বড় খবর

‘পাকিস্তানে যাও’, সিএএ বিক্ষোভকারীদের বলল পুলিশ

এপ্রসঙ্গে গেরুয়া শিবিরকে কটাক্ষ করে কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বলেন, ‘বিজেপি পুলিশকে সাম্প্রদায়িক করে তুলছে।’

সিএএ বিক্ষোভকারীদের হুঁশিয়ারি এসপি অখিলেশ এন সিংয়ের।

“পাকিস্তানে চলে যাও”। সিএএ বিক্ষোভকারীদের এই বলেই হুমকি দিল পুলিশ। উত্তরপ্রদেশের মীরাটে পুলিশ সুপারের সেই হুমকির ভিডিও সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। সেই ভিডিও ঘিরে বিতর্ক শুরু হতেই পুলিশের সাফাই, “প্রতিবেশী রাষ্ট্রের হয়ে স্লোগান দেওয়া হচ্ছে শুনেই আমরা ওই অঞ্চলে গিয়েছিলাম।” এ প্রসঙ্গে গেরুয়া শিবিরকে কটাক্ষ করে কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বলেন, “বিজেপি পুলিশকে সাম্প্রদায়িক করে তুলছে।”

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতায় উত্তাল উত্তরপ্রদেশ। প্রত্যেকদিনই রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় বিক্ষোভ আন্দোলন হচ্ছে। ইতিমধ্যেই মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের রাজ্যে সরকারিভাবে ১৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। গ্রেফতার ও আটকের সংখ্যা কয়েক হাজার। বন্ধ রাখতে হচ্ছে ইন্টারনেট পরিষেবা। দিন যত এগোচ্ছে, আন্দোলন ততই তীব্র হচ্ছে। ধরপাকড় চালাচ্ছে পুলিশ।


গত ২০ ডিসেম্বর হিংসাত্মক আন্দোলন হয় মীরাটে। লিসারি গেটে জনা চারেক প্রতিবাদীকে ধাওয়া করছিলেন এসপি (সিটি) অখিলেশ এন সিং। ভাইরাল এক ভিডিও-তে এসপি সিং-কে বলতে শোনা যাচ্ছে, “কোথায় যাবে, এই গলিটাকে ঠিক করে দেব।” এরপরই স্থানীয়দের দিকে মুখ ঘুরিয়ে উত্তেজিত হয়ে সিং বলেন, “যারা কালো ও হলুদ ফেট্টি বেঁধে রয়েছে তাদের বলে দেবেন পাকিস্তানে যেতে। এখানে খাবে কিন্তু অন্য দেশের গুণ গাইবে, তা চলবে না। এই গলিটা এখন আমার চেনা হয়ে গিয়েছে। কোনও বিষয় আমার একবার মনে গেঁথে গেলে….আমি কিন্তু ওদের দিদিমা পর্যন্ত পৌঁছে যেতে পারি।”

আরও পড়ুন: উত্তরপ্রদেশে ১৯ প্রতিবাদীর মৃত্যু, গ্রেফতার ১১০০-ও বেশি, আটক ৫,৫০০, ২১ জেলায় বন্ধ ইন্টারনেট

ভিডিও-তে দেখা যাচ্ছে লিসারি গেট এলাকার দু’টি গলির মোড়ে এসপি অখিলেশ এন সিং দাঁড়িয়ে রয়েছেন। সঙ্গে রয়েছেন আরও বেশ কয়েজন পুলিশকর্মী। স্থানীয়দের নিশানা করে পুলিশের উচ্চপদস্থ এই আধিকারিকে বলতে শোনা যাচ্ছে যে, “কিছু হয়ে গেলে কি তোমরা তার মূল্য চোকাবে? প্রত্যেক বাড়ি থেকে বার করে করে গ্রেফতার করে জেলে পুরব।”

একজন পুলিশকর্তা কি বিক্ষোভকারীদের পাকিস্তানে যাওয়ার হুঁশিয়ারি দিতে পারেন? বিতর্ক দানা বাঁধতেই নিজের হয়ে সাফাই খাড়া করেছেন এসপি অখিলেশ সিং। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে তিনি জানান, “পাকিস্তানের হয়ে স্লোগান দেওয়া চলছে জানতে পেরেই আমরা ওই এলাকায় গিয়েছিলাম। পুলিশ যেতেই ওরা ছুটে পালায়। আমরা জানতে পারি ওরা গন্ডগোল পাকাবার তালে ছিল। এ নিয়ে স্থানীয়দের সঙ্গে কথাও হয়েছে আমাদের।”

শনিবার এই প্রসঙ্গে সংবাদ সংস্থা এএনআই মীরাটের অতিরিক্ত ডিরেক্টরেট জেনারেল অফ পুলিশ প্রশান্ত কুমারকে উদ্ধৃত করে জানিয়েছে, সহকর্মীর মন্তব্যকে সমর্থন করে কুমার বলেছেন তাঁর “কথার ধরন” হয়তো অন্য হতে পারত যদি পরিস্থিতি অতটা গুরুতর না হতো। কুমার এও বলেছেন যে পরিস্থিতি “অত্যন্ত উত্তেজনাপূর্ণ” হওয়া সত্ত্বেও “যথেষ্ট সংযম” দেখিয়েছে পুলিশ।

“পাথর ছোড়া হচ্ছিল, ভারত-বিরোধী এবং পড়শি দেশের সমর্থনে স্লোগান দেওয়া হচ্ছিল। চারিদিকের পরিবেশ থমথমে হয়ে ছিল। পিএফআই-এর (ইসলামি মৌলবাদী সংগঠন পপুলার ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়া) পুস্তিকা বিলি হচ্ছিল, সকলের আবেদন, এমনকি ধর্মীয় নেতাদের আবেদন সত্ত্বেও,” জানিয়েছেন কুমার।

Read the full story in English

Web Title: If you dont want to live here than go to pakistan meerut sp tells protesters

Next Story
‘ধর্ম নয়, বলুন নিপীড়িত সংখ্যালঘু’, ক্যাব নিয়ে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ শোনেনি মোদী সরকার
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com