scorecardresearch

বড় খবর

‘তৃতীয় ঢেউ আসছেই! বেড়ানো-তীর্থযাত্রা বন্ধ করুন’, নাগরিকদের সতর্কবার্তা চিকিৎসক সংগঠনের

Covid Third Wave: ‘টিকাকরণ ছাড়া জনসমাবেশে অনুমতি দেওয়া হলে, তা তৃতীয় ঢেউকে নিশ্চিত ভাবে ত্বরাণ্বিত করবে।’

covid, hill station, corona Daily cases
মানালিতে পর্যটকদের ভিড়।

IMA on Third Wave: গবেষক-চিকিৎসকদের দাবির সমর্থনে এবার এগিয়ে আসল ইন্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন বা আইএমএ। সোমবার তারা দাবি করেছে, দেশে তৃতীয় ঢেউ অনিবার্য। এই বার্তা দিয়েই কেন্দ্র ও রাজ্যগুলোকে সতর্ক করল এই চিকিৎসক সংগঠন। পাশাপাশি করোনাবিধি শিথিল হতেই একাধিক পর্যটনস্থলে পর্যটকদের মধ্যে বেপরোয়া মনোভাব দেখা গিয়েছে। সেই বিষয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করেছে তারা।

এদিন রীতিমতো প্রেস বিবৃতি জারি করে আইএমএ বলেছে, ‘গোটা বিশ্বের পরিস্থিতি এবং অতিমারির ইতিহাস ঘাঁটলেই দেখা যাবে, কোভিডের তৃতীয় ঢেউ অনিবার্য। কেউ তা  আটকাতে পারবে না। এই পরিস্থিতিতে দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে এমন ছবি উঠে এসেছে, দেখা যাচ্ছে, কোভিড বিধি না মেনেই রাস্তাঘাটে বেরিয়ে পড়ছেন সাধারণ মানুষ। সে ব্যাপারে কোনও রকম সরকারি পদক্ষেপ নেই।’

তাদের পরামর্শ, ‘ঘুরতে যাওয়া, তীর্থযাত্রা, ধর্মীয় সমাবেশ— সবই জরুরি। কিন্তু এসবের জন্য আরও কয়েকটি মাস অপেক্ষা করাই যায়। টিকাকরণ ছাড়া জনসমাবেশে অনুমতি দেওয়া হলে, তা তৃতীয় ঢেউকে নিশ্চিত ভাবে ত্বরাণ্বিত করবে। আগামী দু-তিন মাসের মধ্যেই তা আছড়ে পড়বে। এই সময়ে আমাদের আরও সচেতন হওয়া জরুরি।’

এদিকে, রথের রশিতে টানের দিনে পুরীতে নেই ভক্ত সমাগম। করোনা পরিস্থিতিতে শুধু সেবাইতরা টানেন রথ রশি। এবার পুরীর রথযাত্রায় অংশ নিয়েছেন ৩ হাজার সেবায়েত ও ১ হাজার কর্মী। রথযাত্রায় অংশ নেওয়ার জন্য প্রত্যেকের আরটি-পিসিআর টেস্টের নেগেটিভ রিপোর্ট ও ভ্যাকসিনেশন সার্টিফিকেট থাকা বাধ্যতামূলক করা হয়। নিরাপত্তাও জোরদার। রবিবার রাত ৮টা থেকে মঙ্গলবার রাত ৮টা পর্যন্ত পুরীতে জারি রয়েছে কার্ফু।

অপরদিকে, দেশের কোভিড গ্রাফে স্বস্তি। আবারও দৈনিক সংত্রমণের হার নামল ৪০ হাজারের নিচে। স্বাস্থ্যমন্ত্রক প্রকাশিত পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৭ হাজার ১৫৪ জন। নিম্নমুখী অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যাও। বর্তমানে দেশে অ্যাকটিভ করোনা রোগী রয়েছেন ৪ লক্ষ ৫০ হাজার ৮৯৯ জন। কোভিডকে হারিয়ে একদিনে সুস্থ হয়েছেন ৩৯ হাজার ৬৪৯ জন। রবিবার করোনায় প্রাণ গিয়েছে ৭২৪ জনের।

ইতিমধ্যেই ভারতে করোনার ডেল্টা, ডেল্টা প্লাস, বিটা, কাপ্পা প্রজাতীর সংক্রমণ ঘটেছে। তৃতীয় ঢেউ-ও আসন্ন বলে সতর্ক করেছেন বিশেষজ্ঞরা। এই পরিস্থিতিতে দেশের করোনা পরিস্থিতি কিছুটা হলেও স্বস্তিদায়ক। এখনও পর্যন্ত ভারতে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৩ কোটি ৮ লক্ষ ৭৪ হাজার ৩৭৬ জন। মোট করোনাজয়ীর সংখ্যা ৩ কোটি ১৪ হাজার ৭১৩ জন। সুস্থতার হার ৯৭.২২ শতাংশ। করোনার জেরে মৃত্যু হয়েছে ৪ লক্ষ ৮ হাজার ৭৬৪ জনের।

 

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Covid third wave is obvious stop travelling and pilgrimage says ima national