scorecardresearch

বড় খবর

মহিলা নির্যাতনে শীর্ষে যোগীর উত্তরপ্রদেশ, দশম স্থানে বাংলা

দেশের সমস্ত রাজ্যের মধ্যে উত্তরপ্রদেশে মহিলা নির্যাতন সর্বাপেক্ষা বেশি। সেখানে অভিযোগ জমা পড়েছে ১১ হাজার ৮৭২টি। এরপরই রয়েছে দিল্লি।

মহিলা নির্যাতনে শীর্ষে যোগীর উত্তরপ্রদেশ, দশম স্থানে বাংলা

গত ছ’বছরে যা হয়নি ২০২০ সালে তেমন ঘটনাই ঘটল। দেশে মহিলা নির্যাতনের প্রাবল্য বেড়েছে। অন্তত জাতীয় মহিলা কমিশনে অভিযোগের সংখ্যা তেমনটাই বলছে। ২০২০ সালে মোট অভিযোগ জমা পড়ার সংখ্যা ২৩ হাজার ৭২২। এদের মধ্যে এক চতুর্থাংশ গার্হস্থ্য নির্যাতনের অভিযোগ এসেছে। এমনটাই কমিশনের তথ্য থেকে জানা গিয়েছে।

দেশের সমস্ত রাজ্যের মধ্যে উত্তরপ্রদেশে মহিলা নির্যাতন সর্বাপেক্ষা বেশি। সেখানে অভিযোগ জমা পড়েছে ১১ হাজার ৮৭২টি। এরপরই রয়েছে দিল্লি ২৬৩৫টি, হরিয়ানা ১২৬৬টি এবং মহারাষ্ট্র ১১৮৮টি। মহিলা কমিশনের তথ্য থেকে জানান গিয়েছে ২৩ হাজার ৭২২টি অভিযোগের মধ্যে ৭ হাজার ৭০৮টি অভিযোগ পত্রে সম্মানের সঙ্গে বাঁচতে চাওয়ার অধিকারের কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

বুলবুল ছবির একটি দৃশ্য

এছাড়াও ৫ হাজার ২৯৪টি অভিযোগপত্রে গার্হস্থ্য হিংসার কথা বলা হয়েছে। জাতীয় মহিলা কমিশনের চেয়ারপার্সন রেখা শর্মা জানিয়েছেন আর্থিক সুরক্ষা না থাকা, মানসিক চিন্তার বৃদ্ধি, অর্থনৈতিক টানপোড়েন, পরিবারের সমর্থন এমন বিভিন্ন ইস্যুতে দেশে ২০২০ সালে প্রবলভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে মহিলাদের উপর নির্যাতনের মতো ঘটনাগুলি।

আরও পড়ুন, মুর্শিদাবাদের মাটিতে মমতাকে ‘সিরাজউদ্দৌলা’র সঙ্গে তুলনা রাজ্যের মন্ত্রীর

সংবাদসংস্থা পিটিআইকে রেখা শর্মা এও জানান, “বেশিরভাগ ক্ষেত্রে এই লকডাউনে ঘরই কাজের জায়গা হয়ে উঠেছে। একই জায়গায় কাজ ও সংসার একসঙ্গে সামলাতে হয়েছে মহিলাদের। কিন্তু সমস্যা বেড়েছে লকডাউনে। পরিবেশের সঙ্গে অনেকেই খাপ খাওয়াতে পারেননি।” এদিকে, সমস্যায় ছিল জাতীয় মহিলা কমিশনও। অভিযোগ আসলেও লকডাউন ও করোনা বিধির জন্য বাড়ি বাড়ি যাওয়ার উপায় ছিল না।

Read the full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Highest in six years ncw received 23722 complaints in 2020