বড় খবর

আরও ৩ মাস গৃহবন্দি মেহেবুবা।। বিধায়কদের জয়সলমের পাঠালেন গেহলট।। করোনা-স্বাস্থ্যকর্মীদের বেতন নিয়ে সুপ্রিম নির্দেশ।। আপাতত উড়ছে না আন্তর্জাতিক বিমান

আগামী ৩১ অগাস্ট পর্যন্ত দেশে বন্ধ থাকবে আন্তর্জাতিক বিমান চলাচল, শুক্রবার ডিজিসিএ-র তরফে এমনটাই জানানো হয়েছে।

India latest news, দেশের খবর, ভারতের খবর
দেশের খবর একনজরে।

মেহেবুবা মুফতির বন্দি দশার মেয়াদ আরও তিন মাস বাড়ানো হল। এদিকে, নিজের শিবিরের বিধায়কদের রাজধানী জয়পুরের হোটেল থেকে জয়সলমেরের রিসর্টে পাঠালেন অশোক গেহলট। অন্য়দিকে, করোনা পরিস্থিতিতে দেশে আপাতত চালু হচ্ছে না আন্তর্জাতিক বিমান পরিষেবা। আবার, করোনা চিকিৎসায় যুক্ত চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের বেতন নির্দিষ্ট সময়ে মেটানোর বিষয়টি কেন্দ্রকে নিশ্চিত করতে নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট। দেশের এমনই সব খবর পড়ুন এক এক করে…

আরও ৩ মাস গৃহবন্দি মেহেবুবা

মেহেবুবা মুফতি

মেহেবুবা মুফতির বন্দি দশার মেয়াদ আরও তিন মাস বাড়ান হল। জননিরাপত্তা আইনেই গৃহবন্দির মেয়াদ বাড়াল প্রশাসন। গত প্রায় এক বছর ধরে বন্দি রয়েছেন পিপলস ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রধান।

গত বছর ৫ই অগাস্ট জম্মু-কাশ্মীর থেকে বিশেষ ধারা ৩৭০ বাতিল করে কেন্দ্র। তারপরই উপত্যকার অধিকাংশ রাজনাতিক দলের প্রধান সহ নেতাদের বন্দি করা হয়। জননিরাপত্তা আইনে ফারুক ও ওমর আবদুল্লার সঙ্গেই বন্দি করা হয় মেহেবুবা মুফতিকে। তবে তাঁরা ছাড়া পেলেও মুক্ত করা হল না এই নেত্রীকে।

প্রথমে গেস্ট হাউসে নজরবন্দি রাখা হলেও বর্তমানে বাড়িতেই নজরবন্দি রয়েছেন পিপলস ডেমোক্রেটিক দলের নেত্রী। শুক্রবারই পিপলস কনফারেন্স প্রধানকে মুক্ত করা হয়েছে বলে সরকারিভাবে ঘোষণা করা হয়।

উল্লেখ্য জননিরাপত্তা আইনে কোনও ব্যক্তিকে দু’বছর পর্যন্ত বন্দি করে রাখা যায়। Read in English

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস বাংলা এখন টেলিগ্রামে, পড়তে থাকুন

দেশের অন্য়ান্য় খবর পড়ুন নীচে

নিজের শিবিরের বিধায়কদের জয়সলমের পাঠালেন গেহলট

অশোক গেহলট

বেশি দরে বিধায়ক কেনা-বেচার চেষ্টার অভিযোগ আগেই করেছেন মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট। এবার নিজের শিবিরের বিধায়কদের রাজধানী জয়পুরের হোটেল থেকে জয়সলমেরের রিসর্টে পাঠালেন পোড় খাওয়া গেহলট। আগামী ১৪ই অগাস্ট পর্যন্ত এই বিধায়কদের রিসর্টেই থাকতে বলা হয়েছে।

