বড় খবর

রেকর্ড আরনট ভ্যালু, দেশে সংক্রমণ শিখর ছোঁবে ১-১৫ ফেব্রুয়ারি: আইআইটি মাদ্রাজ

গত ২৪ ঘন্টায় করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা ১ লাখ ৪১ হাজার ৯৮৬ জন। মোট ওমিক্রন আক্রান্তের সংখ্যা ৩ হাজার ৭১ জন।

Covid19 peak expected between Feb 1-15 IIT Madras
জোরকদমে চলছে নমুনা পরীক্ষার কাজ। ছবি শশী ঘোষ

কোভিডের আরনট ভ্যালুর (আরনট ভ্যালু মানে একজন ব্যক্তি কতজনকে সংক্রামিত করতে পারেন।) মাধ্যেমেই সংক্রমণের ব্যপকতা বোঝা যায়। মতুন বছরের প্রথম ৬ দিনে দেশে করোনার আরনট ভ্যালু ৪ স্পর্শ করেছে। ফলে চিন্তা চড়চড়িয়ে বাড়ছে। এই প্রেক্ষাপটে মাদ্রাজ আইআইটি-র বিশ্লেষণে উঠে এসেছে যে, ভারতে ফেব্রুয়ারির ১-১৫-এর মধ্যে সংক্রমণের হার সর্বোচ্চ শিখর ছোঁবে।

একজন কোভিড আক্রান্ত ব্যক্তি কতজনকে সংক্রামিত করতে পারেন- তা বোঝা যায় আরনট ভ্যালুতে। মহামারির শেষের শুরুর ইঙ্গিত মেলে আরনটের হার ১-এর নিচে নামলে। আইআইটি মাদ্রাজের কম্পিউটেশনাল মডেলিংয়ের প্রাথমিক বিশ্লেষণের ভিত্তিতে, গত সপ্তাহে (ডিসেম্বর ২৫ থেকে ৩১ ডিসেম্বর) দেশব্যাপী আরও (RO) মান ২.৯-এর কাছাকাছি ছিল। এই সপ্তাহে (১-৬ জানুয়ারি) সংখ্যাটি রেকর্ড গড়ে পৌঁছে গিয়েছে ৪-এ।

আরও পড়ুন- প্রকাশিত রিপোর্টের চেয়ে ৬ গুণ বেশি হতে পারে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা, দাবি সমীক্ষায়

আইআইটি মাদ্রাজের সবকারী অধ্যাপক (গণিত) ডঃ জয়ন্ত ঝাঁ ব্যাখ্যা করতে গিয়ে বলেন, ‘আরও তিনটি বিষয়ের উপর নির্ভর করে। সেগুলি হল- সংক্রমণের সম্ভাবনা, যোগাযোগের হার এবং প্রত্যাশিত সময়ের ব্যবধান যেখানে সংক্রমণ ঘটতে পারে।’ সংবাদ সংস্থা পিটিআই-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ঝাঁ বলেছেন যে, ‘কোয়ারেন্টিন ব্যবস্থা বা বিধিনিষেধ বৃদ্ধির সঙ্গেই, সম্ভবত যোগাযোগের হার কমবে। ফলে হ্রাস পেতে পারে আরও হার। গত দুই সপ্তাহের পরিসংখ্যানের উপর আমরা বলছি যে ফ্রেব্রুয়ারির প্রথম ১৫ দিনে সংক্রমণ শিখর ছোঁবে। তবে বিধি পালনে কতটা ইতিবাচক পদক্ষেপ নেওয়া হবে তার উপরই এখন সবটা নির্ভরশীল।’

স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তরফে গত বুধবার দাবি করা হয়, দেশে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে। ওমিক্রনের কারণেই এই রকেট গতিতে বৃদ্ধি। মন্ত্রকের দেওয়া হিসাবে সেই সময় দেশের আরনট ভ্যালু ছিল ২.৬৯। এই সংখ্যা করোনার দ্বিতীয় তরঙ্গের সময় সর্বোচ্চ আরনটের হারের চেয়ে বেশি।

আরও পড়ুন- প্রতি দুজনে একজন পজিটিভ, উদ্বেগ বাড়াচ্ছে কলকাতার করোনা গ্রাফ

এপ্রসঙ্গে ডঃ ঝাঁ জানিয়েছেন, স্বাস্থ্যমন্ত্রকের পরিসংখ্যান ভিন্ন সময়ের হিসাবের ভিত্তিতে করা হয়েছে। গত ২ সপ্তাহের পরিসংখ্যানের ভিত্তিতে আইআইটি মাদ্রাজ রিপোর্ট তৈরি করেছে। আরও একবার তাঁর দাবি ফ্রেব্রুয়ারির প্রথম ১৫ দিনে সংক্রমণ শিখর ছোঁবে। এর অভিঘাত দৃঢ় হবে।

ডঃ ঝায়ের দাবি, এবারের তরঙ্গ গত দু’বারের তুলনায় ভিন্ন হবে। একদিকে টিকাকরণ, অন্যদিকে দূরত্ববিধি না মানার কারণেই এটা ঘটবে। যদিও দেশের ৫০ শতাংশ মানুষের টিকাকরণ হয়ে যাওয়ায় কিছুটা স্বস্তি বলেই মনে করছেন তিনি।

আইআইটি মাদ্রাজের শঙ্কাই যেন সত্যি হতে চলেছে। শনিবার প্রকাশিত স্বাস্থ্যমন্ত্রকের রিপোর্ট অনুয়ায়ী দেশে গত ২৪ ঘন্টায় করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা ১ লাখ ৪১ হাজার ৯৮৬ জন। মোট ওমিক্রন আক্রান্তের সংখ্যা ৩ হাজার ৭১ জন।

Read in English

Get the latest Bengali news and General news here. You can also read all the General news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Covid19 peak expected between feb 1 15 iit madras

The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com