বড় খবর

‘ঘরে থাকলেও তো মারা যেতে পারতেন’, কৃষক মৃত্যুতে ‘নির্মম’ মন্তব্য হরিয়ানার কৃষিমন্ত্রীর

২০০ জন কৃষকের মৃত্যুর বিষয়ে একটি মিডিয়া প্রশ্নের জবাবে প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে তিনি বলেন যে ‘ঘরে থাকলেও তো মৃত্যু হতে পারত’।

কৃষক আন্দোলন নিয়ে উত্তাল হয়েছে দেশ, তার চেয়েও বেশি উত্তাল হয়েছে কৃষক মৃত্যু নিয়ে। সোশ্যাল মিডিয়ায় যে ভিডিওটি ব্যাপকভাবে শেয়ার করা হচ্ছে সেখানে দেখা যাচ্ছে হরিয়ানার কৃষিমন্ত্রী জেপি দালাল কৃষক মৃত্যু নিয়ে কিছু ‘অসংলগ্ন’ কথা বলতে। ২০০ জন কৃষকের মৃত্যুর বিষয়ে একটি মিডিয়া প্রশ্নের জবাবে প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে তিনি বলেন যে ‘ঘরে থাকলেও তো মৃত্যু হতে পারত’।

এই মন্তব্যের কয়েক ঘন্টা পরে দালাল বলেছিলেন যে তার বক্তব্য সোশ্যাল মিডিয়া থেকে মুছে ফেলা হয়েছে। এর “ভুল অর্থ” তৈরি করা হয়েছে বলে তিনি বলেন। হরিয়ানার কৃষিমন্ত্রী বলেন, “যদি কেউ এতে আঘাত পান তবে আমি ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি।” তিনি আরও বলেন যে তিনি কৃষকদের কল্যাণে কাজ চালিয়ে যাবেন। সোশাল মিডিয়ায় বিক্ষোভ শুরু হতেই মন্ত্রীর বক্তব্য কারও মৃত্যু সবসময় বেদনাদায়ক।

শনিবার সংবাদকর্মীদের সঙ্গে আলাপ আলোচনায় জে পি দালাল বলেন, “তাঁরা যদি তাঁদের বাড়িতে থাকত তবে সেখানেও মারা যেতে পারতেন। ভারতবর্ষে বছরে কত লোক মারা যায় সেই হিসেব জানেন? এক থেকে দুই লক্ষ মারা যান ছ’মাস অন্তর। কেউ হার্ট অ্যাটাকের কারণে মারা যাচ্ছেন এবং কেউ অসুস্থ হয়ে পড়ে মারা যাচ্ছেন। যারা মারা গেছেন তাদের প্রতি আমার আন্তরিক সহানুভূতি রয়েছে। আমার সহানুভূতি রয়েছে ১৩৫ কোটি মানুষের সঙ্গে।”

যদিও দিল্লির সীমান্তে আন্দোলন চলাকালীন কৃষকরা যেভাবে প্রাণ হারালেন সে বিষয়ে মিডিয়া প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, “কেউ দুর্ঘটনায় মারা যাননি। নিজের ইচ্ছায় মৃত্যুবরণ করেছে। যারা মারা গিয়েছেন তাঁদের প্রতি আমার আন্তরিক সহানুভূতি রয়েছে।”

যদিও কংগ্রেস নেতা রণদীপ সিং সুরজেওয়ালা এই মন্তব্যে জেপি দালালকে পাল্টা আক্রমণ করেন ।

Read the full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Web Title: Haryana agriculture minister make remarks on death of farmers at delhi borders

Next Story
গ্রেটাকে সমর্থন, বেঙ্গালুরু থেকে গ্রেফতার পরিবেশ কর্মী
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com