*বহু টালবাহানার পর অবশেষে বৃহস্পতিবার বিধানসভার অধিবেশন ডাকার অনুমতি দিয়েছেন রাজস্থানের রাজ্যপাল কলরাজ মিশ্র। আগামী ২৪ অগাস্ট থেকে বলবে অধিবেশন। দেরিতে হলেও অধিবেশন ডাকার জন্য রাজ্যপালকে ধন্যবাদ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট। তবে, সেই সঙ্গেই অধিবেশন ডাকতে দেরি করায় কটাক্ষও তিনি। ‘ঘোড়া কেনা-বেচা’র জন্য অযথা এই দেরি বলে মনে করেন মুখ্যমন্ত্রী। এখানেই শেষ নয়, সুর চড়িয়ে তাঁর অভিযোগ, ‘অধিবেশন ডাকার দিন ঘোষণা হতেই বিধায়কদের দর অনেক বেড়ে গিয়েছে।’

সাংবাদিকদের পোড় খাওয়া গেহলট বলেছেন, ‘১৪ অগাস্ট অধিবেশন শুরুর দিন ঘোষণা হতেই ফোনের ঘন্টা বাজতে শুরু করেছে। আমরা জানতে পেরেছি কে ফোন করছেন, কি প্রস্তাব দিচ্ছেন। যা চাও তাই পাবে- এই প্রস্তাব ক্রমশ আসছে।’ মুখ্যমন্ত্রীর নিশানায় যে প্রাক্তন উপমুখ্যমন্ত্রী শচিন পাইলট তা স্পষ্ট।

দেশের অন্য়ান্য় খবর পড়ুন নীচে

সঠিক সময়ে করোনা-স্বাস্থ্যকর্মীদের বেতন নিশ্চিত করুন: সুপ্রিম কোর্ট

coronavirus, করোনাভাইরাস
প্রতীকী ছবি।

করোনা চিকিৎসায় যুক্ত চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের বেতন নির্দিষ্ট সময়ে মেটানোর বিষয়টি কেন্দ্রকে নিশ্চিত করতে নির্দেশ দিল সুপ্রিম কোর্ট। এই রায়ের প্রেক্ষিতে মোদী সরকার জানিয়েছে, রাজ্যগুলোকেই এর ভার নিতে হবে। ২০০৫ সালের বিপর্যয় মোকাবিলা আইনের অধীন করোনার চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের বেতন নির্দিষ্ট সময়ে মেটাতে হবে।

কেন্দ্রের নজরদারির ভূমিকায় ক্ষুব্ধ সর্বোচ্চ আদালত। এদিন বিচারপতি এমআর শাহ বলেছেন, ‘আদালতের রায় বলবৎ হচ্ছে কিনা তা কেন্দ্রীয় সরকারকেই দেখতে হবে। জেলাশাসক আইনে এই অধিকার কেন্দ্রের রয়েছে। প্রয়োজনে পদক্ষেপও করতে পারবে কেন্দ্রীয় সরকার।’

আদালতে কেন্দ্র জানিয়েছিল যে, করোনা চিকিৎসায় যুক্ত চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের বেতন নির্দিষ্ট সময়ে মেটাতে রাজ্যগুলোকে কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়েছিল। কিন্তু, পাঞ্জাব, মহারাষ্ট্র ত্রিপুরা ও কর্নাটক সেই নির্দেশ বলবৎ করে উঠতে পারেনি।

স্বাস্থ্যকর্মীদের অনেকেই পরিষেবা প্রদানকালে সংক্রমিত হয়ে পড়ছেন। এরপর যতদিন আক্রান্ত স্বাস্থ্যকর্মীরা কোয়ারিন্টিনের থাকছেন ততদিন নির্দিষ্ট ব্যক্তির ছুটি বলে ধরে নেওয়া হচ্ছে। এই মামলায় এমনটাই অভিযোগ করেছিলেন আবেদনকারী। এর প্রেক্ষিতে কেন্দ্রের প্রতিক্রিয়া চেয়েছ সুপ্রিম কোর্ট। আদালতের কেন্দ্রের তরফে সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহেতা আশ্বাস দেন বিষয়টিতে নজর দেওয়া হবে। Read in English

