বড় খবর

স্থানীয় শাটডাউনেই সাফল্য, করোনা সংক্রমণ রোধে কেন্দ্রের নজরে ‘আগ্রা মডেল’

দেশজুড়ে করোনার বাড়বাড়ন্ত। স্থানীয় সংক্রমণের হদিশ মিলেছে। যা রোধে ‘ভিলওয়ারা’র পর কেন্দ্রের উদাহরণ ‘আগ্রা’।

করোনার জেরে বন্ধ তাজমহল।

স্থানীয়ভাবে করোনা সংক্রমণ রোধে ‘আগ্রা মডেলকেই’ তুলে ধরছে  মোদী সরকার। ভাইরাস মোকাবিলায় আগ্রাকে এখন নিরাপত্তা বেষ্টনীতে মুড়ে ফেলা হয়েছে। তৈরি হয়েছে কন্ট্রোল রুম, আক্রান্তদের চিহ্নিত করে সেইসব এলাকা সিল করে চলছে স্ক্রিনিং এবং র‍্যাপিড পরীক্ষা। এছাড়া, মানুষের সুবিধার কথা মাথায় রেখে তৈরি হয়েছে স্পেশাল ম্যানেজমেন্ট টিম। এই টিমের সদস্যরাই স্থানীয়দের হাতে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস পৌঁছে দিচ্ছেন। শনিবার করোনা সংক্রান্ত স্বাস্থ্যমন্ত্রকের ব্রিফিংয়েও আগ্রার এই করোনা নিয়ন্ত্রণ পদ্ধতির কথা তুলে ধরা হয়। স্থানীয় সংক্রমণ বিস্তার বন্ধ করতে বিভিন্ন রাজ্যকে এই মডেল মেনে চলার আবেদন করেন মন্ত্রকের যুগ্ম সচিব লভ আগারওয়াল।

কী এই ‘আগ্রা মডেল’
ইন্টিগ্রেটেড ডিজিজ সার্ভিল্যান্স প্রোগ্রামের সাথে যুক্ত এক প্রবীণ আধিকারিক জানান, করোনা আক্রান্তের খবর জানতে পেরেই প্রশাসন সক্রিয় হয়। আক্রান্তদের চিহ্নিত করে তাদের বাড়ির চারপাশের ৩ কিলোমিটার পর্যন্ত সিল করে দেওয়া হয়। দু’জন সদস্যের সমন্বয়ে ২৫৯ দল গঠন করা হয়েছিল। পরবর্তী করয়েকদিনের মধ্যেই ১ লাখ ৬৩ হাজার মানুষের কাছে পৌঁছে যায় ওই দল। এস এন মেডিক্যাল কলেজে প্রায় হাজার জনের নমুনা পরীক্ষা হয়। ঘরবন্দি পরিবারগুলোর কাছে নিরাপত্তা বাহিনীর সহায়তায় নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস পৌঁছে দেওয়া হত। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখার ফলে ভাইরাস ছড়ানো রোধ করা সম্ভব হয়।

কোভিড-১৯ মোকাবিলায় আগামী দু’সপ্তাহ লকডাউনের পথে কেন্দ্র। দেশজুড়ে বেশ কয়েকটি জায়গাকে হটস্পট চিহ্নিত করা হয়েছে। ওই সব জায়গায় ‘আগ্রা মডেল’ প্রয়োগের পক্ষপাতী কেন্দ্র। অর্থাৎ, এলাকা সিল করে সামাজিক দূরত্ব বাড়ানো ও ব়্যানডাম পরীক্ষা করে করোনা নির্মূল করতে উদ্যোগী প্রশাসন। এক্ষেত্রে পাঁচ কিলোমিটার পর্যন্ত বাফার এলাকা রাখারও পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। অর্থাৎ প্রয়োজন ছাড়া হটস্পটের তিন কিলোমমিটারের বাইরে পাঁচ কিমি পর্যন্ত কাউকে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না।

এতদিন সংক্রমণ রোধে রাজস্থানের ভিলওয়ারা মডেলই ছিল কেন্দ্রীয় মডেল। দেশের প্রথম দশটি করোনা হটস্পটের অন্যতম ছিল এই ভিলওয়ারা। এখানে ত্রিমুখী নিয়ন্ত্রণ নীতি প্রয়োগের ফলে সুফল পাওয়া গিয়েছে। জেলাটিকে বিচ্ছিন্ন করা, নগর ও গ্রামীণ এলাকায় কড়া স্ক্রিনিং নীতি চালু করা এবং গ্রামাঞ্চলে সমীক্ষা ও পরীক্ষা চালানোর পরে কোয়ারেন্টাইন ও আইসোলেশন ওয়ার্ড তৈরি করে তাতে আক্রান্তদের সীমাবদ্ধ করা। এই সাফল্যের কারণেই সরকার ওই নিয়ন্ত্রণ প্রক্রিয়ার নামকরণ করে ভিলওয়ারা মডেল।

আরও পড়ুন- Live: দেশে করোনা আক্রান্ত ৮৩৫৬-মৃত ২৭৩, মৃত্যুর সংখ্যায় ইটালিকে টপকে গেল আমেরিকা

দেশের পর্যটনের অন্যতম শহর তাজমহল খ্যাত আগ্রা। দুই অস্ট্রেলিয়র সঙ্গে ঘোরাফেরায় ফলে দিল্লির ময়ুরভঞ্জের দু’জন করোনা সংক্রমণের শিকার হন। পরে তারা আগ্রায় নিজেদের বাড়ি ফিরে আসেন। এরপরই আগ্রা শহরে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ে। রাতারাতি আক্রান্ত হন ৬ জন।

Read in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and General news here. You can also read all the General news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Corona containment centre showcases agra model

Next Story
Corona Lockdown Situation Updates: করোনা মোকাবিলা করতে ভারতে তৈরি হচ্ছে ৪০টি ভ্যাকসিনcorona, করোনা
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com