বড় খবর

কৃষক-দু:স্থ সুবিধা বিবেচনা করেই ১৯ দিনের লকডাউন গাইডলাইন

লকডাউনের মেয়াদ বেড়েছে। এই ঘোষণার সঙ্গেই ২০ এপ্রিলের পর বেশ কতকগুলি ক্ষেত্রে ছাড় মেলারও ইঙ্গিতও দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

কৃষক-দুস্থদের সুবিধা বিবেচনা করেই গাইডলাইন।

লকডাউনের মেয়াদ বেড়েছে। এই ঘোষণার সঙ্গেই ২০ এপ্রিলের পর বেশ কতকগুলি ক্ষেত্রে ছাড় মেলারও ইঙ্গিতও দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আগামিকাল, বুধবারই প্রকাশিত হবে গাইডলাইন। কিন্তু, কোন কোন ক্ষেত্র পড়বে ছাড়ের আওতায়? প্রধানমন্ত্রীর কথায়, ‘কৃষক ও দু:স্থদের কথা বিবেচনা করেই সেই ছাড় দেওয়া হবে।’

এদিন প্রায় ২৫ মিনিট জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেন প্রধানমন্ত্রী। বলেন, ‘মুখ্যমন্ত্রীদের ও অন্যান্য কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বেশ কয়েকবা আলোচনা হয়েছে। মাথায় রাখা হয়েছে কীভাবে ন্যূনতম আর্থিক বৃদ্ধি ব্যহত হওয়ার বদলে করোনাভাইরাসকে রোধ করা যায়। সব পরামর্শ খতিয়ে দেখে দেশজুড়ে ৩ মে পর্যন্ত লকডাউন বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’ মোদী যখন লকডাউনের মেয়াদ বৃদ্ধির ঘোষণা করছেন তখন দেশে করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা ১০ হাজার পার করেছে। মৃত ৩৩৯।

আর্থিক ক্ষতির বদলে বহু প্রাণ রক্ষা করা গিয়েছে বলে জানান মোদী। তাঁর কথায়, ‘সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ও লকডাউনের ফলে আর্থনৈতিকভাবে আমাদের ক্ষতি হয়েছে, কিন্তু অনেক জীবন বেঁচে গিয়েছে। করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে আমরা সঠিক পথেই এগোচ্ছি।’ প্রধানমন্ত্রী জানান, ‘প্রথম থেকেই এই যুদ্ধে ভারত দৃঢ় পদক্ষেপ করেছে। কোনওভাবেই লকডাউন থেকে বিচ্যাত হওয়া যাবে না।’

আরও পড়ুন- লকডাউন ৩ মে পর্যন্ত: প্রধানমন্ত্রী মোদী

দেশবাসীর কাছে কঠোরভাবে লকডাউন মেনে চলার আর্জি জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘হটস্পটগুলি’র উপর নজর আরও কড়া করতে হবে। সতর্ক দৃষ্টি রাখতে হবে নতুনভাবে হটস্পট হতে পারে এমনসব এলাকায়। ২০ তারিখ পর্যন্ত সব জেলার উপর নজরদারি চলবে। যেখানে পরিস্থিতি স্বভাবিক সেখানে কিছু ছাড় দেওয়া হতে পারে। এই বিষয়ে বুধবার গাইডলাইন প্রকাশ করা হবে।’ তবে তিনি এও মনে করিয়ে দেন যে, ‘অবস্থার অবণতি হলে লকডাউনে শিথিলতা বাতিল করা হবে।’

আরও পড়ুন- Live: দেশে করোনা আক্রান্ত ১০ হাজার ছাড়াল

জাতির উদ্দেশে ভাষণে দেশবাসীকে সাতটি কাজের আর্জি জানান মোদী। বলেন, ‘ওই সাত কর্তব্যই সরকারকে করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে শক্তি দেবে।’

মোদীর সাত আর্জি:

১. বয়স্কদের যত্নের সঙ্গে দেখভাল করতে হবে।

২. বাড়িতে তৈরি মাস্ক সাবধানে অবশ্যই ব্যবহার করতে হবে।

৩. আরোগ্য সেতু অ্যাপ ডাউলোড করুন ও অপরকেও করতে বলুন।

৪. গরীব মানুষের খাবার সহ প্রয়োজনীয় সামগ্রী দিয়ে দেখভাল করতে হবে।

৫. কাউকে চাকরি থেকে ছাড়িয়ে দেবেন না।

৬. স্বাস্থ্য পরিষেবায় যুক্ত ব্যক্তি, নিকাশি কাজের কর্মী ও পুলিশদের সম্মান জানান।

৭. সর্ব শক্তি দিয়ে ৩ মে পর্যন্ত লকডাউন মেনে চলুন। যে যেখানে আছেন সেখানে সুস্থ ও সাবধানে থাকুন।

২১ দিন লকডাউন মেনে চলার জন্য এদিন ভারতবাসীপ প্রশংসা করেন প্রধানমন্ত্রী। বলেন, ‘দেশবাসীর ত্যাগেই করোনার বিরুদ্ধে লড়াই এগিয়ে নিয়ে যাওয়া সম্ভব হয়েছে।’

Read the full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and General news here. You can also read all the General news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Extended lockdown guidelines to ensure farmers poor least affected say pm modi

Next Story
Corona Lockdown Situation Updates: লকডাউন পর্যন্ত ভারতের কাছে সবকিছু মজুত আছে, দেশবাসীকে আশ্বাস শাহেরNo religion break-up of citizenship granted
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com