scorecardresearch

বড় খবর

চার ভারতীয় মহিলার প্রতি টেক্সাসে বর্ণবিদ্বেষী আচরণ, তীব্র প্রতিক্রিয়া আতঙ্কিত অনাবাসীদের

এই বর্ণবিদ্বেষী হামলার জন্য টেক্সাসের প্ল্যানো এলাকা থেকে এসমেরালদা আপটনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

চার ভারতীয় মহিলার প্রতি টেক্সাসে বর্ণবিদ্বেষী আচরণ, তীব্র প্রতিক্রিয়া আতঙ্কিত অনাবাসীদের

আমেরিকার টেক্সাসে চার ভারতীয় মহিলার প্রতি বর্ণবিদ্বেষী আচরণের তীব্র নিন্দা করল আতঙ্কিত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইন্দো আমেরিকান সংস্থাগুলো। এই বর্ণবিদ্বেষী হামলার জন্য টেক্সাসের প্ল্যানো এলাকা থেকে এসমেরালদা আপটনকে বুধবার গ্রেফতার করা হয়েছে। তিনি বর্ণবিদ্বেষের বশবর্তী হয়ে পার্কিং লটে চার দক্ষিণ এশীয় মহিলার প্রতি কুরুচিকর মন্তব্য করেন এবং তাঁদের আক্রমণ করেছিলেন।

এই ঘটনায় তীব্র প্রতিক্রিয়া জানিয়ে ইন্ডিয়াসপোরা থেকে সঞ্জীব জোশিপুরা বলেন, ‘টেক্সাসে চার ভারতীয় বংশোদ্ভূত মহিলাকে বর্ণবিদ্বেষের কারণে অপবাদ, হয়রান এবং নিষ্ঠুর নির্যাতন করা হয়েছে। এই খবর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইন্দো-আমেরিকানদের মধ্যে তীব্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি করেছে৷ তিনি বলেন, ‘ভাইরাল ভিডিওয় দেখা গিয়েছে, চার বন্ধু আচমকা এই পরিস্থিতির মুখোমুখি হন। সেই সময়ে তাঁরা শহরতলির একটি পার্কিং লটে তাঁদের ডিনারের পর কথা বলছিলেন। ইন্ডিয়াসপোরার আমরা এই বর্ণবিদ্বেষী আচরণের তীব্র নিন্দা করছি। একইসঙ্গে বৈষম্য ও কুসংস্কারের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য নতুন করে ফের অঙ্গীকার করছি।’

মার্কিন কংগ্রেসের প্রথম ইন্দো-আমেরিকান মহিলা সদস্য প্রমীলা জয়া বলেন, ‘গত দু’বছরে এশীয়দের বিরুদ্ধে ঘৃণা প্রকাশের এটি দ্বিতীয় দুঃখজনক ঘটনা। আগের ঘটনাটাও এরকমই ঘটেছিল। এই সব ঘটনা এশীয়-আমেরিকানদের মধ্যে তীব্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করেছে।’ ইন্দো-আমেরিকান ইমপ্যাক্টের নির্বাহী পরিচালক নীল মাখিজা বলেন, ‘দক্ষিণ-এশীয় সম্প্রদায়ের প্রতি এসমেরালদা আপটনের বিপজ্জনক এবং সহিংস অনুভূতিকে মোটেও হালকাভাবে নেওয়া উচিত নয়। আইনি ক্ষেত্রে আমরা ভাগ্যবান যে এই বর্ণবিদ্বেষী আচরণ ক্যামেরায় ধরা পড়েছে। কিন্তু, আমাদের সম্প্রদায়ের সদস্যদের প্রতি তাঁর নির্লজ্জের মত ঘৃণা প্রদর্শন উদ্বেগজনক এবং দুর্ভাগ্যজনক।’

আরও পড়ুন- প্রশাসনের অসামান্য কাজের স্বীকৃতি, দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস দিচ্ছে ‘Excellence in Governance Awards’

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অনেক ইন্দো-আমেরিকানই বলছেন, ‘আমরা অত্যন্ত কৃতজ্ঞ যে হামলার শিকার চার জনের শারীরিকভাবে গুরুতর কোনও ক্ষতি হয়নি। তবে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ওপর ধারাবাহিক আক্রমণের মানসিক প্রভাব পড়েছে। এই আক্রমণ মোকাবিলা করা আমাদের কাছে তাই অপরিহার্য। টেক্সাস থেকে বর্ণবিদ্বেষী আচরণ বন্ধ করার জন্য শুধু প্রশাসনিক তৎপরতাই যথেষ্ট নয়। প্রয়োজন বহুসাংস্কৃতিক শিক্ষার সম্প্রসারণ। নিরাপত্তার বিধি বাস্তবায়ন। যাতে বর্ণবিদ্বেষ, অনাবাসীদের প্রতি অন্যায় বন্ধ করা যায় এবং নারীকল্যাণ নিশ্চিত করা যায়।’

Read full story in English

Stay updated with the latest news headlines and all the latest General news download Indian Express Bengali App.

Web Title: Indian americans condemn racist attack in texas