scorecardresearch

বড় খবর

মাঝ আকাশে বিমানে আগুন-বন্ধ ইঞ্জিন, ‘মরি-বাঁচি’ দশায় আত্মারাম খাঁচা ছাড়া যাত্রীদের

বিমানটি টেক অফের কিছু সময় পরেই ইঞ্জিন থেকে আগুনের ফুলকি বেরোতে দেখেন কেবিন ক্রু-রা।

মাঝ আকাশে বিমানে আগুন-বন্ধ ইঞ্জিন, ‘মরি-বাঁচি’ দশায় আত্মারাম খাঁচা ছাড়া যাত্রীদের
প্রতিকী ছবি।

মাঝ আকাশে বিমানে আগুন, বন্ধ হয়ে যায় বিমানের একটি ইঞ্জিন। ঘটনা টের পেতেই হুলস্থূল কাণ্ড। উৎকণ্ঠা-উদ্দীপনায় রীতমতো হাড় হিম হয়ে যাওয়ার জোগাড় যাত্রীদের। তবে চূড়ান্ত দক্ষতায় শেষমেশ বিমানের জরুরি অবতরণ করেন পাইলট। বিমানের ১৮৫ যাত্রী ও ৬ জন ক্রু মেম্বারদের প্রত্যেকেই সম্পূর্ণ সুরক্ষিত। রবিবার দিল্লিগামী স্পাইসজেটের বিমানটিতে বিপত্তি দেখা দেয়। এদিন পাটনা বিমানবন্দরে নিরাপদে নামানো হয় বিমানটি। সব যাত্রীকেই নিরাপদে উদ্ধার করা হয়েছে।

জানা গিয়েছে, দিল্লিগামী স্পাইসজেটের বিমানটি পাটনা বিমানবন্দর থেকে টেক অফের কয়েক মিনিট পরেই বিপত্তি তাতে বিপত্তি ধরা পড়ে। কেবিন ক্রুরা বিমানের একটি ইঞ্জিন থেকে আগুনের ফুলকি দেখতে পান। তড়িঘড়ি পাইলট বিমানের পাওয়ার প্ল্যান্টটি বন্ধ করে দেন। বিমানটির জরুরি অবতরণ করেন পাটনা বিমানবন্দরে। বিমানবন্দরের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, টেক অফের সময় ককপিট ক্রুরা বিমানটির বাঁদিকের ইঞ্জিনে পাখির ধাক্কা মারার বিষয়টি দেখতে পেয়েছিলেন। তবে যেহেতু সেই সময়ে বিমানে কোনও অস্বাভিবকতা লক্ষ্য করা যায়নি, তাই সেটি টেক অফ করে যায়।

তবে পরবর্তী সময়ে বিমানের কেবিন ক্রু মেম্বাররা ইঞ্জিন থেকে আগুনের ফুলকি বেরোতে দেখেন। সঙ্গে সঙ্গে বিষয়টি পাইলটদের জানানো হয়। পাটনায় বিমান ফেরানোর সিদ্ধান্ত নেন পাইলটরা। এটিসি (এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোল)-কে গোটা বিষয়টি জানানো হয়।

আরও পড়ুন- বিক্ষোভকে থোড়াই কেয়ার, ‘অগ্নিপথ’ প্রকল্পে নিয়োগ বিবৃতি জারি বায়ুসেনার

এদিকে, ককপিট ক্রুরা কিন্তু আগেই একটি সংকেত দিয়েছিলেন। তবে তাঁরাও জানিয়েছিলেন যে পরিস্থিতি জরুরি হলেও আপাতত এটি কারও জীবন বা বিমানের জন্য তাৎক্ষণিক বিপদ সৃষ্টি করছে না। সেই কারণেই বিমান টেক-অফের ক্ষেত্রে প্রাথমিকভাবে কোনও সতর্কতা নেওয়া হয়নি। তবে এদিন পাটনা বিমানবন্দরের কাছাকাছি থাকা লোকজন ওই বিমানটির বাঁদিকের ইঞ্জিন থেকে গাঢ় ধোঁয়া বেরতে দেখেছেন।

বিমানটিতে ১৮৫ যাত্রী ছিলেন। প্রত্যেককেই নিরাপদে নামানো হয়েছে। পাটনার জেলাশাসক চন্দ্রশেখর সিং সংবাদসংস্থা এএনআইকে জানিয়েছেন, স্থানীয়রা বিমানে আগুন দেখার পরেই প্রশাসনকে বিষয়টি জানান। তড়িঘড়ি বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। বিমানের ১৮৫ যাত্রীকেই নিরাপদে উদ্ধার করা হয়েছে।

আরও পড়ুন- অগ্নিপথ আঁচে তপ্ত আবহ, জোটসঙ্গীতে আস্থা হারাচ্ছে BJP, সরকার পড়ার আশঙ্কা?

অন্যদিকে, ডিরেক্টরেট জেনারেল অফ সিভিল এভিয়েশন বা ডিজিসিএ-র তরফে জানানো হয়েছে, দিল্লিগামী স্পাইসজেটের বিমানটি পাটনায় ফিরেছে। বিমানের ইঞ্জিনে ধাক্কা দেয় একটি পাখি। তারপর ইঞ্জিনটি বন্ধ হয়ে যায়। তবে সব যাত্রীকেই নিরাপদে নামানো হয়েছে।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Delhi bound spicejet flight returns to patna airport after engine shutdown