বড় খবর

সফল সপ্তম রাউন্ডের বৈঠক, লাদাখে দ্রুত সেনা সরানোর বিষয়ে রাজি ভারত ও চিন

যত দ্রুত সম্ভব পূর্ব লাদাখ থেকে সেনা সরানোর বিষয়ে পারস্পরিক ঐক্যমতে এসেছে ভারত ও চিন।

arunachal pradesh, অরুণাচল প্রদেশ, অরুণাচলে নিখোঁজ যুবক
প্রতীকী ছবি।

অবশেষে সপ্তম রাউন্ডের বৈঠক সফল। আশানুরূপ ফল মিলেছে দুই পক্ষের কথোপকথনে। সেই অনুযায়ী, পূর্ব লাদাখে দ্রুত সেনা সরানোর বিষয়ে ঐক্যমতে পৌঁছেছে ভারত ও চিন। যত দ্রুত সম্ভব ওই বিবাদিত অঞ্চল থেকে সেনা সরানোর বিষয়ে পারস্পরিক ঐক্যমতে এসেছে ভারত ও চিন। দুই পক্ষই এই বৈঠককে ইতিবাচক এবং গঠনমূলক বলে অভিহিত করেছে। ভারতীয় ভূখণ্ডের চুসুল-মল্ডো সীমান্তে দুই দেশের সেনা কমান্ডাররা বৈঠক করেছেন। গত পাঁচ মাসেরও বেশি সময় ধরে দুই দেশের সেনা সংঘর্ষে লিপ্ত ওই অঞ্চলে।

ভারত ও চিনা সেনার যৌথ বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, “দুই পক্ষই সেনা এবং কূটনৈতিক স্তরে আলোচনা-যোগাযোগের ভিত্তিতে মৌখিক ভাবে সেনা সরানোর বিষয়ে ঐক্যমতে পৌঁছেছে। যত দ্রুত সম্ভব সেনা সরানোর বিষয়ে রাজি হয়েছে দুই পক্ষই। বিবাদ না বাড়িয়ে দুই দেশের কূটনৈতিক সম্পর্ক অটুট রাখতে এবং সীমান্তে স্থিতাবস্থা রাখতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।” ভারতীয় সেনার তরফে বৈঠকে প্রতিনিধিত্ব করেন লেফটেন্যান্ট জেনারেল হরিন্দর সিং এবং চিনা সেনার তরফে ছিলেন মেজর জেনারেল লিউ লিন। তিনি দক্ষিণ শিনজিয়াং মিলিটারি ডিস্ট্রিক্টের কমান্ডার।

আরও পড়ুন LAC নিয়ে বৈঠকে ভারত-চিন সেনা, থাকবেন দুই দেশের বিদেশমন্ত্রকের আধিকারিকরাও

ভারতীয় প্রতিনিধিদের মধ্যে ছিলেন বিদেশমন্ত্রকের যুগ্ম সচিব নবীন শ্রীবাস্তব। ভারত-চিন সীমান্ত বিষয়ক সমন্বয়ক হিসাবে কাজ করছেন তিনি। এবারের বৈঠকে চিনের বিদেশমন্ত্রকের প্রতিনিধিও ছিলেন। প্রসঙ্গত, গত সোমবারই মার্কিন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা রবার্ট ও’ব্রায়েন কমিউনিস্ট শাসিত চিনের আঞ্চলিক আগ্রাসন নিয়ে তোপ দাগেন। ভারতীয় সীমান্তে চিনের আগ্রাসনকে ভাল চোখে দেখছে না মার্কিন মুলুকও। মার্কিন বিদেশসচিব মাইকেল পম্পেও এর আগে সতর্ক করেছিলেন, ভারতের উত্তর সীমান্তে চিন প্রায় ৬০ হাজার সেনা মোতায়েন করেছে।

Read the full story in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

Get the latest Bengali news and General news here. You can also read all the General news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: India china agree to arrive at solution for disengagement as early as possible

Next Story
হাথরাসে সিবিআই দল, নির্যাতিতার পরিবারকে জিজ্ঞাসাবাদhathras case, হাথরাস
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com