দেশের অন্য়ান্য় খবর পড়ুন নীচে

অক্টোবর-নভেম্বরে বিহার নির্বাচন না করতে কমিশনে চিঠি

bihar election
ছবি: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

আগামী অক্টোবর-নভেম্বরে বিহারে নির্বাচন না করার জন্য় নির্বাচন কমিশনকে চিঠি লিখল বিজেপি শরিক লোক জনশক্তি পার্টি। ওই সময় নির্বাচন হলে,  ‘মানুষকে মৃত্য়ুর মুখে ঠেলে দেওয়া হবে’, এমন কথাই কমিশনকে জানিয়েছে এলজেপি।

* এলজেপি-র তরফে বলা হয়েছে, বিশেষজ্ঞদের মতে, অক্টোবর-নভেম্বরে করোনা পরিস্থিতি আরও মারাত্মক আকার নেবে। এখন মানুষের জীবন বাঁচানোটই প্রধান গুরুত্ব।

* নির্বাচন নিয়ে আরেক বিজেপি শরিক জেডিইউ-র থেকে অন্য় অবস্থান এলজেপি-র। বিহারে নির্বাচন করার পক্ষেই কথা বলেছেন নীতীশ কুমার। (Read in English)

দেশের অন্য়ান্য় খবর পড়ুন নীচে

দেশে ৩১ অগাস্ট পর্যন্ত বন্ধ আন্তর্জাতিক বিমান

international flights, আন্তর্জাতিক বিমান
প্রতীকী ছবি।

করোনা পরিস্থিতিতে দেশে আপাতত চালু হচ্ছে না আন্তর্জাতিক বিমান পরিষেবা। আগামী ৩১ অগাস্ট পর্যন্ত দেশে বন্ধ থাকবে আন্তর্জাতিক বিমান চলাচল, শুক্রবার ডিজিসিএ-র তরফে এমনটাই জানানো হয়েছে।

* আগে এই ডেডলাইন ছিল ৩১ জুলাই পর্যন্ত।

* উল্লেখ্য়, দেশে এবার চালু হচ্ছে আনলক ৩। তবে এখনও একাধিক ক্ষেত্রে বিধিনিষেধ বহাল রাখা হয়েছে।

দেশের অন্য়ান্য় খবর পড়ুন নীচে

‘মানসিকভাবে নিঃশেষিত’, মুক্ত হয়ে মন্তব্য সাজাদ লোনের

সাজাদ লোন

জম্মু-কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বাতিলের প্রায় এক বছরের মাথায় গৃহবন্দি দশা থেকে মুক্ত করা হল পিপলস কনফারেন্স দলের চেয়ারম্যান সাজাদ লোনকে। টুইটারে নিজেই মুক্ত হওয়ার ঘোষণা করেন জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন মন্ত্রী।

টুইটারে শুক্রবার সাজাদ লোন জানিয়েছেন জেলে থাকা তাঁর কাছে নতুন কিছু নয়, তবে এবারের অভিজ্ঞতা ভয়াবহ। এবার তিনি ‘মানসিকভাবে নিঃশেষিত’ ব্যাখ্যা করেছেন। সাজাদ লোন টুইটে লিখেছেন যে, ‘৩৭০ ধারা বিলোপের বর্ষপূর্তির পাঁচ দিন আগে সরকারিভাবে আমাকে জানানো হল যে আমি মুক্ত। দৈহিক নির্যাতনের নিরিখে এর আগের জেল যাত্রাগুলো কঠিন ছিল। কিন্তু, এটায় আমি মানসিকভাবে নিঃশেষিত। আগামিতে আরও কথা জানাব।’ গত বছর ৫ অগাস্টের পর এটাই লোনের প্রথম টুইট।


