scorecardresearch

বড় খবর

আসামের পর হরিয়ানাতেও এনআরসি লাগু করার ভাবনা

এক বিবৃতিতে খট্টর বলেছেন, সরকার হরিয়ানার বাসিন্দাদের পরিবারভিত্তিক আইডি কার্ড বিতরণের প্রক্রিয়া ইতিমধ্যেই চালু করেছে। রাজ্যে এনআরসি লাগু করার সময়ে ওই ডেটাবেসই ব্যবহার করা হবে।

আসামের পর হরিয়ানাতেও এনআরসি লাগু করার ভাবনা
হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহরলাল খট্টর

আসামের পর হরিয়ানাতে এনআরসি লাগু করতে চায় সে রাজ্যের সরকার। রবিবার এমন ইঙ্গিত দিয়েছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মনোহর লাল খট্টর। তবে এ পরিকল্পনার ব্যাপারে তিনি বিস্তারিত কিছু বলেননি। এমনকি কবে নাগাদ এনআরসি হবে, সে ব্যাপারেও মুখ খোলেননি তিনি।

হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে দ্বিতীয়বার দায়িত্বপালন করছেন মনোহরলাল খট্টর। রাজ্যে আসন্ন বিধানসভা ভোট উপলক্ষে বিজেপি আয়োজিত জমসম্পর্ক কর্মসূচিতে রবিবার তিনি বেশ কয়েকজন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। এঁদের মধ্যে রয়েছেন রাজ্য মানবাধিকার কমিশনের প্রাক্তন চেয়ারম্যান বিচারপতি এইচ এস ভল্লা এবং প্রাক্তন নৌ সেনা প্রধান অ্যাডমিরাল সুনীল লাম্বা।

আরও পড়ুন, ‘আদালতেই প্রমাণ দিতে হলে এত খরচ করে এনআরসির কী প্রয়োজন?’, প্রশ্ন বিজেপি সাংসদের

পাঁচকুলায় ১৬ নং সেক্টরে ভল্লার বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময়ে খট্টর বলেন, “রাজ্য মানবাধিকার কমিশনের সভাপতিত্ব ছাড়াও বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে ছিলেন ভল্লা। এখন তিনি এনআরসি নিয়ে কাজ করছেন। আমিও ওঁকে বলেছি যে আমরা এখানে এনআরসি লাগু করব এবং কীভাবে লাগু করা যায়, সে ব্যাপারে ওঁর সাহায্যও চেয়েছি। তিনি প্রস্তাব দিয়েছেন হরিয়ানার একটি আইন কমিশন থাকা উচিত। আমরা এ বিষয়টি নিয়ে পর্যালোচনা করে দেখব এবং রাজ্যের মানুষ যদি তার দ্বারা উপকৃত হন, তাহলে আমরা রাজ্যে আইন কমিশন স্থাপনও করব।”

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে বিচারপতি ভল্লা বলেছেন, “হ্যাঁ, আমি দুটি বিষয় নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে প্রস্তাব দিয়েছি- হরিয়ানায় এনআরসি এবং আইন কমিশন। এখন শুধু আসামেই এনআরসি রয়েছে। ফলে, যদি মুখ্যমন্ত্রী চান তাহলে হরিয়ানাতেও এনআরসি হতে পারে। রাজ্যে খাঁটি বাসিন্দাদের একটি কার্ড দেওয়া হবে। এখনও পর্যন্ত এটা কথার কথা।”

তিনি বলেন, “আগামিকালই আদর্শ আচরণবিধি লাগু করা উচিত। তাহলে কেউ আর এ নিয়ে কাজ করতে পারবে না। কিন্তু বিজেপি যদি ফের ক্ষমতায় আসে, তাহলে এ বিষয়টি ফের সামনে আসতে পারে। এত আগেভাগে কিছু বলা উচিত নয়। কিন্তু মানুষ যাতে সমস্যার সম্মুখীন না হন, সে জন্য হরিয়ানায় এনআরসি লাগু করা ওঁর ইচ্ছা। এটা আধার কার্ডের মতই একটা কার্ড হবে, কিন্তু আলাদা একটা কার্ড।”

আরও পড়ুন, জীবদ্দশাতেই মমতাকে বাংলায় এনআরসি দেখতে হবে, হুঁশিয়ারি দিলীপের

আগামী মাসে হরিয়ানায় বিধানসভা ভোট।

পরে এক বিবৃতিতে খট্টর বলেছেন, সরকার হরিয়ানার বাসিন্দাদের পরিবারভিত্তিক আইডি কার্ড বিতরণের প্রক্রিয়া ইতিমধ্যেই চালু করেছে। রাজ্যে এনআরসি লাগু করার সময়ে ওই ডেটাবেসই ব্যবহার করা হবে।

Read the Full Story in English

 

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Haryana cm khattar wants to implement nrc