scorecardresearch

বড় খবর

এখনও ‘চূড়ান্ত’ নয় নাগরিকপঞ্জির তালিকা, থাকছে নাম বাদ যাওয়ার আশঙ্কা

শনিবার এমনটাই জানাল নাগরিকপঞ্জির দায়িত্বপ্রাপ্ত আধিকারিকরা। ইতিমধ্যেই পরিবার ভিত্তিক একটি তালিকা এনআরসির ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে।

এখনও ‘চূড়ান্ত’ নয় নাগরিকপঞ্জির তালিকা, থাকছে নাম বাদ যাওয়ার আশঙ্কা
তালিকাছুটদের পরিচিতি নিয়ে রাজনীতি চলছে

দীর্ঘ বিতর্কের মধ্যে দিয়ে ভারতীয় নাগরিকপঞ্জির তালিকা প্রকাশ করলেও তাকে এখনও ‘চূড়ান্ত’ বলে মানতে নারাজ এনআরসি কর্তৃপক্ষই। এমনকি ৩১ অগাস্ট আসামে প্রকাশিত বিতর্কিত জাতীয় নাগরিকপঞ্জিতে যাদের নাম রয়েছে কোনও নির্দিষ্ট শর্তে যেকোনও সময় বাদ পড়তে পারে তাঁদের নামও। শনিবার এমনটাই জানালেন নাগরিকপঞ্জির দায়িত্বপ্রাপ্ত আধিকারিকরা। ইতিমধ্যেই পরিবার ভিত্তিক একটি তালিকা এনআরসির ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে।

প্রাথমিকভাবে ‘চূড়ান্ত’ তালিকা হিসেবে প্রকাশিত আসামের এনআরসির তালিকায় বাদ যায় প্রায় ১৯ লক্ষ মানুষের নাম। শনিবার প্রকাশিত একটি বিবৃতি বলা হয়েছে, তালিকায় যাঁদের নাম আছে, তাঁদের নামও বাদ যেতে পারে যখন তখন। সেখানে আরও বলা হয়, “কর্তৃপক্ষ কোনও ব্যক্তির জমা দেওয়া তথ্য/ বিবরণীতে কোনও বিকৃতকরণ খুঁজে পেলে অবিলম্বে তাঁদের নাম তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হবে।”

আরও পড়ুন- বিজেপি খুশি নয়, আসাম এনআরসি থেকে কেন এত কম মানুষ বাদ পড়লেন, প্রশ্ন বিশ্বশর্মার

নোটিশটিতে বলা হয়, “প্রকাশিত তালিকাভুক্ত কোনও ব্যাক্তির তথ্য নিয়ে কোনও সমস্যা দেখা দিলে সেক্ষেত্রে অবিলম্বে তাঁকে বিদেশি ঘোষণা করতে পারে এনআরসি কর্তৃপক্ষ। এমনকি, ফরেনার্স ট্রাইবুন্যাল কোর্টে মামলা চলছে এমন ব্যক্তির নামও যদি তালিকায় থেকে থাকে, সেই নামও বাদ যেতে পারে। যদি ফরেনার্স ট্রাইবুন্যাল কোর্টেও কোনও ব্যক্তিকে বিদেশি ঘোষণা করা হয়, সেক্ষেত্রেও তাঁর নাম নাগরিকপঞ্জির তালিকা থেকে বাদ যাবে।”

সরকারি আধিকারিকদের তরফে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে জানানো হয়, “কোনও ব্যক্তির নাম এনআরসির তালিকা থেকে বাদ দেওয়া আইনিভাবে সম্ভব।” তাৎপর্যপূর্ণভাবে, আসামের একটি স্থানীয় টেলিভিশন চ্যানেলে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বিজেপির শীর্ষস্থানীয় নেতা তথা আসামের অর্থমন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা বলেন, আসাম পুলিশের সীমান্ত শাখার উচিত অবিলম্বে তদন্ত শুরু করা। কারণ বহু মানুষ তাঁদের তথ্য বিকৃত করে এনআরসির তালিকায় নিজের নাম অন্তর্ভুক্তি করিয়েছেন।

আরও পড়ুন- ‘আদালতেই প্রমাণ দিতে হলে এত খরচ করে এনআরসির কী প্রয়োজন?’, প্রশ্ন বিজেপি সাংসদের

আসাম পাবলিক ওয়ার্কস-এর সভাপতি অভিজিৎ শর্মা, যিনি প্রথম এনআরসি নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে মামলা দায়ের করেছিলেন, প্রকাশিত নাগরিকপঞ্জির তালিকা নিয়ে তাঁর মন্তব্য, “আমরা কেউই এনআরসির তালিকা নিয়ে খুশি নই। আমরা চাই ১০০ শতাংশ পুন: যাচাইকরণ হোক। আমাদের কাছে প্রমাণ আছে যে ঘোষিত প্রচুর বিদেশি ব্যক্তি এই তালিকায় স্থান পেয়েছে। আমরা শিগগিরই এই তালিকাটি সুপ্রিম কোর্টে প্রকাশ করব।”

এনআরসি তালিকা ঘিরে বিতর্ক ছিলই। এমনকি ৩১ তারিখে প্রকাশিত এনআরসি তালিকার পাশাপাশি একটি সাপ্লিমেন্টারি তালিকাও প্রকাশ করা হয়। যাঁদের নাম ৩০ জুলাই প্রকাশিত নাগরিকপঞ্জির তালিকায় ছিল অথচ ৩১ অগাস্টের প্রকাশিত তালিকায় নেই তাঁদের নাম রাখা হয় সেই সাপ্লিমেন্টারি তালিকায়।

আরও পড়ুন- আসাম এনআরসি: কীভাবে দেখবেন নামের তালিকা? জেনে নিন

উল্লেখ্য, চূড়ান্ত নাগরিকপঞ্জি থেকে বাদ যাওয়া ১৯ লক্ষ ৬ হাজার ৬৫৭ জন তাঁদের নাম বাদ যাওয়ার বিরুদ্ধে ফরেনার্স ট্রাইবুন্যাল আদালতে আবেদন করতে পারবেন। এর আগে প্রায় ১০০টি মামলা জমা ছিল ফরেনার্স ট্রাইবুন্যাল কোর্টে। বর্তমানে ২০০টি নতুন মামলা জমা পড়েছে আদালতে। সংবাদসংস্থা পিটিআইয়ের প্রকাশ করা একটি রিপোর্টে বলা হয়েছে, আসামে এনআরসি প্রকাশের আগে কেন্দ্রের মোতায়েন করা ১০ হাজার আধা সামরিক সেনা প্রত্যাহার করছে কেন্দ্র, এমনটাই খবর। ৩১ আগস্ট এনআরসি প্রকাশের পর থেকে আসামে কোনও হিংসার ঘটনা ঘটেনি বলেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

Read the full story in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Final nrc not final names can still be removed from list