ভারতের নৌসীমায় মার্কিন রণতরীর ‘অনুপ্রবেশ’! নয়াদিল্লি-ওয়াশিংটন তরজা চরমে

বিদেশ মন্ত্রক মার্কিন প্রশাসনকে সাফ জানিয়ে দিয়েছে, ভারতের বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিনা অনুমতিতে প্রবেশ এবং সামরিক মহড়া চালানো বরদাস্ত করা হবে না।

ভারতের নৌসীমায় মার্কিন রণতরীর ‘অনুপ্রবেশ’! নয়াদিল্লি-ওয়াশিংটন তরজা চরমে

অনুমতি ছাড়াই ভারতের নৌসীমানায় বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে মার্কিন রণতরীর মহড়া নিয়ে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে কূটনৈতিক মহলে। এই বিষয়টি সামনে আসতেই নড়েচড়ে বসেছে নয়াদিল্লি। তড়িঘড়ি ওয়াশিংটনের গোচরে গোটা বিষয়টি এনে আপত্তি জানিয়েছে ভারত। আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করে ভারতের নৌসীমানায় ঢুকে ফ্রিডম অফ ন্যাভিগেশন অপারেশন চালায় মার্কিন রণতরী। যা প্রকাশ্যে আসতেই হইচই পড়ে গিয়েছে।

যদিও মার্কিন নৌসেনার দাবি, আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন হয়নি, এবং এইধরনের মহড়া হয়েই থাকে। তাতে ভারতের সার্বভৌমত্বে কোনও হানা হয়নি বলে দাবি তাদের। বিষয়টি নজরে রেখে বিদেশ মন্ত্রক মার্কিন প্রশাসনকে সাফ জানিয়ে দিয়েছে, ভারতের বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিনা অনুমতিতে প্রবেশ এবং সামরিক মহড়া চালানো বরদাস্ত করা হবে না। মার্কিন কূটনৈতিক স্তরে বার্তা পাঠিয়েছে ভারত।

বিদেশ মন্ত্রকের তরফে একটি বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়েছে, সমুদ্রের আইন সম্পর্কিত রাষ্ট্রসংঘের কনভেনশন সম্পর্কে ভারত সরকারের বর্ণিত অবস্থান হ’ল এই যে এর মাধ্যমে বিনা অনুমতিতে অন্য কোনও দেশকে ভারতের বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে এবং মহাদেশীয় নৌসীমানায় সামরিক মহড়া বিশেষত সমরাস্ত্র এবং বিস্ফোরক বহণকারী যানকে প্রবেশাধিকার দেওয়া হবে না।

আরও বলা হয়েছে, মার্কিন রণতরী USS John Paul Jones পারস্য উপসাগর থেকে মালাক্কা প্রণালী হয়ে চক্কর কাটতে থাকে। কূটনৈতিক স্তরে মার্কিন প্রশাসনকে আমাদের আপত্তির কথা জানিয়েছি। এদিকে, মার্কিন নৌসেনার সপ্তম বহরের তরফে একটি বিবৃতিতে দাবি করা হয়েছে, আরলেই বার্ক-ক্লাসের ক্ষেপণাস্ত্র ধ্বংসকারী USS John Paul Jones-এর লাক্ষাদ্বীপের পশ্চিমে ১৩০ নটিক্যাল মাইল পর্যন্ত ভিতরে ঢুকেছিল। আন্তর্জাতিক আইন কোনওভাবেই লঙ্ঘন করা হয়নি। তবে মার্কিন নৌসেনা যাই বলুক, এই বিষয়ে ইন্দো-মার্কিন চাপানউতোর বাড়ছে।

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: India conveys concern to washington as us navy holds operation near lakshadweep without consent

Next Story
রাজ্যে রাজ্যে বাড়ছে করোনা টিকা ঘাটতি, প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি মুখ্যমন্ত্রীদের