বড় খবর

ফাস্ট্যাগের সময়সীমা বাড়াল কেন্দ্র

এই সময়ের মধ্যেই গাড়িতে লাগিয়ে নিতে হবে এই ফাস্ট্যাগ, নচেৎ গুনতে হবে মোটা অঙ্কের জরিমানা।পরবর্তীতে ন্যাশনাল হাইওয়ে ব্যবহারের ক্ষেত্রে শুল্ক দিতে হবে এই ফাস্ট্যাগের মাধ্যমে।

FASTag, Toll Tax
সময়সীমা বাড়াল হল ফাস্ট্যাগের

ফাস্ট্যাগ নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্র সরকার। বাড়ানো হল সময়সীমা। গাড়ির মালিকদের আরও কিছুটা বেশি সময় বরাদ্দ করল কেন্দ্রীয় সড়ক ও পরিবহন মন্ত্রক। শুক্রবার মন্ত্রকের তরফে একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে বলা হয়েছে, ১ ডিসেম্বর থেকে বাড়িয়ে ফাস্ট্যাগ লাগানোর সময়সীমা জারি করা হয়েছে ১৫ ডিসেম্বর। এই সময়ের মধ্যেই গাড়িতে লাগিয়ে নিতে হবে এই ফাস্ট্যাগ, নচেৎ গুনতে হবে মোটা অঙ্কের জরিমানা। পরবর্তীতে ন্যাশনাল হাইওয়ে ব্যবহারের ক্ষেত্রে শুল্ক দিতে হবে এই ফাস্ট্যাগের মাধ্যমে।

আরও পড়ুন: ফাস্ট্যাগ কিনতে গেলে কী লাগবে, না কিনলে কী হবে?

উল্লেখ্য, এর আগে ন্যাশনাল হাইওয়েজ অথরিটি অফ ইন্ডিয়ার (এনএইচএআই) কতৃপক্ষ জানিয়েছিল যে ১ ডিসেম্বর থেকেই দেশে সমস্ত টোল প্লাজায় বৈদ্যুতিন এই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে টোল আদায় করা হবে। শুক্রবারের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, “এখনও বহু মানুষ এই ট্যাগ লাগিয়ে উঠতে পারেননি। তাঁদের কথা মাথায় রেখেই ১৫ দিন সময়সীমা আরও বাড়ানো হল।” পূর্ববর্তী নির্দেশ অনুযায়ী, নির্দিষ্ট সময়সীমার মধ্যে কোনও গাড়িতে ফাস্ট্যাগ না থাকলে গাড়ির চালককে দ্বিগুণ টোল ট্যাক্স দিতে হবে। তবে কীভাবে এই স্টিকার লাগানো সম্ভব তা নিয়ে ইতিমধ্যেই মানুষের মধ্যে বিভ্রান্ত তৈরি হয়। সেই কথা বিবেচনা করেই সময়সীমা আরও দুসপ্তাহ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে মন্ত্রক, এমনটাই জানিয়েছে এনএইচএআই-এর উচ্চপদস্থ আধিকারিক।

কী এই ফাস্ট্যাগ?

এই ডিভাইসে রেডিও ফ্রিকোয়ন্সি আইডেন্টিফিকেশন প্রযুক্তি থাকে যার মাধ্যমে সরাসরি সেভিংস অ্যাকউন্ট বা প্রিপেড পদ্ধতি থেকে টাকা কেটে নেওয়া যায়। গাড়ির উইন্ডস্ক্রিনে ফাস্ট্যাগ লাগানো থাকে, ফলে গাড়িকে টোল প্লাজায় দাঁড়াতে হয় না। আরএফআইডি প্রযুক্তি অনেকটা মেট্রো স্মার্ট কার্ডের মত।

আরও পড়ুন: এইচডিএফসি ব্যাঙ্ক থেকে ফাস্ট্যাগ কিনবেন কী ভাবে?

ফাস্ট্যাগ যদি ওয়ালেটের মত প্রিপেড অ্যাকাউন্টের সঙ্গে লিঙ্ক করা থাকে বা ডেবিট অথবা ক্রেডিট কার্ডের সঙ্গে লিঙ্ক করা থাকে, তাহলে গাড়ির মালিককে ট্যাগ রিচার্জ করতে হবে। যদি ফাস্ট্যাগ সেভিংস অ্যাকাউন্টের সঙ্গে যুক্ত থাকে তাহলে ব্যালান্স কমে যাবার পর স্বয়ংক্রিয় ভাবে অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা কেটে নেওয়া হবে। একবার টোল পার হলে, গাড়ির মালিক টাকা কেটে নেবার এসএমএস পাবেন। সেরকম ক্ষেত্রে ব্যাপারটা ঘটবে প্রি পেড ওয়ালেটের মতই। একটি ফাস্ট্যাগের মেয়াদ পাঁচ বছর এবং প্রয়োজন মত এটি রিচার্জ করা যাবে।

Get the latest Bengali news and General news here. You can also read all the General news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Govt extends fastag deadline from 1 december to december 15

Next Story
আর্থিক পরিস্থিতি উদ্বেগজনক, সমাজের পরিস্থিতি আরও খারাপ: মনমোহন সিংManmohan Singh, 1984 sikh riots
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com