scorecardresearch

বড় খবর

কোটি-কোটি টাকার বেআইনি বালি খনন কারবার, প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদ ED-র

২০১৮ সালের একটি মামলায় বুধবার কয়েক ঘণ্টা ধরে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদ করে ইডি।

কোটি-কোটি টাকার বেআইনি বালি খনন কারবার, প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদ ED-র
প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদ ইডি-র।

বেআইনি বালি খনন মামলায় এবার পঞ্জাবের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী চরণজিৎ সিং চান্নিকে পুরনো একটি মামলায় জিজ্ঞাসাবাদ এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের আধিকারিকদের। ২০১৮ সালের একটি মামলায় বুধবার কয়েক ঘণ্টা ধরে পঞ্জাবের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদ করে ইডি।

চান্নিকে ইডি-র জিজ্ঞাসাবাদ করার খবরটি বৃহস্পতিবার সকালে প্রকাশ্যে আসে। ইডি-র কর্তারাই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এমনকী চান্নিকে আবারও তলব করা হতে পারে বলেও জানিয়েছেন ইডি কর্তারা। চান্নির ভাগ্নে ভূপিন্দর সিং হানিকে চলতি বছরের শুরুতে পঞ্জাব বিধানসভা ভোটের ঠিক আগে এই একই মামলায় টাকা পাচারের অভিযোগে ইডি গ্রেফতার করেছিল। গত ৩১ মার্চ ইডি তাঁর বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করার পরে হানি মঙ্গলবার জামিনের জন্য আবেদন করেছিলেন। বর্তমানে জেলেই রয়েছেন পঞ্জাবের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর ভাগ্নে ভূপিন্দর সিং হানি।

এদিকে, চান্নিকে ইডি-র জিজ্ঞাসাবাদের পর কংগ্রেস নেতা নভজ্যোৎ সিং সিধু টুইটে লিখেছেন, “আমার লড়াই পঞ্জাবের জন্য ছিল। বালির জন্য নয়। যারা জমি, বালি এবং মদ, মাফিয়ারাজ চালায় তারা রাজকোষ লুঠ করে স্বার্থের জন্য পঞ্জাবকে ধ্বংস করছে।”

উল্লেখ্য, পঞ্জাবের নওয়ানশহরের রাহন থানায় বেআইনিভাবে বালি খননের অভিযোগে মামলা দায়ের করেছে ইডি। সেই মামলার ভিত্তিতেই গত ১৮ এবং ১৯ জানুয়ারি পঞ্জাবের লুধিয়ানা, মোহালি, পাঠানকোট, রূপ নগর এবং ফতেহগড় সাহিবের ১০ জায়গায় তল্লাশি চালিয়েছে ইডি। চান্নির ভাগ্নে হানির বিজনেস পার্টনার কুদর্তদীপ সিংও এই মামলায় অভিযুক্ত ছিলেন। যদিও পরে পুলিশ তাঁকে এই মামলা থেকে অব্যাহতি দেয়। জানা গিয়েছে, সেই অভিযানের সময় ইডি নগদ ১০ কোটি টাকা বাজেয়াপ্ত করেছে।

আরও পড়ুন- ৩ ঘণ্টায় মুম্বই to আহমেদাবাদ, বুলেট ট্রেনের ট্রায়াল রান ২০২৬-এ

বিপুল পরিমাণ ওই টাকার মালিক প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী চান্নির ভান্গে হানি বলেই দাবি ইডির। একাধিক জায়গায় চালানো ইডির সেই অভিযানে বালি খনির ব্যবসার সঙ্গে সম্পর্কিত বেশ কয়েকটি অপরাধমূলক নথি, সম্পত্তি লেনদেনের কাগজপত্র, মোবাইল ফোন, ২১ লক্ষ টাকারও বেশি সোনা এবং ১২ লক্ষ টাকার একটি রোলেক্স ঘড়ি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। হানি এবং কুদর্তদীপ সিং প্রোভাইডার ওভারসিজ কনসালট্যান্ট প্রাইভেট লিমিটেড নামে একটি সংস্থার অধিকর্তা।

এদিকে ভূপিন্দর সিং হানির বিরুদ্ধে দেওয়া চার্জশিটে ইডি-র দাবি, জেরায় হানি বাজেয়াপ্ত হওয়া বিপুল পরিমাণ ওই টাকা বেআইনি বালি খনন থেকে এসেছিল বলে স্বাকীর করেছেন। এছাড়াও সরকারি কর্তাদের বদলির বিনিময়েও মোটা টাকা এসেছে বলে ইডি আধিকারিকদের জেরায় জানিয়েছেন হানি। প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী চরণজিৎ সিং চান্নির ভাগ্নে হানিকে ৩ ফেব্রুয়ারি ইডি জলন্ধরের অফিসে তলব করেছিল। সেই অফিসেই গভীর রাত পর্যন্ত দফায়-দফায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছিল তাঁকে। পরে রাত প্রায় ১২টা নাগাদ তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছিল।

Read story in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Former punjab cm charanjit singh channi questioned by ed in illegal sand mining case