও তৃতীয় ডোজ বা বুস্টার ডোজ পাননি। এছাড়াও, ভারতে, বিপুল সংখ্যক মানুষ ইতিমধ্যেই কোভিডে আক্রান্ত হয়েছেন। তাদেরও ইতিমধ্যেই টিকা দেওয়া হয়েছে, তাই পরিস্থিতি সম্পূর্ণ ভিন্ন।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Centre sounds covid alert need for caution uptick likely in january