বড় খবর

কাঁটাতার-বোল্ডারের ব্যারিকেড-পেরেক পুঁতে কৃষকদের আটকাতে চাইছে পুলিশ

টিকরি সীমান্তকে কার্যত দুর্গে পরিণত করেছে পুলিশ।

দিল্লিমুখী কৃষকদের আটকাতে মরিয়া কেন্দ্র। হরিয়ানা-দিল্লির টিকরি সীমান্তে রাতারাতি রাস্তার উপর ঢালাই করে ২ হাজার ধারালো পেরেক বসানো হল। রোহতক রোডের ধারে এই পেরেক দিয়ে কৃষকদের ট্রাক্টর আটকাতে চাইছে পুলিশ-প্রশাসন। হরিয়ানার দিক আসা কৃষকদের সমস্যায় ফেলতে এই পন্থা নিয়েছে প্রশাসন। যার জেরে দেশজুড়ো শোরগোল পড়ে গিয়েছে। ভাইরাল হয়ে গিয়েছে রাস্তার উপর পেরেকের ছবি।

টিকরি সীমান্তকে কার্যত দুর্গে পরিণত করেছে পুলিশ। কাঁটাতার দিয়ে ব্যারিকেড করে তারপর সিমেন্টের ব্লক বসানো হয়েছে। যাতে আন্দোলনকারীরা কোনওভাবে সেটা পেরিয়ে না যেতে পারেন। আন্তর্জাতিক সীমান্তের কায়দায় কাঁটাতার বসানো হয়েছে। প্রজাতন্ত্র দিবসে লালকেল্লায় তাণ্ডবের পর কোনও ঝুঁকি নিতে চাইছে পুলিশ। কোনওভাবেই কৃষকদের এক ইঞ্চিও জমি ছাড়তে নারাজ কেন্দ্র। কাঁটাতার, সিমেন্ট বোল্ডার, পেরেক দিয়ে রাস্তা মুড়ে বাধা সৃষ্টি করা হয়েছে কৃষকদের জন্য।

আরও পড়ুন কৃষক আন্দোলন নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে ‘অপমান’! ১০০’র বেশি টুইটার হ্যান্ডেল সাসপেন্ড

জানা গিয়েছে, দিল্লি পুলিশের নির্দেশে রাস্তার উপর পেরেক পোঁতা হয়েছে। মুন্ডকা থানার আধিকারিকরা সোমবার রাতের মধ্যেই এই কাজ শেষ করেছেন। রবিবার রাত ৯টা থেকে কাজ শুরু হয় শেষ হয় সোমবার রাতে। এক শীর্ষ আধিকারিক জানিয়েছেন, প্রথমবার এই ধরনের ব্যবস্থা করা হল। রোহতক রোডে দুই ধরনের পেরেক পোঁতা হয়েছে। সবচেয়ে বড় যেগুলি, সেগুলি এক একটি ছয় ইঞ্চি লম্বা। ট্রাক্টর ও গাড়ি আটকাতেই ব্যবস্থা।

এই প্রসঙ্গে টিকরি সীমান্তের এক আন্দোলনকারী বলেছেন, “ওরা কৃষকদের এত ভয় পেয়েছে যে আন্দোলন আটকাতে চিনের প্রাচীর তুলছে। কিন্তু আমরা পালাব না। আমরা শান্তিপূর্ণ ভাবে এখানেই থাকব। এটাই আমাদের শক্তি। কিন্তু ওরা কোনও অ্যাম্বুল্যান্স যাওয়ারও রাস্তা রাখছে না, এটাই চিন্তার।”

Read the full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Web Title: Farmers govt standoff getting into protest sites now tough as nails

Next Story
‘দেওয়াল নয়, সেতু গড়ুন’, কেন্দ্রকে নিশানা রাহুলের
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com