চিন-পাকিস্তানের যৌথ ‘কাশ্মীর’ বিবৃতি, জিনপিংয়ের সফরের মুখে কড়া বার্তা ভারতের

সরকারি সূত্রে খবর, চেন্নাইয়ে ঘরোয়া বৈঠকে আগ বাড়িয়ে জিনপিংয়ের কাছে কাশ্মীর ইস্যু তুলবে না ভারত। তবে যদি জিনপিং নিজে থেকে এ প্রসঙ্গ তোলেন, তখন এ ব্যাপারে ভারত তার অবস্থানের কথা জানাবে।

By: Shubhajit Roy, Sowmiya Ashok New Delhi  October 10, 2019, 9:55:18 AM

চিনা প্রেসিডেন্টের ভারত সফরের মুখে কাশ্মীর ইস্যুতে নিজেদের অবস্থানের কথা স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দিল ভারত। কাশ্মীর ভারতের আভ্যন্তরীণ বিষয়, তাই এ ব্যাপারে অন্য দেশের নাক গলানোর দরকার নেই, কার্যত এ ভাষাতেই চিনকে বার্তা দিল নয়া দিল্লি। উল্লেখ্য, ১১ ও ১২ অক্টোবর ভারত সফরে আসছেন চিনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। এর ঠিক আগে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন জিনপিং। ওই বৈঠকে কাশ্মীর প্রসঙ্গ তোলা হয়। এতেই তীব্র আপত্তি জানিয়ে অমন বার্তা দেয় ভারত।

সরকারি সূত্রে খবর, চেন্নাইয়ে ঘরোয়া বৈঠকে আগ বাড়িয়ে জিনপিংয়ের কাছে কাশ্মীর ইস্যু তুলবে না ভারত। তবে যদি জিনপিং নিজে থেকে এ প্রসঙ্গ তোলেন, তখন এ ব্যাপারে ভারত তার অবস্থানের কথা জানাবে। এ প্রসঙ্গে বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র রাভিশ কুমার বলেন, ভারতের অবস্থান বরাবরই স্পষ্ট। জম্মু-কাশ্মীর ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ। চিন ভাল করেই ভারতের এই অবস্থান সম্পর্কে অবগত। ভারতের আভ্যন্তরীণ বিষয় নিয়ে মন্তব্য করা অন্য দেশের কাজ নয়।

আরও পড়ুন: ‘কর সন্ত্রস্ত করবেন না’, রাজনাথকে আর্জি রাফালের ইঞ্জিন নির্মাণকারী সংস্থার

উল্লেখ্য, চিন ও পাকিস্তানের যৌথ বিবৃতিতে কাশ্মীর প্রসঙ্গ তোলা হয়। যেখানে বলা হয়, জম্মু-কাশ্মীর পরিস্থিতি নিয়ে পাকিস্তানের পক্ষ থেকে চিনকে জানানো হয়েছে। এই প্রেক্ষিতে জম্মু-কাশ্মীর পরিস্থিতির উপর নজর রাখছে চিন। কাশ্মীর ইস্যু যথাযথ ও শান্তিপূর্ণ ভাবে সমাধান করার কথা বলা হয়েছে যৌথ বিবৃতিতে। এর আগে কাশ্মীর নিয়ে ভারতের সিদ্ধান্তের সমালোচনা করেছিল ড্রাগনের দেশ। রাষ্ট্রসংঘের সাধারণ সভায় এ নিয়ে সরব হয়েছিলেন চিনের বিদেশমন্ত্রী।

এদিকে, ২০১৮ সালের উহান সম্মেলনের পর এ নিয়ে দ্বিতীয় বার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে ঘরোয়া বৈঠক করতে চলেছেন চিনা প্রেসিডেন্ট। ১১-১২ অক্টোবর চেন্নাইয়ে মোদীর সঙ্গে ঘরোয়া বৈঠকে অংশ নেবেন জিনপিং। চিনা প্রেসিডেন্টের ভারত সফর প্রসঙ্গে ভারতের বিদেশমন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, ‘‘চেন্নাইয়ে ঘরোয়া বৈঠকে দুই দেশের রাষ্ট্রনেতা মুখোমুখি হবেন। ভারত-চিন দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক নিয়ে মোদী-জিনপিংয়ের আলোচনা হবে। দু’দেশের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক তরান্বিত করা নিয়ে আলোচনা করা হবে’’। উল্লেখ্য, সম্মেলনের দু’দিন আগে ঘরোয়া বৈঠকের কথা ঘোষণা করা হল। এর আগে, গত বছর ইনফর্মাল সামিটের ৫ দিন আগে ঘোষণা করা হয়েছিল।

Read the full story in English

Get all the Latest Bengali News and West Bengal News at Indian Express Bangla. You can also catch all the General News in Bangla by following us on Twitter and Facebook

Web Title:

Chinese president xi jinping pm modi china and pakistan raise kashmir india

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com.
Advertisement

ট্রেন্ডিং
শাহী সফরের আগেই 
X