scorecardresearch

বড় খবর

মিলল না জামিন, অসম পুলিশের হেফাজতে আরও পাঁচ দিন জিগনেশ

মেওয়ানি গুজরাটের বানসকণ্ঠ জেলা থেকে গ্রেফতারের পরদিন ২১ এপ্রিল, বরপেটা রোড থানায় একটি অভিযোগ দায়ের হয়। অভিযোগটি করেছেন কোকরাঝাড় পুলিশের এক মহিলা পুলিশ ইনস্পেক্টর।

Jignesh_Mevani

জামিন পেলেন না দলিত আন্দোলনের নেতা, গুজরাতের জিগনেশ মেওয়ানি। বরপেটা জেলা আদালত মঙ্গলবার জিগনেশের জামিনের আবেদন খারিজ করে দিল। আরও পাঁচ দিন তাঁকে জেলেই কাটাতে হবে। সোমবারই জিগনেশকে জামিন দিয়েছিল কোকরাঝাড়ের আদালত। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে অবমাননাকর টুইটের অভিযোগে তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। কিন্তু, সেই আনন্দ বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি।

অন্য মামলায় মেওয়ানিকে ফের গ্রেফতার করে বরপেটা জেলা পুলিশ। তাঁর বিরুদ্ধে পুলিশকর্মীদের কাজে বাধাদান, নিগ্রহ, মহিলাদের সম্ভ্রম নষ্ট-সহ বিভিন্ন ধারায় বরপেটা পুলিশ মামলা দায়ের করেছে। মেওয়ানির আইনজীবী অংশুমান বরা আশা প্রকাশ করেছিলেন, তাঁর মক্কেল মঙ্গলবারই জামিন পাবে। কিন্তু, তা খারিজ হতে এখন উচ্চ আদালতে যাওয়ার কথা জানিয়েছেন। দিন কয়েকের মধ্যেই তাঁরা গুয়াহাটি হাইকোর্টে মেওয়ানির জামিনের আবেদন জানাবেন বলে জানিয়েছেন অংশুমান।

মেওয়ানি গুজরাটের বানসকণ্ঠ জেলা থেকে গ্রেফতারের পরদিন ২১ এপ্রিল, বরপেটা রোড থানায় একটি অভিযোগ দায়ের হয়। অভিযোগটি করেছেন কোকরাঝাড় পুলিশের এক মহিলা পুলিশ ইনস্পেক্টর। মেওয়ানির বিরুদ্ধে ওই ইনস্পেক্টর ২৯৪ ধারায় প্রকাশ্যে অশ্লীল কার্যকলাপ চালানো, ৩২৩ ধারায় ইচ্ছাকৃতভাবে আঘাতের চেষ্টা, ৩৫৩ ধারায় সরকারি কর্মীদের কাজে বাধাদানের জন্য জোর খাটানো, ৩৫৪ ধারায় মহিলাদের সম্ভ্রমহানির অভিযোগ দায়ের করেছেন। তার প্রেক্ষিতেই গুজরাটের বিধায়ককে ফের গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বরপেটার পুলিশ সুপার অমিতাভ সিনহা।

আরও পড়ুন- সিএএ-র প্রশংসায় শাহর মন্ত্রক, নাগরিকত্ব হরণ নয় দেওয়ার জন্যই সিএএ, দাবি রিপোর্টে

ওই ইনস্পেক্টরের অভিযোগ, মেওয়ানি তাঁর বিরুদ্ধে অশ্লীল ভাষা প্রয়োগ করেছেন। তাঁকে ধাক্কা মেরেছেন। গুয়াহাটি বিমানবন্দর থেকে কোকড়াঝাড় আসার পথে ২১ এপ্রিল ঘটনাটি ঘটেছে। বরপেটা জেলায় সিমলাগুড়ির কাছে গাড়ির মধ্যে ঘটনাটি ঘটেছে বলে ওই মহিলা ইনস্পেক্টর অভিযোগ করেছেন। কোকরাঝাড়ের অতিরিক্ত পুলিস সুপার (সদর) সুরজিৎ সিং পানেসার-সহ দুই পুলিশ আধিকারিক ঘটনার সময় গাড়িতে ছিলেন। তাঁরা এই ঘটনার সাক্ষী বলেই দাবি করেছেন ওই মহিলা পুলিশ ইনস্পেক্টর।

নির্দল বিধায়ক মেওয়ানি গত সেপ্টেম্বরে কংগ্রেসকে সমর্থন করেছেন। তিনি নরেন্দ্র মোদীর সম্পর্কে টুইট করেছিলেন যে মোদী, ‘গডসেকে গড বলে মনে করেন।’ তার প্রেক্ষিতেই মেওয়ানির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন অসমের এক বিজেপি বিধায়ক। সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই ২০ এপ্রিল গুজরাত থেকে মেওয়ানিকে গ্রেফতার করে অসম পুলিশ।

Read story in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Court rejects jigneshmevanis bail plea remands him in five day police custody