scorecardresearch

বড় খবর

জ্ঞানবাপীতে মুসলমানদের প্রার্থনায় বাধা না দিয়েই ‘শিবলিঙ্গ’ রক্ষা করতে হবে, সুপ্রিম নির্দেশ

আগামী ১৯ মে এই মামলার ফের শুনানি হবে।

Gyanvapi Mosque Case, Varanasi court to hear on May 26 Muslim side’s plea seeking to reject Hindu petitioners’ civil suit
জ্ঞানবাপী মসজিদ

মুসলিমদের প্রবেশ ও উপাসনার অধিকারকে খর্ব না করে যেখানে ‘শিবলিঙ্গ’ পাওয়া গিয়েছে সেই অঞ্চলটিকে রক্ষা করতে হবে। মঙ্গলবার বারাণসী জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে এই নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। আগামী ১৯ মে এই মামলার ফের শুনানি হবে।

এদিকে বারাণসী আদালত মঙ্গলবার অ্যাডভোকেট-কমিশনার অজয় ​​কুমার মিশ্রকে তার পদ থেকে সরিয়ে দিয়েছে। মিশ্র কাশী বিশ্বনাথ মন্দির-জ্ঞানবাপি মসজিদ কমপ্লেক্সের চিত্রগ্রহণ এবং জরিপ পরিচালনার জন্য দায়ী ছিলেন। একই সঙ্গে কমিটির জরিপ প্রতিবেদন দাখিলের জন্য দুই দিন সময় বাড়ানো হয়েছে। এর আগে সোমবার, বারাণসী আদালত জেলা প্রশাসনকে মসজিদ কমপ্লেক্সের জায়গাটি সিল করার নির্দেশ দেয় যেখানে ভিডিওগ্রাফি সমীক্ষার সময় একটি শিবলিঙ্গ পাওয়া গেছে বলে দাবি করা হয়েছিল।

সুপ্রিম কোর্ট বারাণসীর আঞ্জুমান ইন্তেজামিয়া মসজিদের ব্যবস্থাপনা কমিটির একটি আবেদনের শুনানি করছিল, যা কমপ্লেক্সে মা শ্রিংগার গৌরী স্থলের স্থানীয় আদালতের নির্দেশিত ভিডিওগ্রাফি সমীক্ষাকে চ্যালেঞ্জ করে। মুসলিম সংস্থাটি দাবি করেছে যে এটি উপাসনার স্থান (বিশেষ বিধান) আইন 1991-এর বিধানের পরিপন্থী। হিন্দু সেনা সভাপতি আপিল খারিজ করার জন্য সুপ্রিম কোর্টে একটি হস্তক্ষেপ দায়ের করেছেন, বার এবং বেঞ্চ রিপোর্ট করেছে।

মসজিদ কমিটির আশঙ্কা, সমীক্ষার পর মসজিদ চত্বরে হিন্দুদের বছরভর পূজার্চনার অনুমতি দেওয়া হবে। মসজিদ কমিটির তরফে আইনজীবী হাফেজা আহমেদি আগের দিন সুপ্রিম কোর্টে বলেন, ১৯৯১ সালের উপাসনাস্থল (বিশেষ বিধান) আইনের ৪ নম্বর ধারায় স্পষ্ট বলা আছে ১৯৪৭ সালের ১৫ আগস্টে যে উপাসনাস্থল যে অবস্থায় ছিল, সেই অবস্থাই বহাল থাকবে। অবস্থান এবং ব্যবহারগত পরিবর্তন করা যাবে না। জ্ঞানবাপী মসজিদ চত্বরে সমীক্ষার উদ্দেশ্য ওই আইনের সম্পূর্ণ পরিপন্থী। কারণ, ওখানে হিন্দুদের সারা বছর পূজা করার অনুমতি চেয়ে মামলা হয়েছে। সেই আর্জি মেনে নিম্ন আদালত পদক্ষেপ করছে। নিম্ন আদালত মসজিদ চত্বরে সমীক্ষার কাজের ভিডিও করার অনুমতি দেয়। মুসলিম পক্ষের বক্তব্য, মসজিদ হল ওয়াকফ সম্পত্তি। সেখানে আদালতের তরফে ভিডিও করার অনুমতি বেআইনি নির্দেশ।

মূল মামলাটি করেছেন পাঁচ মহিলা। তারা গত বছরের মাঝামাঝি স্থানীয় আদালতে আবেদন করেন, জ্ঞানবাপী মসজিদ চত্বরে থাকা ছোট হিন্দু মন্দিরটিতে তাঁদের সারা বছর পুজাপাঠের অনুমতি দেওয়া হোক। এখন বছরে একবার সেই সুযোগ মেলে। সুপ্রিম কোর্ট এ দিন জানিয়েছে যে, এই মূল মামলাটির শুনানি হবে বৃহস্পতিবার।

Read in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Gyanvapi mosque row shivling area protected without impeding muslims access