বহু রাজনৈতিক নেতা, কর্মী, আইনজীবী, ব্যবাসায়ী,আন্দোলনকারীর মতোই সাজাদ লোনও উপত্যাকা থেকে বিশেষ ধারা ৩৭০ বাতিলের বিরুদ্ধে সোচ্চায় হয়েছিলেন। গত আগাস্টেই লোনকে জেলবন্দি করে প্রশাসন।

চলতি বছর ফেব্রুয়ারিতে জেল মুক্ত করে গৃহবন্দি করা হল জম্মু-কাশ্মীরের দুই রাজনীতিবিদ সাজ্জাদ লোন আর ওয়াহিদ পারাকে। প্রায় ছ’মাশ পর তাঁদের জেল থেকে মুক্তি দেয় প্রশাসন। শ্রীনগর এমএলএ হস্টেলে থেকে ছেড়ে দেওয়া হলেও নিজের বাড়িতেই পুলিশের নজরদারিতে ছিলেন পিপলস কনফারেন্সের চেয়ারম্যান। Read in English

দেশের অন্য়ান্য় খবর পড়ুন নীচে

‘অতিমারীতে ভূমিপূজনের প্রয়োজন ছিল না’

রাজ ঠাকরে

দেশের করোনার দাপট অব্যাহত। এই পরিস্থিতিতেই অযোধ্যায় রামমন্দিরের ভূমি পূজনের আয়োজন চূড়ান্ত করেছে ট্রাস্ট। কিন্তু, মহারাষ্ট্র নবনির্বাণ সেনার প্রধান রাজ ঠাকরে মনে করেন, অতিমারী আবহে ভূমিপূজন সাময়িক স্থগিত রাখাই শ্রেয়। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে এই পুজো পরে করা যেতে পারে বলে জানান রাজ।

৫ই অগাস্ট অযোধ্যার রামমন্দিরে ভূমি পুজো হবে। বিশেষ অতিথি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। স্বাস্থ্য বিধি মেনেই পূজনের আয়োজন হবে। করোনার জন্য ই-ভূমি পুজোর প্রস্তাব দিয়েছিলেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী সম্পর্কে রাজ ঠাকরের ভাই উদ্ধব ঠাকরে। কিন্তু সেই প্রস্তাবে সায় নেই রাজ ঠাকরের।

মারাঠি চ্যানেলকে এক সাক্ষাৎকারে রাজ বলেছেন, ‘ভূমি পুজো ঘিরে মানুষ এখন আনন্দ করতে পারবে না। কারণ অতিমারিতে মানুষ ভিন্ন মানসিকতায় রয়েছে। দু’মাস পর পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে এই অনুষ্ঠান করা যেত। তখন মানুষও আনন্দ করতে পারত।’

উল্লেখ্য, করোনা সংক্রমিত হয়েচেন অযোধ্যা রামমন্দিরের পুরোহিত। সেই সঙ্গে করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে রামমন্দিরে কর্মরত ১৬ জন পুলিশকর্মীরও। Read in English

দেশের অন্য়ান্য় খবর পড়ুন নীচে

প্যাংগং-গোগরায় সমাধান অধরা, ভারতীয় সেনার নজরে আলোচনা

প্যাংগং থেকে কবে সরবে লাল-ফৌজ?

লাদাখ ও সংলগ্ন এলাকায় অবস্থিত নিয়ন্ত্রণরেখা থেকে ধীরে ধীরে উভয় দেশের সেনা সরছে ও উত্তেজনার পরিস্থিতি ক্রমশ প্রশমণের দিকে এগোচ্ছে। সম্প্রতি চিনা বিদেশ মন্ত্রকের তরফে এই দাবি করা হয়। কিন্তু, বাস্তব অবস্থা যে ভিন্ন ভারতীয় সেনা সূত্রে মেলা খবরেই তা স্পষ্ট। বিগত দু’সপ্তাহের বেশি সময় ধরে ভারত-চিন বিরোধের অন্যতম প্যানংগং ও গোগরার ১৭-এ পেট্রোলিং পয়েন্ট থেকে লাল ফৌজ সরার ক্ষেত্রে কোনও সদর্থক অগ্রগতি নেই বলে জানা গিয়েছে।

