scorecardresearch

বড় খবর

কেন কড়া ব্যবস্থা নয়, এয়ার ইন্ডিয়ার আধিকারিক-সেবিকাদের কাছে জানতে নোটিস ডিজিসিএর

ঘটনাটি ৪ জানুয়ারি অসামরিক বিমান পরিবহণ সংস্থার নজরে আসে।

কেন কড়া ব্যবস্থা নয়, এয়ার ইন্ডিয়ার আধিকারিক-সেবিকাদের কাছে জানতে নোটিস ডিজিসিএর

নিউ ইয়র্ক-দিল্লি বিমানে মূত্রত্যাগের ঘটনায় বিমান সংস্থা এয়ার ইন্ডিয়াকে কারণ দর্শানোর নোটিস দিল অসামরিক বিমান পরিবহণ সংস্থা বা ডিজিসিএ। বৃহস্পতিবার ওই নোটিসে বলা হয়েছে, বিমান সংস্থাটির আচরণ ‘অপেশাদার’। যাকে পদ্ধতিগত ব্যর্থতা বলেও মনে করছে ডিজিসিএ। গত ২৬ নভেম্বর, এয়ার ইন্ডিয়ার নিউ ইয়র্ক-দিল্লি (এআই ১০২) নম্বর বিমানে এক তথাকথিত মদ্যপ যাত্রী এক বয়স্ক মহিলার গায়ে মূত্রত্যাগ করেন বলে অভিযোগ উঠেছে। ঘটনাটি ৪ জানুয়ারি ডিজিসিএর নজরে আসে।

এয়ার ইন্ডিয়া এই ব্যাপারে উত্তরে যা জানিয়েছে, তাতে ডিজিসিএর ধারণা হয়েছে বিমান সংস্থাটি অবাধ্য যাত্রীর ক্ষেত্রে যে বিধি রয়েছে, সেই বিধি অনুসরণ করেনি। তার ফলেই গোটা ঘটনাটি ঘটেছে। আর, তারই প্রেক্ষিতে এয়ার ইন্ডিয়ার কড়া সমালোচনা করে ডিজিসিএ বলেছে, ‘সংশ্লিষ্ট বিমান সংস্থার আচরণ অপেশাদার বলেই মনে হচ্ছে। গোটা ঘটনাটি পদ্ধতিগত ব্যর্থতার জন্যই ঘটেছে।’ বিমানে বিধি মানা নিয়ে এয়ার ইন্ডিয়ার অবহেলার ব্যাপারে প্রশ্ন তুলেছে ডিজিসিএ। একইসঙ্গে প্রশ্ন তুলেছে, দায়িত্বে অবহেলার জন্য কেন এয়ার ইন্ডিয়ার আধিকারিক এবং বিমানসেবক বা সেবিকাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে না?

এতেই না-থেমে ডিজিসিএ আরও বলেছে, ‘এয়ার ইন্ডিয়ার জবাবদিহি ব্যবস্থাপক, এয়ার ইন্ডিয়ার ইন-ফ্লাইট পরিষেবার পরিচালক, সেই ফ্লাইটের সমস্ত পাইলট এবং কেবিন ক্রু সদস্যদের কাছে কারণ দর্শানোর নোটিস জারি করা হয়েছে। কেন নিয়ন্ত্রক বিধি অবহেলার জন্য তাঁদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়া উচিত নয়, সেই কারণ তাঁদের জানাতে হবে।’

এয়ার ইন্ডিয়ার এই ঘটনার তদন্তের পর দিল্লি পুলিশের মতে, যারা অভিযুক্তের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছেন, সেই অভিযোগে লোকটি মাতাল হয়ে মূত্রত্যাগ করেছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে। কিন্তু, বিমান সংস্থাটি তারপরও কোনও ব্যবস্থা না-নিয়েই লোকটিকে যেতে দিয়েছে। বছর ৭০-এর ওই মহিলা এরপর এয়ার ইন্ডিয়া গ্রুপের চেয়ারম্যান এন চন্দ্রশেখরনকে চিঠি লিখে তাঁর অভিযোগ জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন- রাম মন্দিরের পুরোহিত রাহুলের প্রশংসা করতেই, মন্দির উদ্বোধনের তারিখ জানালেন শাহ

সেই চিঠিতে ওই মহিলা জানিয়েছেন, এক মাতাল সহযাত্রী শরীর উন্মুক্ত করে তাঁর গায়ে মূত্রত্যাগ করে দিয়েছিলেন। তাতে তাঁর জামাকাপড়, জুতো এবং ব্যাগ ভিজে যায়। এরপর বিমানসেবিকা এসে যাচাই করে ওই আসনে মূত্রের গন্ধ পান। তিনি ওই মহিলার ব্যাগ, জুতোয় জীবাণুনাশক স্প্রে করে দেন।

Read full story in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Dgca serves notices to officials and crew