বড় খবর

‘বিদ্যুৎ সংকট দেখেও চোখ বন্ধ রেখেছে কেন্দ্র’, তোপ সিশোদিয়ার

দিল্লিতে বিদ্যুৎ সংকট নেই বলে মন্তব্য করেছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী আরকে সিং।

Centre turning blind eye to impending power crisis in the country, says Deputy CM Sisodia
দিল্লির উপ মুখ্যমন্ত্রীর নিশানায় কেন্দ্রীয় বিদ্যুৎমন্ত্রী।

দিল্লিতে বিদ্যুৎ সংকট নিয়ে এবার কেন্দ্রকে নিশানা করলেন উপ-মুখ্যমন্ত্রী মণীশ সিশোদিয়া। তাঁর কথায়, ‘বিদ্যুৎ সংকট দেখেও চোখ ফেরাচ্ছে কেন্দ্র।’ রবিবারই রাজধানীর বিদ্যুৎ সংকট নিয়ে মুখ খুলে বিতর্ক বাড়িয়েছিলেন কেন্দ্রীয় বিদ্যুৎ মন্ত্রী আরকে সিং। দিল্লিতে বিদ্যুৎ সংকট নেই বলে মন্তব্য করেছিলেন তিনি। কেন্দ্রীয় বিদ্যুৎমন্ত্রীর এহেন বক্তব্যে বেজায় চটেছেন দিল্লির উপ মুখ্যমন্ত্রী।

দিল্লির বিদ্যুৎমন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈনের আশঙ্কা, আগামী দিনে ব্যাপক বিদ্যুৎ সংকটের মুখে পড়তে পারে রাজধানী। এমনকী ব্ল্যাক আউটেরও আশঙ্কা করেন জৈন। কয়লার জোগান কম থাকাই এই পরিস্থিতির জন্য দায়ী বলে জানান দিল্লির বিদ্যুৎমন্ত্রী। যদিও কেন্দ্রীয় বিদ্যুৎমন্ত্রী রবিবার মন্ত্রকের আধিকারিক, সচিব এবং বিদ্যুৎ বন্টন সংস্থাগুলির সঙ্গে বৈঠক করেন। তারপর তিনি জানান, দিল্লিতে বিদ্যুৎ সংকট নেই। তবুও খনি এবং কয়লা মন্ত্রকের সঙ্গে যোগাযোগ রেখে চলা হচ্ছে বলেও তিনি জানান।

খোদ কেন্দ্রীয় বিদ্যুৎমন্ত্রীর এই বক্তব্যে চটেছেন দিল্লির উপ-মুখ্যমন্ত্রী মণীশ সিশোদিয়া। কেন্দ্রকে বিঁধে তাঁর পাল্টা তোপ, ‘রাজ্য সরকার উদ্বেগ প্রকাশ করলেও কেন্দ্র আসন্ন বিদ্যুৎ সংকটের দিকে চোখ বন্ধ করে রেখেছে।’ এদিকে, দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল রাজধানীতে বিদ্যুৎ সংকটের আশঙ্কা করে ইতিমধ্যেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি লিখে তাঁর হস্তক্ষেপ চেয়েছেন। তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রগুলিতে কয়লার স্বল্পতার বিষয়টিও তিনি চিঠিতে উল্লেখ করেছেন। অন্যদিকে, বিদ্যুৎ মন্ত্রকও দিল্লির সরকারকে আশ্বস্ত করেছে। বিবৃতি জারি করে বিদ্যুৎ মন্ত্রক জানিয়েছে, দিল্লির বিদ্যুতের চাহিদা পূরণ করা হবে। শহরে গ্যাস ভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র চালানোর জন্য গ্যাস সরবরাহের ক্ষেত্রে কোনও ঘাটতি হবে না।

বিবৃতিতে আরও জানানো হয়েছে, “কয়লামন্ত্রক ও কোল ইন্ডিয়া আশ্বস্ত করেছে। বিদ্যুৎকেন্দ্রগুলির চাহিদা মেটাতে দেশে পর্যাপ্ত কয়লা রয়েছে। দিল্লির বিদ্যুৎ বণ্টন কোম্পানিগুলি যতটা বিদ্যুৎ চাইবে ততটাই মিলবে। এমনই নির্দেশ দিয়েছেন মন্ত্রী (আর কে সিং)। এনটিপিসি এবং ডিভিসিকে-ও ডিসকমের প্রয়োজনীয়তা অনুযায়ী সম্পূর্ণ প্রাপ্যতা দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। গেইল ইন্ডিয়া লিমিটেডকে সব উৎস থেকে গ্যাস সরবরাহ করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।”

এদিকে, দিল্লির উপ-মুখ্যমন্ত্রী মণীশ সিশোদিয়া জানান গত ৩-৪ দিন ধরে বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা কয়লার জোগানের অপ্রতুলতার কথা জানিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারকে সতর্ক করেছে। কয়লার জোগান কম থাকার উল্লেখ করে রাজ্যে-রাজ্যে বিদ্যুৎ সংকটের মতো পরিস্থিতি তৈরির আশঙ্কার কথা জানানো হয় কেন্দ্রকে। যদিও খোদ কেন্দ্রীয় মন্ত্রীই এই আশঙ্কা উড়িয়েছেন। সিশোদিয়া বলেন “কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বলছেন, পরিস্থিতি এখনই উদ্বেগজনক জায়গায় পৌঁছয়নি। এটা গুজব।”

আরও পড়ুন- লাগাতার দাম-বৃদ্ধি, পরপর সাত দিন দাম বাড়ল পেট্রোল-ডিজেলের

কেন্দ্রীয় বিদ্যুৎমন্ত্রীকে নিশানা করে সিশোদিয়া আরও বলেন, “বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা বিদ্যুৎ সংকটের পরিস্থিতির কথা জানালে তাঁদের সমালোচনা করা হচ্ছে। এটা পরিস্কার হচ্ছে, যে বিজেপি শাসিত কেন্দ্রীয় সরকার পরিস্থিতি থেকে পালানোর চেষ্টা করছে। দিল্লিতে অক্সিজেনের চরম সংকট দেখা দেওয়ার সময়েও এমনই একটি পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল। দিল্লিতে অক্সিজেনের সংকটের কথা চিকিৎসক, রোগী, রোগীর আত্মীয় থেকে শুরু করে সবাই বললেও ওরা মজা করেছিল। আমরা দেখেছি পরবর্তী সময়ে পরিস্থিতি কী আকার নিয়েছিল।”

Read full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and General news here. You can also read all the General news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Centre turning blind eye to impending power crisis in the country says deputy cm sisodia

Next Story
ড্রাগ চক্রের গভীরে তাঁর কান! মাদক সেবনে বলিউডের কাছে আতঙ্ক সমীর ওয়াংখেড়েSameer Wankhede, Kranti Redkar, NCB, NCB officer, Bollywood, Arya Khan, সমীর ওয়াংখেড়ে, এনসিবি অফিসার সমার, আরিয়ান খান, bengali news today
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com