ভারতীয় সেনা সূত্রে জানা গিয়েছে, প্যাংগংকে এখনও চিনা সেনা রয়েছে। একই অবস্থা গোগরার ১৭-এ পেট্রোলিং পয়েন্টেও। ভারত-চিন সীমান্ত বিরোধ প্রশমণে উভয় দেশের সেনা কমান্ডার ও কূটনৈতিক পর্যায়ে আলোচনা চলছে। আগামী কয়েকদিনেই ফের আলোচনায় বসতে পারে দু’দেশের সেনা। সেই বৈঠকে এই দুই অঞ্চল থেকে চিনা সেনা সরানোর বিষয়ে বিশেষ গুরুত্ব দেবে ভারতীয় সেনা। মনে করা হচ্ছে সপ্তাহান্তে ভারত-চিন সেনা পর্যায়ে আলোচনা হতে পারে, তবে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত এ বিষয়ে সরকারিভাবে কিছু জানানো হয়ননি।

চিনা জাতীয় সুরক্ষা মন্ত্রকের মুখপাত্র সিনিয়ার কলোনেল রেন গৌকিয়াঙ্গ বৃহস্পতিবারই বলেছেন যে, ‘গালওয়ান সংঘর্ষের পর থেকেই চিন ও ভারত সেনা ও কূটনৈতিক পর্যায়ে কার্যকরী আলোচনা চালাচ্ছে। নিয়ন্ত্রণরেখা থেকে দু’দেশের সেনা সরছে ও পরিস্থিতি প্রশমণের দিকে এগোচ্ছে।’ এরপরই তাঁর সংযোজন, ‘আশা করব পারস্পরিক সহযোগিতা, দু’দেশের উন্নতি ও ওই অঞ্চলের শান্তির কথা বিবেচনা করে ভারত পদক্ষেপ করবে। উভয় দেশের সেনা সহযোগিতাপূর্ণ পরিবেশে সঠিক দিশায় এগিয়ে যাবে।’

রেন গৌকিয়াঙ্গয়ের এই মন্তব্য প্রসঙ্গে ভারতীয় সেনা সূত্রে জানা যায় যে, প্যানংগং ও গোগরার ১৭-এ পেট্রোলিং পয়েন্ট থেকে লাল ফৌজ আর সরেনি। দেপসাংয়ের অবস্থারও বদল ঘটেনি। এখানে ভারতীয় সেনাকে চিনা বাহিনী নজরদারি করতে দিচ্ছে না বলে অভিযোগ করা হয়েছে। গত ১৪ জুলাই চুশুল মল্ডতে নিয়ন্ত্রণরেখা নিয়ে ভারত-চিন সেনা কমান্ডোস্তরে চতুর্থ দফার আলোচনা হয়েছিল। সেই থেকে অচলাবস্থা জারি রয়েছে। Read in English

দেশের অন্য়ান্য় খবর পড়ুন নীচে

জম্মু-কাশ্মীরে আইনের শাসন ফিরলেও জঙ্গি হওয়ায় বিরাম নেই

উপত্যকায় আইন-শৃৃঙ্খলার উন্নতি হয়েছে, দাবি পুলিশের

কেন্দ্রীয় রিপোর্ট ও জম্মু-কাশ্মীর পুলিশের শীর্ষ কর্তার দাবি, উপত্যকায় আইন-শৃঙ্খলার ক্রমশ উন্নতি হচ্ছে। ৩৭০ ধারা বাতিল ও রাজ্যকে দু’টি কেন্দ্র শাসিত অঞ্চলে পরিনত করার পর থেকে বিশেষভাবে এই উন্নতি চোখে পড়ছে। কিন্তু, নিরাপত্তা বাহিনীর কড়া নজরদারির মধ্যেও স্থানীয় যুবকদের জঙ্গি দলে নাম লেখানোর ধারা উল্লেখযোগ্যভাবে কমেনি। আর এটাই এখন মাথাব্যথা বাড়াচ্ছে নিরাপত্তা বাহিনীর।

