বড় খবর

নব অঙ্গীকারে বিশ্বজুড়ে পালিত হচ্ছে ‘বসুন্ধরা দিবস’

“এ বিশ্বকে এ-শিশুর বাসযোগ্য ক’রে যাব আমি- নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।” সুকান্ত ভট্টাচার্যের সেই অঙ্গীকার আজ বিশ্বজনীন। এই পৃথিবীকে বাসযোগ্য করে তোলার দাবীতেই আজ বিশ্ব জুড়ে পালিত হচ্ছে ‘বসুন্ধরা দিবস’।

আজ বিশ্ব ধরিত্রী দিবস।
আজ বিশ্ব ধরিত্রী দিবস।

আজ ২২ এপ্রিল, সারা বিশ্বব্যাপী আজকের দিনটিকে বিশ্ব বসুন্ধরা দিবস হিসেবে পালন করা হয়। ১৯৬৯ খ্রিস্টাব্দে সানফ্রান্সিস্কোতে ইউনেস্কো সম্মেলনে শান্তি কর্মী জন ম্যাককনেল পৃথিবী মায়ের সম্মানে একটা দিন উৎসর্গ করতে প্রস্তাব করেন এবং শান্তির ধারণা থেকে, উত্তর গোলার্ধে বসন্তের প্রথম দিন হিসেবে ২১ মার্চ, ১৯৭০ খ্রিস্টাব্দে প্রথম এই দিনটি উদযাপিত হয়। গ্লোবাল ওয়ার্মিংয়ের কারণে জলবায়ু পরিবর্তনে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ এখন প্রাকৃতিক দুর্যোগে জর্জরিত। এমন প্রেক্ষাপটে প্রকৃতি ও পরিবেশ সম্পর্কে সচেতনতা বাড়াতে এবং পৃথিবীকে নিরাপদ এবং বসবাসযোগ্য রাখতে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে আজকের এই দিনটি পালন করা হয়।

প্রতিবছরের মতো এ বছরেও গুগল একটি অনবদ্য ডুডল তৈরী করেছে আমাদের ধরিত্রী সম্পর্কে সচেতনতাকে বাড়িয়ে তোলার জন্য। যাদের সম্পর্কে সাধারণ মানুষের মধ্যে ধারণা প্রায় নেই বললেই চলে সেরকম ছ’টি প্রাণী ও উদ্ভিদ নিয়ে তৈরি করা হয়েছে এই ডুডল। তৈরি করেছেন কেভিন লাফলিন।

বিশ্ব বসুন্ধরা দিবস উপলক্ষে নাসা তাদের টুইটারে স্যাটেলাইট থেকে তোলা পৃথিবীর কিছু ছবি শেয়ার করেছে তারা

পৃথিবীতে রেড পাণ্ডারা এই মুহূর্তে বিপন্ন প্রজাতি, আজকের বিশ্ব ধরিত্রী দিবসে তাদের বাঁচিয়ে রাখার আবেদন জানিয়ে টুইট করেছে

ইউনাইটেড নেশনস-এর প্রধান আন্তোনিও গুউতেরেস তার টুইটের মাধ্যমে এই সুন্দর পৃথিবীকে রক্ষা করার আর্জি জানান সকলের কাছে।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তার টুইটে বলেন,আজ থেকেই নতুন ভাবে পৃথিবীকে দেখভাল করার দায়িত্ব নিতে হবে সকলকে।

“আজ থেকে যদি আমরা পৃথিবীকে ভালো রাখতে শুরু করি, ভবিষ্যতে এর সুপ্রভাবে লাভবান হব আমরাই”, ওয়ার্ল্ড ওয়াইল্ড লাইফ ফান্ড এই বার্তাই রেখছে বিশ্ববাসীর কাছে।

ওড়িশার বালুশিল্পী সুদর্শন পট্টনায়ক তার শিল্পের মাধ্যমে ফুটিয়ে তুলেছেন পরিবেশ বাঁচানোর একটি বার্তা

Read the full story in English

Get the latest Bengali news and General news here. You can also read all the General news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: Happy earth day 2019 this years theme is protect our species

Next Story
‘বিচার ব্যবস্থার পাশে দাঁড়ানোর সময় এসেছে’
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com