কংগ্রেস নেতা সইফুদ্দীন সোজ থেকে শুরু করে উপত্যকার বিভিন্ন দলের অধিকাংশ ছোট-বড় নেতৃত্ব এখন হয় গৃহবন্দি, নয়তো জেলে। তাও কেন যুবকরা সমাজ বিচ্ছিন্ন হয়ে জঙ্গি দলে চলে যাচ্ছে? আপাতত এটাই ভাবাচ্ছে পুলিশ ও নিরাপত্তা বাহিনীকে।

এতকিছুর মধ্যেও স্থানীয় যুবকদের জঙ্গিদের প্রতি আনুগত্য নিরাপত্তা বাহিনীর ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে। চলতি বছর জানুয়ারির শুরুর দিকে ৮০ জন যুবক জঙ্গি দলে নাম লেখায়, এর মধ্যে ৩৮ জনকে হত্যা করা হয় ও ২২ জন ধৃত। এখনও পর্যন্ত এই বছরে ৪১টি অভিযানে ১৫০ জঙ্গি নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে নিহত হয়েছে। গত বছর ৫ই অগাস্টের পর থেকে এই সংখ্যাটা ১৭৬।

পুলিশের দাবি অনুসারে জম্মু-কাশ্মীরে প্রায় ১৯০ জঙ্গি সক্রিয়, এর মধ্যে ১০০ জন দেশী। স্থানীয় যুবকদের দলের নেওয়ার পর পরই নাশকতার অগ্রভাগে রাখা হয়। আর এতেই বেশি প্রাণ যায় স্থানীয় জঙ্গিদের, যাদের বয়স নেহাতই কম। যা উদ্বেগ বাড়াচ্ছে। Read in English

দেশের অন্য়ান্য় খবর পড়ুন নীচে

সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে প্রবাসী মহিলাকে সাহায্য় ভারতীয় কনস্য়ুলেটের

UAE
প্রতীকী ছবি।

সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে প্রবাসী ভারতীয় এক মহিলাকে সাহায্য়ের হাত বাড়িয়ে দিল দুবাইয়ে নিযুক্ত ভারতীয় কনস্য়ুলেট। সম্প্রতি সোশ্য়াল মিডিয়ায় ওই মহিলার পারিবারিক অশান্তির ভিডিও ভাইরাল হয়। টুইটারে ওই ভিডিও পোস্ট করেন এক সাংবাদিক।

* ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, মহিলা কাঁদছেন, তাঁকে মারধর করা হয়েছে এবং মানসিক নির্যাতন চালানো হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

* ওই মহিলার ১৩ মাসের কন্য়াসন্তান রয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

* জানুয়ারিতে সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে পৌঁছোন মহিলা। তিনি পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারছেন না কারণ, তাঁর সিমকার্ড নেই।

* ভিডিওটিতে ট্য়াগ করা হয় ভারতীয় কনস্য়ুলেটকে। তারপরই মহিলার সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। (Read in English)

দেশের সব গুরুত্বপূর্ণ খবর পড়ুন এই প্রতিবেদনে

Get the latest Bengali news and General news here. You can also read all the General news by following us on Twitter, Facebook and Telegram.

Web Title: India top news national today latest news update 31 july 2020 india modi bjp congress corona

Next Story
জম্মু-কাশ্মীরে আইনের শাসন ফিরলেও জঙ্গি হওয়ায় বিরাম নেই
The moderation of comments is automated and not cleared manually by bengali.indianexpress.com